Home /News /local-18 /
Mobile Game Addiction: মোবাইল গেম খেলতে বাধা পরিবারের, অভিমানে আত্মহত্যা ছাত্রের

Mobile Game Addiction: মোবাইল গেম খেলতে বাধা পরিবারের, অভিমানে আত্মহত্যা ছাত্রের

বর্তমান

বর্তমান যুগের এই মোবাইল ফোনে গেম সর্বনাশ ডেকে এনেছে

দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে

  • Share this:

    #জলপাইগুড়ি: বর্তমানে, বিশেষ করে এই করোনাকালে শিশুমনের বিকাশে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে মোবাইল ফোনে গেমের আসক্তি। নিত্যদিন প্রত্যেকটি বাড়িতেই এই এক সমস্যা দেখা গিয়েছে। মোবাইল ফোনে গেমের কারণে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে প্রত্যেক শিশু-কিশোর। মোবাইলে গেম খেলতে বাধা পেয়ে অভিমানে কিটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করল একাদশ শ্রেণির ছাত্র। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে মেখলিগঞ্জের ফুলকাডাবুরি গ্রামে৷ এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃত ছাত্রের পরিবারের দাবি, সরকারের উচিত মোবাইল গেমগুলিকে বন্ধ করে দেওয়া, তাহলে এই ধরনের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা এড়ানো যাবে৷ এদিন দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে।

    পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মেখলিগঞ্জের ফুলকাডাবুরি গ্রামের বাসিন্দা স্বর্নধর রায়ের ছেলে, একাদশ শ্রেণির ছাত্র সুব্রত রায় মোবাইল গেমে আসক্ত হয়ে পরেছিল। বারংবার ছেলেকে বোঝানোর পরেও পরিস্থিতি বদলায়নি। বাধ্য হয়ে বাবা স্বর্নধর রায় তার ছেলেকে মোবাইলে গেম খেলা নিয়ে বকাবকি করেন। এর পরেই বুধবার রাতে সুব্রত রায় অভিমানে নিজের বাড়িতেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরিবারের লোকেরা সুব্রতকে মেখলিগঞ্জ হাসপাতাল ভর্তি করে। অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় তাকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে রেফার করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে সেখানেই সুব্রতর মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে৷ এদিন দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে।

    First published:

    Tags: Jalpaiguri, Mobile Game

    পরবর্তী খবর