Home /News /local-18 /
Murshidabad: মুর্শিদাবাদে জমে উঠেছে লাচ্ছা সিমাইয়ের বাজার

Murshidabad: মুর্শিদাবাদে জমে উঠেছে লাচ্ছা সিমাইয়ের বাজার

সামশেরগঞ্জে

সামশেরগঞ্জে চলছে লাচ্ছা সেমাইয়ের বিক্রি 

মুসলিম সম্প্রদায় অধ্যুষিত জেলা মুর্শিদাবাদ। জনঘনত্বের হিসেবে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে মুসলিম সম্প্রদায়ের সংখ্যা পাল্লা দেয় কাশ্মীরের সাথে। তাই বলাই বাহুল্য, জেলার অন্যতম মুখ্য উৎসব হল ইদ।

  • Share this:

    সামসেরগঞ্জ: মুসলিম সম্প্রদায় অধ্যুষিত জেলা মুর্শিদাবাদ। জনঘনত্বের হিসেবে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে মুসলিম সম্প্রদায়ের সংখ্যা পাল্লা দেয় কাশ্মীরের সাথে। তাই বলাই বাহুল্য, জেলার অন্যতম মুখ্য উৎসব হল ইদ। হিজরী সন অনুযায়ী চন্দ্র মাসের হিসেবে গণনা করা হয় বছর। আর সেই নিয়মে এবছর এপ্রিল মাসের তারিখ থেকে শুরু হয়েছে রমজান মাস। রমজান মাস মুসলিম ধর্মালম্বীদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র মাস। ূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত সারাদিন রোজা পালনের পর রোজা পালনকারী নমাজ পড়ে ইফতারে বসেন।আর সেই ইফতারের মুখ্য অঙ্গ হল অপূর্ব স্বাদের লাচ্ছা সিমাই। অত্যন্ত জনপ্রিয় এই খাবারের সুঘ্রাণ প্রায় প্রতি বাড়িতেই এইসময় পাওয়া যায়। সারাবছর এই খাবারের তেমন দেখা না পাওয়া গেলেও রমজান মাস শুরু হতেই গ্রাম শহর নির্বিশেষে এলাকায় বসে লাচ্ছা সিমাইয়ের স্টল। রমজান মাস শুরু হতেই দোকানগুলোও যেন সেজে ওঠে পবিত্র ইদ উল ফিতর উৎসবকে স্বাগত জানাতে। মুর্শিদাবাদের বিভিন্ন প্রান্তে স্টল করে বিক্রি শুরু হয়েছে লাচ্ছা। জেলার সামশেরগঞ্জ থানার ধূলিয়ান পুরসভার পাশেই বসেছে লাচ্ছার স্টল। পড়শি রাজ্য বিহারের ভাগলপুর থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন এলাকার লাচ্ছার সমাহার হয় এখানে। লাচ্ছা ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি বছরের মতো এবছরও আগেভাগেই আমরা লাচ্ছার স্টল দিয়েছি। সারাবছর নয়, রমজান মাসেই চলে সারা বছরের বিকিকিনি। িন্তু বর্তমানে তেল সহ অন্যান্য সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে লাচ্ছার দাম বেড়ে যাওয়ায় বাজার এবার তুলনামূলক মন্দা।বিক্রেতাদের কথা অনুযায়ী, আর সব কিছুর মতোই করোনার গ্রাসে পড়েছে এই ব্যবসাও। লাচ্ছার সাথে যুক্ত কারিগররা সাধারণত আসেন উত্তর প্রদেশ ও বিহার থেকে। লকডাউনের জেরে গত দু'বছর কারিগরের অমিলে লাচ্ছা কারখানা প্রায় বন্ধ হতে বসেছিল। যদিও এবছর সেই বিপদ কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে লাচ্ছার বাজার। জীবিকার টানে লাচ্ছা তৈরীর কারিগর এসেছেন ভিন রাজ্য থেকে। লাচ্ছা তৈরিও হয়েছে যথেষ্টই। কিন্তু দাম বেশি হওয়ায় এখনও পর্যন্ত বিকিকিনির বাজারে লাচ্ছার চাহিদা ছুঁতে পারেনি প্রত্যাশার সীমারেখা।

    প্রতিবেদক- কৌশিক অধিকারী/মুর্শিদাবাদKOUSHIK ADHIKARY /MURSHIDABAD

    First published:

    Tags: Murshidabad

    পরবর্তী খবর