Home /News /local-18 /
Alipurduar: তিনব্যাপী নাট্য উৎসবে মাতল ডুয়ার্স! উদ্বোধন করেন মোশারফ করিম

Alipurduar: তিনব্যাপী নাট্য উৎসবে মাতল ডুয়ার্স! উদ্বোধন করেন মোশারফ করিম

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

আলিপুরদুয়ার জেলার কামাখ্যাগুড়ির 'আওয়াজ' নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংস্থার উদ্যোগে কামাখ্যাগুড়ি হাইস্কুল প্রাঙ্গণে আয়োজিত হলো ৩ দিন

  • Share this:

    জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার: করোনা (Covid-19) অতিমারিতে ক্ষতিগ্রস্ত সাধারণ মানুষ। চারিদিকে নেগেটিভিটি (negativity) ছেয়ে গিয়েছে। এর মধ্যেই এই দমবন্ধকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে আয়োজন করা হল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আলিপুরদুয়ার (Alipurduar) জেলার কামাখ্যাগুড়ির 'আওয়াজ' নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংস্থার উদ্যোগে কামাখ্যাগুড়ি হাইস্কুল প্রাঙ্গণে আয়োজিত হলো ৩ দিনব্যাপী নাট্য উৎসব।

    এই নাট্য উৎসবের উদ্বোধন করেন এপার বাংলা এবং ওপার বাংলা তথা সমগ্র বিশ্বের আপামর বাঙালির মন জয় করা নাট্য ব্যক্তিত্ব মোশারফ করিম। তিনি তাঁর উদ্বোধনী বক্তব্যে উল্লেখ করেছেন, 'কামাখ্যাগুড়ি আওয়াজ সাংস্কৃতিক ও নাট্য সংস্থা যেভাবে নাট্য উৎসব পরিচালনা করছেন তা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য।' বাংলাদেশের নাটক যাদের প্রিয়, তাঁরা মোশারফ করিমের মতো নাট্য ব্যক্তিত্বকে চিনবেন। স্থানীয়দের উৎসাহ এবং উদ্দীপনা ছিল দেখার মতো। উৎসবের প্রথম দিন প্রথম নাটক ছিল বালিগঞ্জ ব্রাত্যজন প্রযোজিত বিজয় মুখোপাধ্যায় নিবেদিত 'অপত্য'। পিতার কর্তব্য পালন নিয়ে পরিস্ফুট হয়েছে এই নাটকে।

    প্রথম দিনের দ্বিতীয় প্রদর্শন ছিল কলকাতা বরানগর ভূমিসূত থিয়েটারের নাটক 'উজান পারী' নির্দেশনায় সমাদৃতা পাল (সেনগুপ্ত)। দ্বিতীয় দিনে তিনটি নাটক প্রদর্শিত হয়েছে। প্রথম প্রদর্শন ছিল কোচবিহারের বর্ননা নাট্য গোষ্ঠীর 'লেনদেন', নির্দেশনায় ছিলেন বিদ্যুৎ পাল। দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় নাটক হাওড়া সৃষ্টি সালকিয়ার 'ভগবানও ভুল করে'। রচনা এবং নির্দেশনায় ছিলেন হরপ্রসাদ চক্রবর্তী। অত্যন্ত বাস্তব পরিস্থিতিকে জীবন্ত করে তুলেছেন এই নাটকের কুশীলবরা। সকল দর্শকদের হৃদয়ে হাসির বন্যা ছুটেছে। অসুরের কাহিল অবস্থা এবং বিধাতার করুণ অবস্থা দর্শক মনকে আকৃষ্ট করেছে।

    দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় প্রদর্শন ছিল অশোকনগর নাট্য মুখ প্রযোজিত ও হেনরির কাহিনি অবলম্বনে রচিত অভি চক্রবর্তী নির্দেশিত নাটক 'টু সোলস'। উৎসবের তৃতীয় দিন অর্থাৎ শেষ দিন প্রথম নাটক ছিল জলপাইগুড়ি মুক্তাঙ্গন নাট্য গোষ্ঠী প্রযোজিত অর্নব মুখোপাধ্যায় রচিত কোচ রাজবংশী লোক বিশ্বাস ধর্মীয় নাটক 'দ্রোহ'। এই নাটকের নির্দেশনায় ছিলেন কামাখ্যাগুড়ির ভূমিকন্যা রীনা ভারতী। সকলের সমবেত অভিনয় , ভালো নির্দেশনা, মঞ্চ পরিকল্পনা, সঙ্গীতের প্রয়োগ নাটকটি প্রাণবন্ত করে তোলে। নাট্য উৎসবের শেষ নাটক ছিল জলপাইগুড়ি কলাকুশলী প্রযোজিত তমজিৎট রায় রচিত নির্দেশিত নাটক 'গনশা রে'। এই নাটকটি সুনিপুণ নির্দেশনা, অভিনয় এবং সঙ্গীতের প্রয়োগ দর্শক মনে সারা ফেলেছে। গনশা এবং তার বন্ধুর চরিত্রে দুই শিশু শিল্পীর সাবলিল অভিনয় দর্শকদের প্রসংশা কুড়োয়।

    যথাযথ কোভিডবিধি মেনে নিয়মিতভাবে মঞ্চ, দর্শকাসন, গ্রিনরুমে সময়ে সময়ে স্যানিটাইজ করা হয়েছে। প্রত্যেক দর্শককে আসনে প্রবেশের আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয়। এই উৎসবের আয়োজকদের প্রশংসা করেছেন আলিপুরদুয়ারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অম্লান ঘোষ এবং কুমারগ্রামের বিডিও মিহির কর্মকার। এই অতিমারি পরিস্থিতিতে সংস্কৃতিকে ধরে রেখে সুন্দর চিন্তাধারা ছড়ানোর প্রশংসা করেছে সকলেই। Vaskar Chakraborty

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Alipurduar, Jalpaiguri

    পরবর্তী খবর