Home /News /local-18 /
Siliguri Elections: শিলিগুড়িতে করোনা সচেতনতা প্রচারেই ব্যস্ত রাজনৈতিক দলগুলি।

Siliguri Elections: শিলিগুড়িতে করোনা সচেতনতা প্রচারেই ব্যস্ত রাজনৈতিক দলগুলি।

শিলিগুড়ি মিউনিসিপাল কর্পোরেশন

শিলিগুড়ি মিউনিসিপাল কর্পোরেশন

বাড়ি গিয়ে স্যানিটাইজ (sanitize) করা থেকে মাস্ক বিতরণ করা, সবই করছেন তাঁরা। তাঁদের মতে, ভোটের জন্য নয়, মানুষের জন্য তাঁদের পাশে থাকার একটা চেষ্টা মাত্র।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: একদিকে যেমন ভোট, আরেকদিকে ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের গ্রাফ। প্রতিনিয়ত জেলায় ও শহরে সামনে আসছে একাধিক সংক্রমিতের খবর। যা উদ্বেগ ছড়িয়েছে বিভিন্ন মহলে। নানান আলোচনা ও বৈঠকের পর পুরভোটের দিনক্ষণ পিছোলেও প্রচারে খামতি রাখতে রাজি নয় কোনও রাজনৈতিক দল।

    নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী পুরভোটের দিন ঠিক করা হয়েছে ১২ ফেব্রুয়ারি (Siliguri Elections)। বাকি নেই আর একটা মাসও। তাই ভোট প্রচারে পিছিয়ে নেই দলগুলি। দেওয়াল লিখন থেকে বাড়ি বাড়ি নিজেদের কাজ তুলে ধরা, সবেতেই সামিল থাকছেন প্রার্থী এবং অন্যান্য নেতারা। শিলিগুড়িতেও এই ছবি একই। রাজনৈতিক দলগুলির সদস্যরা কেউ নামছেন সচেতনতামূলক প্রচারে, কেউ বা বিলি করছেন মাস্ক স্যানিটাইজার।

    বিভিন্ন মহলের ধারনা, সচেতনতা প্রচার রাজনৈতিক কৌশলের এক অংশ (Siliguri Elections)। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, নিজের শহরের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিজেদেরই। তাই এই সচেনতামূলক প্রচার। তাই ভোট পিছোলেও সচেতনতা যাতে থেমে না থাকে। প্রচারে গিয়ে প্রার্থীদের কেউ এলাকা স্যানিটাইজ করলেন। কেউ আবার পরিয়ে দিলেন মাস্ক। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রচারে নেমে প্রার্থীদের দেখা গেল এই রূপেই।

    দিনভর সমাজসেবামূলক কাজে ব্যস্ত থাকলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় রাজ্যে ঝড়ের গতিতে ছড়াচ্ছে করোনা। এই পরিস্থিতিতে হাইকোর্টের নির্দেশে পুরভোট পিছোতেই শিলিগুড়িতে প্রচার হয়ে উঠেছে করোনা কেন্দ্রিক।

    ১২ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি সহ চার পুরসভার ভোট (Siliguri Elections)। শনিবার নতুন করে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। এরপরেই স্যানিটাইজার নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘোরেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী শংকর ঘোষ। তাঁর সঙ্গে ছিলেন দলের ২৭ নম্বরের প্রার্থী রণবীর মজুমদার। তবে গেরুয়া শিবির এই কাজের সঙ্গে রাজনীতির রং মেশাতে নারাজ। শুধুমাত্র মানুষের স্বার্থেই এই কাজ, বলে জানান শংকর ঘোষ।

    ২০২০-র অতিমারির শুরুর থেকেই বিভিন্ন এলাকায় কাজ করে চলছে বামের রেড ভলান্টিয়ারস (red volunteers)। বিভিন্ন ওয়ার্ডে সংক্রমিতদের বাড়ি স্যানিটাইজ থেকে শুরু করে ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পে (vaccination camp) সহায়তা করেছে তারা। সবকিছুই করছে এই দল। তবে তারাও সমাজসেবার ভেতরে রাজনীতিকে টেনে আনতে নারাজ। শিলিগুড়ির প্রাক্তন মেয়র ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সিপিএম প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্য বলেন, "নির্বাচনে জেতা-হারার জন্য কাজ করি না। বিধানসভা ভোটে হেরে পরের দিন কাজে নেমেছি। সমাজসেবার সঙ্গে রাজনীতি মেশানো ভুল।" (Siliguri Elections)

    এদিকে তৃণমূলের প্রতুল চক্রবর্তী থেকে শুরু করে রঞ্জন সরকার, সকলেই মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। বাড়ি গিয়ে স্যানিটাইজ (sanitize) করা থেকে মাস্ক বিতরণ করা, সবই করছেন তাঁরা। তাঁদের মতে, ভোটের জন্য নয়, মানুষের জন্য তাঁদের পাশে থাকার একটা চেষ্টা মাত্র। Vaskar Chakraborty

    First published:

    Tags: Siliguri Municipal Election

    পরবর্তী খবর