Home /News /local-18 /
Murshidabad: চাঁদে জমি কিনলেন জঙ্গিপুরের ব্যবসায়ী 

Murshidabad: চাঁদে জমি কিনলেন জঙ্গিপুরের ব্যবসায়ী 

নাসির সেখ চাঁদে জমি কেনার শংসাপত্র সহ 

নাসির সেখ চাঁদে জমি কেনার শংসাপত্র সহ 

চাঁদে জমি কিনলেন জঙ্গিপুরের ব্যবসায়ী 

  • Share this:

    মুর্শিদাবাদঃ প্ৰিয় মানুষকে চাঁদে (Moon) জমি উপহার দিয়েছেন অনেকেই। তবে এবার সম্পূর্ণ ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) জঙ্গিপুরের এক প্রমোটার জমি কিনলেন চাঁদে। এই কাণ্ড জানাজানি হতে জঙ্গিপুরের মানুষের বিস্ময় যেন কাটছে না। অনেকেই মজা করে বলছেন, তাহলে কি এবার চাঁদেই (Moon) প্রোমোটারি শুরু করবেন! এক একর জমি কেনেন জঙ্গিপুরের ব্যবসায়ী নাসির শেখ। বর্তমানে এক একর জমির জন্য রেজিস্ট্রি করেন তিনি। চাঁদে জমি কেনার শংসাপত্র পেয়েছেন বলেই দাবি করেছেন তিনি।

    প্ৰিয় মানুষকে চাঁদ (Moon) উপহার দেওয়ার কথা তো অনেকেই বলেন। গোটা চাঁদ এনে না দিতে পারলেও বউয়ের জন্য উপহার হিসেবে চাঁদে জমি কিনেছেন কয়েকজন। তবে ব্যবসায়িক স্বার্থে সম্পত্তি বানানোর জন্য এই প্রথম চাঁদে জমি কিনলেন জঙ্গিপুরের প্রমোটার। প্রমোটারির পাশাপাশি তিনি বিড়ির ব্যবসা করেন বলে জানা গিয়েছে। নাসির সাহেব বলেন, চাঁদে জমি সম্পূর্ণ ব্যবসায়ীক উদ্দেশ্যে কেনা। এখন কেউ চাঁদের জমি পাত্তা দিচ্ছে না, পরে এর দাম বাড়বে, তাই অল্প টাকায় এক একর কিনে রাখলাম। জমির দাম ও সমস্ত কাগজপত্র পাঠানোর ক্যুরিয়ার খরচ বাবদ ৮৫ মার্কিন ডলার খরচ হয়েছে। অর্থাৎ, মাত্র ৬৩৩০ টাকায় চাঁদে জমি কিনে নেওয়া যাচ্ছে, তাঁর এই দাবি শুনে অনেকেই অবাক।

    চাঁদের জমি কেনার কথা জানাজানি হতেই ইতিমধ্যে তাঁর কাছে বিভিন্ন মানুষ খোঁজ নিচ্ছেন, কীভাবে কেনা যাবে সেই জমি। লুনার রেজিস্ট্রির ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, চাঁদের বিভিন্ন জায়গার নামে জমি বিক্রি করা হচ্ছে। যেমন, লেক অফ হ্যাপিনেস, বে অফ রেইনবো, লেক অফ ড্রিমস, সি অফ রেইনস ইত্যাদি। এমন একটি নির্দিষ্ট জায়গা বেছে নিয়ে জমির পরিমাণ নির্ধারণ করতে হয়। তারপর সেই পরিমাণ অনুসারে দাম নির্ধারিত হয়। সেই দাম ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে মিটিয়ে দিলেই কাগজপত্র চলে আসে মেইলে। সেই কাগজের আসল কপি দিন কয়েক বাদে ক্যুরিয়ার মারফত পাঠানো হয়। প্রসঙ্গত, বেশ কিছু চক্র অনলাইনে চাঁদ এবং অন্যান্য গ্রহ-উপগ্রহের জমি বিক্রির নাম করে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে। চাঁদের জমি আদৌ বিক্রি করা যায় কিনা তা নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

    First published:

    Tags: Murshidabad

    পরবর্তী খবর