Home /News /local-18 /
Siliguri: ফের সাদা চাদরে মুড়ল শৈলরানী! বিদায় জানাতে নারাজ শীত

Siliguri: ফের সাদা চাদরে মুড়ল শৈলরানী! বিদায় জানাতে নারাজ শীত

পাহাড়

পাহাড় মুড়েছে সাদা চাদরে

শনিবার থেকে শুরু হয়ে সোমবার তুষারে ঢাকা সিকিম, দার্জিলিংয়ের একাধিক এলাকা বিশেষ করে উত্তর সিকিমের লাচুং, লাচেন এলাকা ছিল সাদা চাদরে ঢাকা। অন্যদিকে সান্দাকফু, ফালুট, বরফের নিচে চলে গিয়েছে। শনিবার থেকেই দার্জিলিং শহরেও সামান্য পরিমাণ তুষারপাত হয়েছে বলে খবর মিলে

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    শিলিগুড়ি ও দার্জিলিং: \"রাঙিয়ে দিয়ে যাও, যাও যাও গো এবার যাবার আগে...\" রবি ঠাকুরের গানের এই কথাই যেন সত্যি করতে ব্যস্ত প্রকৃতি। তবে শ্বেত-শুভ্র রঙে রাঙাতে! চলতি মরশুমে প্রকৃতি যেন ঢেলে দিয়েছে তাঁর শোভা প্রকৃতিপ্রেমীদের। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের পাহাড় এলাকায় লাগাতার তুষারপাত, রেকর্ড ভেঙেছে বিগত বহু বছরের। ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া তুষারপাতের ধারা গোটা জানুয়ারিতে অব্যাহত ছিল। ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে এখনও বিক্ষিপ্ত বিরতিতে তুষারপাত হয়ে চলেছে। শনিবার থেকে শুরু হয়ে সোমবার তুষারে ঢাকা সিকিম, দার্জিলিংয়ের একাধিক এলাকা বিশেষ করে উত্তর সিকিমের লাচুং, লাচেন এলাকা ছিল সাদা চাদরে ঢাকা। অন্যদিকে সান্দাকফু, ফালুট, বরফের নিচে চলে গিয়েছে। শনিবার থেকেই দার্জিলিং শহরেও সামান্য পরিমাণ তুষারপাত হয়েছে বলে খবর মিলেছে। যদিও পূর্বাভাস মতে নতুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে এই বসন্তেও তুষারপাতের সম্ভাবনা উস্কে উঠেছিল। শনিবার রাতে হঠাৎই তুষার কণার আছড়ে পড়ায় সেই সম্ভবনাকেই বাস্তবের রূপ দেয়। পাশাপাশি ছাঙ্গুতে এতটাই তুষারপাত হয় যে রবিবার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সিকিম আবহাওয়া দপ্তরের কেন্দ্রীয় অধিকর্তা গোপীনাথ রাহা জানান, একই পরিস্থিতি থাকবে সোমবারও। কয়েকটি এলাকায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বৃষ্টি ও তুষারপাতের জেরে পাহাড়ি অঞ্চলের দিনের তাপমাত্রা অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। আর এদিকে সমতলে যতই শীত চলে গিয়ে বসন্তের বাতাস বয়ে যাক না কেন; পাহাড়ে এখনও যে শীতের দাপট কমেনি তা এদিন ফের প্রমাণিত। সেইসঙ্গে হিমেল হাওয়া পর্যটকদের মন ভোলাতে ব্যস্ত। তাই দক্ষিণবঙ্গ থেকে অন্য রাজ্যে যারা পাহাড়ের এমন দৃশ্য দেখে অভ্যস্ত নন, তারা আচমকা ঘুরতে এসে আপ্লুত। আর পর্যটকদের খুশি দেখে, পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত লক্ষাধিক মানুষের মনেও জোর এসেছে। হাসি ফুটেছে গাড়িচালকদের থেকে হোটেল ব্যবসায়ী ট্যুর গাইড অপারেটরদের মুখেও। হিমালয়ান হসপিটালিটি অ্যান্ড ট্রাভেল ডেভলপমেন্ট নেটওয়ার্কের সম্পাদক সম্রাট সান্যাল জানিয়েছেন, তুষার আগাগোড়াই পর্যটনের জন্য 'শ্রী'। আর সেই তুষারকে 'প্রোমোট' করে পর্যটন চলছে জাঁকিয়ে। বিশেষ করে সিকিম এবং দার্জিলিংয়ের উঁচু এলাকায় এখনও তুষার রয়েছে। আর এমনিতেই বিগত কয়েক বছরের ট্রেন্ড মার্চেও বরফ পড়ছে পাহাড়ে। তাই সেই ধারা অব্যাহত থাকলে বিভিন্ন স্কুলের পরীক্ষার শেষে ফের আরও একবার ঝাঁপিয়ে পড়বেন পর্যটকরা বলে আশাবাদী সম্রাটবাবু। প্রতিবেদন - ভাস্কর চক্রবর্তী

    First published:

    Tags: Darjeeling, Jalpaiguri, Siliguri

    পরবর্তী খবর