Home /News /local-18 /
Birbhum News- স্কুল খোলা ও পড়ুয়াদের দ্রুত টিকাকরণের দাবিতে আন্দোলন এআইডিএসও-র।

Birbhum News- স্কুল খোলা ও পড়ুয়াদের দ্রুত টিকাকরণের দাবিতে আন্দোলন এআইডিএসও-র।

স্কুল খোলা, পড়ুয়াদের দ্রুত ভ্যাকসিনেশনের দাবিতে আন্দোলনে এআইডিএসও

স্কুল খোলা, পড়ুয়াদের দ্রুত ভ্যাকসিনেশনের দাবিতে আন্দোলনে এআইডিএসও

বন্ধ হয়ে যাওয়া এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি পুনরায় খোলার দাবিতে আন্দোলন শুরু করল এআইডিএসও।

  • Share this:

    #বীরভূম : প্রায় দু'বছর হতে চলল দেশে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার। আর এই করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষা ব্যবস্থা। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বারংবার স্কুল খোলার প্রচেষ্টা চালানো হলেও সেই প্রচেষ্টা ধাক্কা খাচ্ছে। দীর্ঘদিন স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর গত বছর নভেম্বর মাসের ১৬ তারিখ পুনরায় খোলে স্কুল-কলেজের দরজা (Birbhum News)। তবে এই পথ চলা মাত্র দেড় মাসের মধ্যেই ধাক্কা খায়। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায়, পুনরায় রাজ্য সরকার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেয়। তবে বন্ধ হয়ে যাওয়া এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি পুনরায় খোলার দাবিতে আন্দোলন শুরু করল এআইডিএসও।

    পুনরায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে শুক্রবার এআইডিএসও-র পক্ষ থেকে বীরভূমের প্রতিটি মহকুমার বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখানো হয় (Birbhum News)। বিক্ষোভরত এই ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা এইদিন অন্যান্য জায়গার পাশাপাশি সদর শহর সিউড়িতেও বিক্ষোভ দেখান। সিউড়ির বাসস্ট্যান্ড পেট্রোল পাম্পের কাছে বিক্ষোভে সামিল হন তারা। দীর্ঘক্ষন ধরে বিক্ষোভ দেখিয়ে তারা তাদের দাবি-দাওয়া তুলে ধরেন।

    বিক্ষোভরত এই ছাত্র সংগঠনের সদস্যদের দাবি, করোনাকালে সবচেয়ে বেশি আঘাত যার উপর এসে পড়েছে তা হলো শিক্ষা ব্যবস্থা। বর্তমান রাজ্য সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী মেলা, খেলা, দোকানপাট, শপিংমল সব কিছু খোলা থাকলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার আলো থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন নিম্নবিত্ত পরিবারের পড়ুয়ারা (Birbhum News)। তাই অবিলম্বে সরকার যেন এই দিকে নজর দেন তা আলোকপাত করার জন্যই তাদের এদিনের এই বিক্ষোভ।

    এআইডিএসও ছাত্র সংগঠনের সিউড়ি লোকাল কমিটির সেক্রেটারি শুভময় দে জানিয়েছেন, "এদিন আমাদের এই বিক্ষোভ দেখানোর মূলে যে সকল দাবিদাওয়াগুলি রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হলো পুনরায় অফলাইন ক্লাস শুরু করা এবং পড়ুয়াদের যে ভ্যাকসিনেশন কর্মসূচি চলছে তা দ্রুত শেষ করা। অফলাইন ক্লাস শুরু না হলে নিম্নবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের পড়ুয়ারা দিন দিন পিছিয়ে পড়ছে।"

    Kaushik Adhikary 

    First published:

    Tags: Birbhum, School reopen, Siuri

    পরবর্তী খবর