Home /News /local-18 /
Swastha sathi card: হাসপাতালে বসেই পেলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, অসময়ে সুরাহা সরকারি প্রকল্প

Swastha sathi card: হাসপাতালে বসেই পেলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, অসময়ে সুরাহা সরকারি প্রকল্প

হাসপাতালে বসেই পেলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, অসময়ে সুরাহা হয়ে দাঁড়ালো প্রকল্প

হাসপাতালে বসেই পেলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, অসময়ে সুরাহা হয়ে দাঁড়ালো প্রকল্প

Swastha sathi card: বুধবার নজির তৈরি হলো রামপুরহাটে।

  • Share this:

    #বীরভূম : রাজ্য সরকারের তরফ থেকে রাজ্যের প্রতিটি নাগরিকদের জন্য স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প (Swastha sathi card) চালু করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত অনেকেই রয়েছেন যারা এই প্রকল্পের আওতায় নিজেদের নাম নথিভুক্ত করাননি অথবা আবেদন করেও এখনো হাতে কার্ড পাননি। এমনই একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার নজির তৈরি হলো রামপুরহাটে।

    বীরভূমের রামপুরহাট শহরের নয় নম্বর ওয়ার্ডের ব্রাহ্মণী গ্রামের বাসিন্দা বাবলু মন্ডল (Swastha sathi card)তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রী আরতী কোনাই মন্ডলকে রামপুরহাট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রসূতি বিভাগে ভর্তি করেন। তবে সন্তান জন্ম দেওয়ার আগে ওই প্রসূতির বেশ কিছু সমস্যা লক্ষ্য করা যায় এবং জটিল অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়ে পড়ে।

    অন্যদিকে ওই সন্তান-সম্ভবা প্রসূতি আগেই দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য আবেদন করেছিলেন(Swastha sathi card)। কিন্তু সেই কার্ড তিনি হাতে পাননি। এমন পরিস্থিতিতে যখন হাসপাতালে চিকিৎসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়লে রামপুরহাট পৌরসভার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড প্রস্তুতকারী কর্মীরা হাসপাতলে পৌঁছে ওই প্রসূতির স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করে দিলেন। ইতিমধ্যেই ওই প্রসূতি ফুটফুটে এক সন্তানের জন্ম দিয়েছেন।

    পৌরসভার কর্মী ডালটন চ্যাটার্জী জানিয়েছেন, "বাবলু মন্ডল নামে এক ব্যক্তি দুপুরবেলা এসে জানান তার স্ত্রী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তাদের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড (Swastha sathi card) দরকার। এইটা শুনে আমরা সিদ্ধান্ত নিই হাসপাতলে এসেই তাদের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড কবে দেওয়া হবে। যাতে করে সমস্ত রকম চিকিৎসা সুবিধা পান। কথামত আমরা সন্ধ্যা বেলায় এসে ওই পরিবারের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করে দিলাম।"

    উপভোক্তা আরতী কোনাই মন্ডল জানিয়েছেন, "সন্তান প্রসবের সময় সমস্যা তৈরি হয়েছিল। তারপর অস্ত্রোপচার করা হয়। এরপর পৌরসভার কর্মীরা হাসপাতলে এসেই আমাদের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড (Swastha sathi card) করে দিলেন। হাসপাতালে বসে এইভাবে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড পাবো ভাবতে পারিনি। পৌরসভার এই পদক্ষেপ প্রশংসনীয়।"

    মাধব দাস

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Birbhum, Rampurhat, Swasthya sathi card

    পরবর্তী খবর