Home /News /local-18 /
Murshidabad: ফের আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা উদ্ধার মুর্শিদাবাদে

Murshidabad: ফের আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা উদ্ধার মুর্শিদাবাদে

জলঙ্গীতে [object Object]

ফের আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা উদ্ধার মুর্শিদাবাদে                    

  • Share this:

    কৌশিক অধিকারীঃ বহরমপুরঃ গত চব্বিশ ঘণ্টায় মুর্শিদাবাদে ফের বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র ও তাজা বোমা উদ্ধার করা হল। আগ্নেয়াস্ত্রসহ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল হরিহরপাড়া থানার পুলিশ। এদিন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া থানার তরতিপুর ইজ্জতের মোড় এলাকায় তল্লাশি চালায় হরিহরপাড়া থানার আইসি অমিত নন্দী সহ অন্যান্য পুলিস আধিকারিকরা। তল্লাশি চালিয়ে ওই এলাকা থেকে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিস। তার কাছ থেকে একটি ওয়ান শটার পিস্তল ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতের নাম চাঁন্দু আনসারি, বাড়ি হরিহরপাড়ার তরতিপুর ইজ্জতের মোড় এলাকায় । পরে চাঁন্দু আনসারিকে গ্রেফতার করে শুক্রবার বহরমপুর জেলা আদালতে পেশ করা হয়। কী কারণে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে এলাকায় সে ঘোরাঘুরি করছিল ও কোথা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র এল তার কাছে তার তদন্ত শুরু করেছে হরিহরপাড়া থানার পুলিশ।

    অন্যদিকে ফরাক্কাতে শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের পাশ থেকেই উদ্ধার হয় তাজা বোমা। যার ফলে আতঙ্কিত ফরাক্কাবাসী। ব্যাগ ভর্তি বোমা সমেত বারুদ , বোমা তৈরির সরঞ্জাম ও মশলা উদ্ধার করেছে ফরাক্কা থানার পুলিশ। জানা যায়, মুর্শিদাবাদের ফরাক্কার হাজারপুর গ্রামে শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের পিছনে আম ও লিচু বাগান থেকে এগুলো উদ্ধার করে পুলিশ । পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ফরাক্কার হাজারপুর গ্রামের আম ও লিচু বাগানের মধ্যে তিনটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনটি ব্যাগের মধ্যে দুটি ব্যাগে বারুদ সমেত বোমা তৈরির সরঞ্জাম এবং একটি ব্যাগ ভর্তি বোমা পাওয়া যায়। খবর দেওয়া হয় বোম্ব স্কোয়ার্ডে। স্কোয়ার্ডের সদস্যরা এসে বোমাগুলি নিষ্ক্রিয় করে। এভাবে শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের পাশ থেকে বোমা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে ফরাক্কা থানার পুলিস।

    অন্যদিকে, জলঙ্গী থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ঘোষপাড়া অঞ্চলের তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্রসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ধৃত আব্দুল রাজজাক ওরফে মিন্টু (৩৪), আমানত সেখ (৪০), সোরিয়াত মণ্ডল (৩৪) সকলের বাড়িল জলঙ্গি থানা এলাকায়। ধৃতদের কাছে থেকে উদ্ধার হয়েছে সাত কেজি বিস্ফোরক পদার্থ, দুটি খালি ম্যাগাজিন,৯ টি আগ্নেয়াস্ত্র,১৮ রাউন্ড গুলি। ধৃত দের কে পুলিশ হেফাজতে রাখার আবেদন জানিয়ে তোলা হয়েছে আদালতে। সাগরদীঘিতে হাত বদলের আগেই উদ্ধার হয়েছে আগ্নেয়াস্ত্র। সাগরদিঘী থানার পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে মুনিগ্রামে ঈদগাহ মোড় বাসস্ট্যান্ড থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেফতার করে মোট তিনজনকে। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতের নাম সুখচাঁদ সেখ বাড়ি সাগরদিঘী থানার অন্তর্গত ফুলবাড়ি, আবুল কাসেম সেখ, বাড়ি লালগোলা থানা, হাকিম সেখ, বাড়ি সাগরদিঘী থানার অন্তর্গত দোগাছী সেখপাড়ায়। ধৃতদের কাছ থেকে তল্লাশি চালিয়ে একটি দেশী পিস্তল। একটি 7. 65এম এম পিস্তল । দুটি ম্যাগাজিন, সাত রাউন্ড 7.65 এম এম কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ। আগ্নেয়াস্ত্র গুলো সামশেরগঞ্জের ধুলিয়ান থেকে লালগোলা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল । হাত বদলের আগেই এই আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃতদের কে ১৪দিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার আবেদন জানিয়ে জঙ্গিপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে ।

    সাগরদিঘীর পাশাপাশি, বড়ঞা থানার পুলিশ ভবানীনগর গ্রাম থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করেছে একজনকে। ধৃতের নাম আজফার খান। ওরফে পল্টু, বাড়ি বড়ঞা থানার অন্তর্গত ভবানীনগর গ্রামে । ধৃতের বিরুদ্ধে ২৪ i aআর্মস অ্যাক্ট ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে । ভরতপুর থানার পুলিশ আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করেছে একজনকে। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতের নাম, দীপঙ্কর পাল ওরফে ভ্যাবলা। বাড়ি ভরতপুর থানার অন্তর্গত গুন্দুরিয়া গ্রামে। ধৃতের বিরুদ্ধে 25 (i) a আর্মস অ্যাক্ট ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে । ধৃতের কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যদিকে, বড়ঞাতে উদ্ধার হওয়া ৫টি তাজা বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

    First published:

    Tags: Farakka, Murshidabad

    পরবর্তী খবর