• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • Nadia News: বয়স্ক এবং বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের জন্য ব্যালট ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু শান্তিপুরে

Nadia News: বয়স্ক এবং বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের জন্য ব্যালট ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু শান্তিপুরে

ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু শান্তিপুরে

ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু শান্তিপুরে

Bangla news: আগামী ৩০ অক্টোবর সারা রাজ্যে চারটি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের নির্ঘণ্ট ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

  • Share this:

    #নদিয়া: ব্যালট পেপারে ভোট গ্রহণ শুরু হল নদিয়ার শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে। হাতে গোনা আর মাত্র কয়েকদিন পর আগামী ৩০ অক্টোবর সারা রাজ্যে চারটি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের নির্ঘণ্ট ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

    সেই মোতাবেক যেইসব ভোটাররা শারীরিকভাবে পিছিয়ে পড়া অথবা বয়স জনিত কারনে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দান করতে অক্ষম মূলত সেইসব ভোটারদের কথা মাথায় রেখে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত বিভিন্ন এলাকায় কড়া প্রশাসনিক নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ভোটদান পর্ব শুরু করতে দেখা গেল স্থানীয় বিডিও অফিসের নির্বাচনী দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী সহ ভোট কর্মীদের।

    এই দিন সকাল থেকে রীতিমতো যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে কড়া পুলিশি নিরাপত্তা সহকারে ভোট কর্মীরা এই ধরনের শারীরিক ভাবে অক্ষম ভোটারদের বাড়িতে পৌঁছান। এরপর নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী ছোট ছোট নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে ও ভোট কর্মীদের উপস্থিতিতে সেইসব ভোটাররা নিজেদের সাংবিধানিক অধিকার প্রয়োগ করেন নিজেদের ভোট দানের মাধ্যমে।

    এই দিনের এই ব্যালট পেপারে ভোট গ্রহণ কে কেন্দ্র করে যে কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্পূর্ণ শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকা মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার বলয়ে। অন্যদিকে শান্তিপুর বিধানসভার উপনির্বাচন যেন সুষ্ঠুভাবে হয় সেই দিকেই পাখির চোখ নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের। শান্তিপুর বিধানসভার উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই গোটা শান্তিপুর বিধানসভা এলাকায় প্রতিদিনই চলছে পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুটমার্চ, একইভাবে বুধবার বিকেলে রানাঘাট জেলা পুলিশের পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে শান্তিপুরের রাজপথ ধরে শুরু হয় পুলিশ ও কেন্দ্র বাহিনির রুটমার্চ। এদিন রুটমার্চ চলাকালীন রানাঘাট জেলা পুলিশের পুলিশ সুপার সায়ক দাস রাস্তায় পথচলতি বেশকিছু সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেন। গত বিধানসভা ভোটে কোথাও কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা বা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে হয়েছে কিনা জিজ্ঞাসা করেন সাধারণ মানুষকে। যদিও উপনির্বাচন সুষ্ঠুভাবে করতে প্রশাসন যথেষ্ট তৎপর থাকবে বলে জানান পুলিশ সুপার সায়ক দাস।

    এবং উপ নির্বাচন চলাকালীন কোথাও যদি কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে সেই ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করবে প্রশাসন। যদিও নদিয়ার ১৭ টি বিধানসভার মধ্যে শান্তিপুর বিধানসভাতেই একমাত্র হতে চলেছে উপনির্বাচন, যার কারণে এই কেন্দ্রটি এখন পাখির চোখ নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের।

     Mainak Debnath 

    Published by:Piya Banerjee
    First published: