Home /News /local-18 /
Jalpaiguri- দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে সুকনা চাবাগানে হাজির স্টুডেন্ট সোসাইটি অফ শিলিগুড়ি

Jalpaiguri- দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে সুকনা চাবাগানে হাজির স্টুডেন্ট সোসাইটি অফ শিলিগুড়ি

চা বলয়ের এক শ্রমিকের সঙ্গে কথোপকথনে ডাক্তার

চা বলয়ের এক শ্রমিকের সঙ্গে কথোপকথনে ডাক্তার

নিজেদের মধ্যে আলোচনা তো আগে থেকে করা হয়েছিলই, আবার বাগান কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে সরাসরি বাগানের হাসপাতালেই হয়েছিল আয়োজন

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: ওরাও ছোট! কেউ স্কুলে পড়ে, কেউ আবার কলেজে। নিজেদের সামলানো ও স্বপ্ন গড়ার বয়সে, ছোট শিশু থেকে শুরু করে, আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া মানুষদের সাহায্য করাই হয়ে উঠেছে ওদের জীবনের মূলমন্ত্র! তাই সোজা পৌঁছে গিয়েছিল শিলিগুড়ির অদূরে সুকনা চা বাগানে। নিজেদের মধ্যে আলোচনা তো আগে থেকে করা হয়েছিলই, আবার বাগান কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে সরাসরি বাগানের হাসপাতালেই হয়েছিল আয়োজন।

    দুই বছর আগে ডিসেম্বর মাসের ৫ তারিখে, মাত্র চারজন মিলে শুরু হয়েছিল স্টুডেন্ট সোসাইটি অফ শিলিগুড়ি-র (student society of Siliguri) পথচলা। এই সংস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে প্রচুর প্রতিকূলতা পেরোতে হয়েছে এই যুবদের। এদিন স্টুডেন্ট সোসাইটি অফ শিলিগুড়ি (Student Society of Siliguri) তরফে সৌম্যদীপ রায় বলে, "আমরা প্রত্যেকেই ছাত্র-ছাত্রী। সকলকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া আমাদের উদ্দেশ্য। চা বাগানের ছেলেমেয়েরা এমনিতেই পিছিয়ে। তার উপর আবার অতিমারির প্রভাব। সবমিলিয়ে চা বাগানের দিকটা চোখের আড়াল হয়ে পড়ছে। তাই আমরা এদিন পৌঁছে যাই সুকনা চা বাগানে। সুকনা চা বাগানের হাসপাতালেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়। এরপর আমরা বিভিন্ন কর্মসূচি যেমন, স্যানিটারি প্যাড বিলি, পুরোনো শীতবস্ত্র বিতরণ, শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ ইত্যাদির আয়োজন করি।" সৌম্যদীপ আরও জানায়, এই কর্মসূচিতে ওদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল বাগান কর্তৃপক্ষ। এদিন চাবাগানের প্রায় শতাধিক শ্রমিককে বিভিন্ন সামগ্রী প্রদান করে স্টুডেন্টস সোসাইটি অফ শিলিগুড়ি। বাগানের ডেপুটি ম্যানেজার (deputy manager) পার্থপ্রতিম চক্রবর্তী বলেন, "ওরা আমাদের কাছে অনুমতি চাওয়ায় আমরা দিয়ে দিই। ওদের মধ্যে মানুষকে সাহায্য করা, এবং বাগানের মানুষের জীবন সামান্য উন্নত করার জেদ আমাদের ভালো লেগেছে। আগামিদিনে কোনও কর্মসূচি হলে আমরা পাশে থাকব অবশ্যই।" এদিন চাবাগানের শ্রমিক এবং শ্রমিকদের পরিবারের মুখে দেখা গেল তৃপ্তির হাসি। তাঁরাও যেন এমনি এক রবিবারের অপেক্ষায় ছিলেন। পরবর্তীতে মানুষের স্বার্থে নিজেদের সময় দেওয়ার অঙ্গীকার নিয়েছে যুবদের এই দল! Vaskar Chakraborty
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: Jalpaiguri, Siliguri, Student, Sukna tea garden, Tea Garden

    পরবর্তী খবর