Home /News /local-18 /
Jalpaiguri: রঙের উৎসবে বাজারে নতুন চমক 'মিউজিক মেশিন গান' পিচকারী!

Jalpaiguri: রঙের উৎসবে বাজারে নতুন চমক 'মিউজিক মেশিন গান' পিচকারী!

খুদে

খুদে বিক্রেতা

গত দুবছর করোনার কারণে হোলিতে রঙের বাজার ছিল মন্দা। এবছর করোনার প্রকোপ কম থাকায় আশার আলো দেখছেন রঙ ব্যবসায়ীরা

  • Share this:

    ভাস্কর চক্রবর্তী, জলপাইগুড়ি: দোরগোড়ায় দোল উৎসব। তারপর দিন রঙখেলার রীতি মানা‌হয় বঙ্গে। আর সেই হোলির বাজারে এবার রমরমা মিউজিক মেশিন গান পিচকারী। জলপাইগুড়িতে এবার দেদারে বিকোচ্ছে এই অত্যাধ্যুনিক মেশিন গান পিচকারী। ইতিমধ্যেই এই পিচকারীর চাহিদা তুঙ্গে। এই পিচকারীর পরখ করতেই দোকানে ভিড় জমাচ্ছে কচিকাঁচারা। এই পিচকারীর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে পিচকারীতে রঙ ভরলেই শুরু হয়ে যাবে হোলির নানান গান। এই বিশেষ পিচকারীর দাম ২২৫ টাকা থেকে শুরু হয়ে ৪০০ টাকা পর্যন্ত। গত দুবছর করোনার কারণে হোলিতে রঙের বাজার ছিল মন্দা। এবছর করোনার প্রকোপ কম থাকায় আশার আলো দেখছেন রঙ ব্যবসায়ীরা। জলপাইগুড়ি শহরের দিনবাজারের ব্যবসায়ী পবন কুমার আগারওয়ালের কথায়, এবছর জমে উঠবে হোলির বাজার। তার ওপর অত্যাধুনিক মিউজিক মেশিন গান পিচকারী নজর কাড়বেই কচিকাঁচাদের। গত দুবছরের তুলনায় এবার তাঁরা হোলিতে লাভের মুখ দেখবেন বলে আশাবাদী। এক বিক্রেতা জানান, এই পিচকারী টান দিলেই বের হবে মিউজিক (music)। হোলির দু তিন রকমের গান বাজবে। বাচ্চাদের মধ্যে এনিয়ে উৎসাহ দেখা গিয়েছে। এবার 'স্পেশাল' (special) এই পিচকারী বলে জানিয়েছেন দিনবাজারের বিক্রেতারা। ছোট থেকে বড় বিভিন্ন পিচকারী রয়েছে এবারের হোলির বাজারে। দুই বছর পর হোলি উৎসবে মন্দা কাটার আশায় রয়েছেন বিক্রেতারা। মুখোশও রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন রকমের। বিক্রি ভালো হচ্ছে বলেই জানিয়েছেন বিক্রেতারা। এই দুই বছরের মধ্যে এবার বাজার 'সুপারহিট' বলেই জানিয়েছেন বিক্রেতারা। আশার আলো দেখছেন রঙ ব্যবসায়ীরা। ভূতের মুখোশ থেকে জলভরা বেলুন, সবই পাওয়া যাচ্ছে দোকানগুলিতে।

    First published:

    Tags: Jalpaiguri

    পরবর্তী খবর