• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • Coronavirus| Dengue|| করোনার দোসর এ বারে ডেঙ্গু! প্রতিরোধে বিশেষ উদ্যোগ উদ্বিগ্ন প্রশাসনের কর্তাদের

Coronavirus| Dengue|| করোনার দোসর এ বারে ডেঙ্গু! প্রতিরোধে বিশেষ উদ্যোগ উদ্বিগ্ন প্রশাসনের কর্তাদের

ডেঙ্গুকে রুখতে বৈঠক বিধাননগর পৌরনিগমে।

ডেঙ্গুকে রুখতে বৈঠক বিধাননগর পৌরনিগমে।

দেঙ্এগুএ preventing measures: কটি র‍্যাপিড একশন টিম তৈরি করা হয়েছে। সেই টিমে ব্যরোর যে অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার যিনি দায়িত্বে আছে তার সঙ্গে সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার থাকবেন। এ ছাড়াও থাকবে হেলথ ডিপার্টমেন্টের থেকে তিনজন। 

  • Share this:

    #বিধাননগর: করোনার পাশাপাশি এবার ডেঙ্গু নিয়ে সতর্ক প্রশাসন। জেলায় ডেঙ্গুর প্রভাবে আক্রান্ত হয়েছে বহু মানুষের। তাদের কথা মাথায় রেখে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে নেওয়া হচ্ছে বিশেষ উদ্যোগ। বিধাননগর পৌর নিগম এলাকায় ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রশাসন। আর সেই কারণেই তড়িঘড়ি বৈঠক হল বিধাননগর পৌর নিগমের। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিধাননগর পৌর নিগমের ১০ নাম্বার ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর প্রণয় রায়, পৌর কমিশনার।

    বিধাননগর পৌর নিগমের ৪১টি ওয়ার্ডের ওয়ার্ড আসিস্টেন্ট ও সুপারভাইজার প্রমুখেরা। অক্টোবর মাস থেকে গতকাল পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৫ জনের মত হয়েছে। এই মুহূর্তে একটিভ ২০/২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে একজনের। ৪১ টি ওয়ার্ডের মধ্যে যে ওয়ার্ড গুলিতে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেশি দেখা যাচ্ছে সেই ওয়ার্ড গুলিতে বিশেষ নজর দিচ্ছে পৌর প্রশাসন। একটি র‍্যাপিড অ্যাকশন টিম তৈরি করা হয়েছে। সেই টিমে বরোর যে অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার যিনি দায়িত্বে আছে তার সঙ্গে সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার থাকবেন। এ ছাড়াও থাকবে হেলথ ডিপার্টমেন্টের থেকে তিনজন। তারা নিজের নিজের ওয়ার্ডের কোন অঞ্চলে প্রকোপ বেশি মনে হচ্ছে, কোথায় নর্দমার সমস্যা আছে বা ঝোপ-জঙ্গল আছে সেটা বা লার্ভা বেশি পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলি তারা একটা তালিকা করবেন। সেই তালিকা ধরে সেই সেই ওয়ার্ডের র‍্যাপিড অ্যাকশন টিম তাদের সাহায্য নিয়ে সেই সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করবেন।

    বিধাননগর পৌর নিগমের মধ্যে ছ'টি ব্যরো আছে। সেই ব্যরোতে ছ'টি র‍্যাপিড অ্যাকশন টিম তৈরি করা হয়েছে। বহু বাড়ি ও আবাসনে ঢোকার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয় সেক্ষেত্রে সেখানে সংশ্লিস্ট যিনি ওয়ার্ড কো-অর্ডিনেটর আছেন তাদের কাছে এবং পৌর নিগমের তরফ থেকে একটা চিঠি করা হচ্ছে সেটা সবার হাতে তুলে দেওয়া হবে। যেখানে লেখা থাকবে এটা পৌর নিগমের সিদ্ধান্ত। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা এসেছি আপনার বাড়ির মধ্যে কোথাও জল জমে আছে কিনা সেটা দেখার জন্য। সেটা দেখে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গুরুত্ব দিয়ে প্রচার এর নামতে হবে কো-অর্ডিনেটরদের। জাতি কোথাও জঞ্জাল জমা জল যেন না থাকে সেদিকে ও রাখতে হবে নজর। সরকারি নির্দেশিকা পালন করলেই এর থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে বলে আশা চিকিৎসক মহলের।

    রাতুল ব্যানার্জি

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: