• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • Birbhum: বিয়ের ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে উল্টো স্রোতে হেঁটে নজির সিনহা পরিবারের

Birbhum: বিয়ের ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে উল্টো স্রোতে হেঁটে নজির সিনহা পরিবারের

বিয়ের ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে উল্টো স্রোতে হেঁটে নজির বীরভূমের সিনহা পরিবারের

বিয়ের ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে উল্টো স্রোতে হেঁটে নজির বীরভূমের সিনহা পরিবারের

ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে উল্টো স্রোতের উদাহরণ তৈরি করে নজির গড়লেন বীরভূমের সিউড়ির সিনহা পরিবার।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : বিয়ে (marriage) মানে কেবলমাত্র রীতিনীতি মেনে একটি সামাজিক অনুষ্ঠান সেরে ফেলা, এমনটা নয়। বিয়ে মানে হলো একজনের সঙ্গে অন্যজনের মেলবন্ধন, এক পরিবারের সঙ্গে অন্য পরিবারের মেলবন্ধন। এই মেলবন্ধন অনুষ্ঠানে রয়েছে বিভিন্ন রীতিনীতি। সেই সকল রীতিনীতির মধ্যে যেমন রয়েছে শুভদৃষ্টি, সিঁদুর দান, কনকাঞ্জলি, ঠিক তেমনি রয়েছে ভাত-কাপড় অনুষ্ঠান। এই ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে উল্টো স্রোতের উদাহরণ তৈরি করে নজির গড়লেন বীরভূমের (Birbhum) সিউড়ির (Suri) সিনহা পরিবার।

    গত ২১ নভেম্বর বীরভূমের (Birbhum) সিউড়ির (Suri) ইন্দিরাপল্লীর অর্কপ্রভ সিনহার সঙ্গে বিয়ে হয় সিউড়ির ডাঙ্গালপাড়ার অর্চিতা সিনহার। বিয়ের পর রীতি মেনে ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে চিরাচরিত রীতি মেনে নববধূর হাতে থালা ভর্তি রান্না করা ভাত এবং কাপড় তুলে দিয়ে তার স্বামী অঙ্গীকার করেন 'ভাত কাপড়ের দায়িত্ব নেওয়ার'।কিন্তু এই সিনহা পরিবারের সদস্যরা মনে করেছেন, কেবলমাত্র একজনের দায়িত্বে একটা সংসার চলতে পারে না। একটা সংসার চালানোর জন্য দুজনেরই গুরু দায়িত্ব থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এই সিনহা পরিবারের অর্কপ্রভ সিনহার মা পাপিয়া বর্মন, বাবা চন্দন কুমার সিনহা এবং ঠাকুমা ৮২ বছর বয়সী গিতারানী সিনহা নতুন কিছু দৃষ্টান্ত স্থাপন করার সিদ্ধান্ত নেন।

    পাপিয়া বর্মন জানিয়েছেন, "একজন তো আর কারোর ভাত কাপড়ের দায়িত্ব নিতে পারে না। আর এখনকার মেয়েরা কেন কারোর দায়িত্বে থাকবে? আবার মেয়েরা চাকরি করুক বা না করুক তারাই কিন্তু রান্না করে এবং সংসারের দায়িত্ব নেয়। পাশাপাশি অর্থটাই কিন্তু সংসারের সব কিছু নয়। যে কারণে আমরা ভেবেছিলাম একটা সংসার শুরু হতে গেলে কোন ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের দায়িত্ব থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আমাদের পরিবারের সকলের সম্মতিক্রমে এই ভাত-কাপড় অনুষ্ঠানে আমার ছেলে যেমন আমার বৌমার হাতে ভাত, কাপড়, উপহার তুলে দিয়েছে, ঠিক তেমনি আমাদের বৌমাও একইভাবে আমার ছেলের হাতে ভাত, কাপড় এবং উপহার স্বরূপ একটি টেথোস্কোপ তুলে দিয়েছে।"

    নববধূ অর্চিতা সিনহার তার স্বামী অর্কপ্রভ সিনহার হাতে উপহার স্বরূপ টেথোস্কোপ তুলে দেওয়ার কারণ হলো অর্কপ্রভ পেশায় একজন চিকিৎসক (Doctor)। তিনি বর্তমানে পাটনার এইমস-এর চিকিৎসক। অন্যদিকে নববধূ অর্চিতা সিনহা কলকাতার মাতৃভবনের একজন প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর। তাদের দুজনের এই বিয়ের অনুষ্ঠানে এমন চিরাচরিত স্রোতের বাইরে নতুন কিছু করে দেখানোর যে দৃষ্টান্ত তৈরি হয়েছে তা এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published: