Home /News /local-18 /
Birbhum: 'রাজ্যের উত্তর না মেলায় আয়োজন হয়নি পৌষমেলার', জানালেন বিদ্যুৎ চক্রবর্তী

Birbhum: 'রাজ্যের উত্তর না মেলায় আয়োজন হয়নি পৌষমেলার', জানালেন বিদ্যুৎ চক্রবর্তী

পৌষ উৎসব ২০২১

পৌষ উৎসব ২০২১

চলতি বছর পৌষ মেলা না হলেও রীতি মেনে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ বিশ্বভারতীতে শুরু করলো পৌষ উৎসব। এই পৌষ উৎসবের সূচনা পর্বেই উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী এই বছর পৌষ মেলার আয়োজন কেন করা হলো না তা নিয়ে মুখ খুললেন।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : চলতি বছর পৌষ মেলা না হলেও রীতি মেনে বিশ্বভারতী (Vishwabharati) কর্তৃপক্ষ বিশ্বভারতীতে (Vishwabharati) শুরু করলো পৌষ উৎসব। এই পৌষ উৎসবের সূচনা পর্বেই উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী এই বছর পৌষ মেলার আয়োজন কেন করা হলো না তা নিয়ে মুখ খুললেন। কারণ জানাতে গিয়ে তিনি পরোক্ষভাবে রাজ্য সরকারকে (State Government) দায়ী করলেন।

    গতবছর করোনা সংক্রমণ মাত্রাতিরিক্ত থাকার কারণে আয়োজন করা হয়নি পৌষ মেলার। এমত অবস্থায় চলতি বছর ছোট করে হলেও পৌষ মেলার আয়োজন নিয়ে বোলপুর (Bolpur) শান্তিনিকেতনের (Shantiniketan) বাসিন্দাদের মধ্যে আশা ছিল। কিন্তু সেই আশা ভঙ্গ হয় যখন দেখা যায় মেলার মাঠে বিশ্বভারতী (Vishwabharati) কর্তৃপক্ষ পৌষ মেলার আয়োজন করছে না। তবে বিকল্প মেলা হিসাবে বোলপুর (Bolpur) ডাকবাংলো মাঠে বাংলা সংস্কৃতি মঞ্চ এবং বোলপুরের (Bolpur) ব্যবসায়ী সমিতির সদস্যরা একটি মেলার আয়োজন করেছে।

    ৭ পৌষ বৃহস্পতিবার ছাতিমতলায় উপাসনার সময় উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী জানান, মেলার আয়োজন করতে না পারার কারণে সবার মন ভারাক্রান্ত। তিনি বলেন, "পৌষ মেলার আয়োজন করতে পারলাম না। যে কারণে আপনাদের মত বিশ্বভারতীর সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকের মন ভারাক্রান্ত। আজ ফাঁকা মাঠ দেখে আমার চোখের জল বেরিয়ে এসেছে। এর জন্য কাউকে দায়ী করছি না। করোনা এবং ওমিক্রনের বাড়াবাড়ির জন্য মেলা করাটা কতটা যুক্তিসঙ্গত সে নিয়েও ব্যাখ্যায় নাইবা গেলাম।"

    এর পরেই তিনি মেলার আয়োজন কেন করা হলো না তা নিয়ে স্পষ্টত জানান, "মেলার আয়োজন করার জন্য আমরা প্রথম থেকেই চেষ্টা করেছিলাম। পৌষ মেলা করার জন্য আমরা অক্টোবর মাস থেকে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। সেই জন্য আমরা কেন্দ্রকে যখন চিঠি লিখি তখন তারা জানান, রাজ্য সরকারকে চিঠি করার জন্য। কেন্দ্র বলে, কোভিড প্রটোকল ঠিক করতে হবে লোকাল কন্ডিশন অনুযায়ী। এরপর আমরা রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিবকে চিঠি করে জানতে চাই বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে কি করা উচিত তা জানার জন্য। অক্টোবরের গোড়াতে করা সেই চিঠির উত্তর পেতে আমরা তিনবার রিমাইন্ডার দিই। কিন্তু সেই চিঠির উত্তর আমরা আজও পাইনি।" এই চিঠির উত্তর না পেয়েই মেলার আয়োজন করা হয়নি বলে দাবি করেছেন উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। তিনি দাবি করেছেন, "এমন পরিস্থিতিতে পৌষ মেলা করাটা কতটা যুক্তিযুক্ত সেই সম্পর্কে আমরা খুব চিন্তায় পড়ে যাই। তাই শেষ মুহূর্তে ঠিক করলাম, পৌষ মেলা বোধহয় এবার আমরা আর করতে পারলাম না।"

    First published:

    Tags: Birbhum, Bolpur, Shantiniketan

    পরবর্তী খবর