Home /News /local-18 /
Birbhum: এই নিয়ে কতবার হচ্ছে না ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা!

Birbhum: এই নিয়ে কতবার হচ্ছে না ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা!

শান্তিনিকেতনে এই নিয়ে কতবার হচ্ছে না ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা?

শান্তিনিকেতনে এই নিয়ে কতবার হচ্ছে না ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা?

বোলপুর শান্তিনিকেতনের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে রয়েছে রবীন্দ্র ঐতিহ্য। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় যার খ্যাতি বিশ্বজুড়ে সেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিবছর ৭ পৌষ আয়োজন করে থাকে পৌষ মেলার।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : বোলপুর শান্তিনিকেতনের (Shantiniketan) সঙ্গে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে রয়েছে রবীন্দ্র ঐতিহ্য। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় (Vishwabharati) যার খ্যাতি বিশ্বজুড়ে সেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিবছর ৭ পৌষ আয়োজন করে থাকে পৌষ মেলার। তবে গতবছর করোনা সংক্রমণের কারণে এই মেলার আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। এই বছর সংক্রমণ কিছুটা কম থাকায় মেলা নিয়ে আশার আলো তৈরি হলেও বিশ্বভারতী  (Vishwabharati) কর্তৃপক্ষ এখনো পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানায়নি।

    অপরদিকে শান্তিনিকেতনের (Shantiniketan) পূর্বপল্লীর মাঠে পৌষ মেলার আয়োজন নিয়ে বিশ্বভারতী (Vishwabharati) কর্তৃপক্ষ যখন কোন টুঁ-শব্দ করছে না সেই সময় একটি বিকল্প মেলার আয়োজন হচ্ছে বোলপুর ডাকবাংলো মাঠে। হাতে মাত্র কয়েকটা দিন, সেই মোতাবেক ওই মাঠে ইতিমধ্যেই মেলার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ এখনো মেলা নিয়ে কোন কথা না বললেও মোটামুটি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে এই বছর পৌষ মেলা হবে না। এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্রশ্ন উঠছে, এই মেলা শুরু হওয়ার পর এখনো পর্যন্ত কতবার বন্ধ থাকল পৌষ মেলার আয়োজন? এই বছর মেলা না হলে পরপর দু'বছর বন্ধ থাকছে পৌষ মেলা। তবে এর আগেও দু'বার বন্ধ রাখতে হয়েছিল এই ঐতিহ্যবাহী মেলাকে। সেই হিসাবে পৌষ মেলা শুরু হওয়ার পর থেকে এখনো পর্যন্ত চারবার বন্ধ হতে চলেছে এই মেলা।

    ১৮৪৩ খ্রিস্টাব্দের ২১ ডিসেম্বর, বাংলার ৭ পৌষ মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর রামচন্দ্র বিদ্যাবাগীশের থেকে ব্রহ্ম ধর্মে দীক্ষিত হয়েছিলেন। এরপর এই ধর্মকে প্রচার এবং প্রসার করার জন্যে ১৮৪৫ খ্রিস্টাব্দে কলকাতার গোরিটির বাগানে উপাসনা ও ব্রহ্ম মন্ত্রপাঠের আয়োজন করা হয়। এই উৎসব পৌষ উৎসব এবং পৌষ মেলার সূচনা হিসেবে ধরা হয়ে থাকে।পরবর্তীকালে দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর শান্তিনিকেতনে আশ্রম তৈরি করার চিন্তাভাবনা করেন এবং সেই চিন্তা ভাবনা থেকে ১৮৯১ সালে শান্তিনিকেতনে উপাসনা গৃহ প্রতিষ্ঠা করেন। এই সময়ই কালকেই শান্তিনিকেতনে পৌষ উৎসবের সূচনা ধরা হয়ে থাকে। পৌষ উৎসবের পাশাপাশি ১৮৯৪ খ্রিস্টাব্দে মন্দির সংলগ্ন এলাকায় শুরু হয় ছোট করে মেলা।

    এরপর থেকেই যথারীতি নিয়ম মেনে এই উৎসব এবং মেলার আয়োজন করা হয়ে আসছে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবছর প্রয়াত হন অর্থাৎ ১৯৪১ খ্রিস্টাব্দে, সেই বছরও মেলার আয়োজন করা হয়েছিল, তবে তা ছিল প্রাণহীন। তবে এরপর ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দে এবং ১৯৪৬ খ্রিস্টাব্দে দু'বছর বন্ধ থাকে মেলার আয়োজন। প্রথমবার দুর্ভিক্ষ এবং দ্বিতীয়বার মেলা বন্ধ রাখা হয় সাম্প্রদায়িক অশান্তির কারণে।

    First published:

    Tags: Birbhum, Bolpur, Shantiniketan

    পরবর্তী খবর