Home /News /local-18 /
Birbhum News: আজ খুশির ইদ, কিন্তু চোখে জল বগটুইয়ের স্বজনহারাদের

Birbhum News: আজ খুশির ইদ, কিন্তু চোখে জল বগটুইয়ের স্বজনহারাদের

স্বজনহারাদের

স্বজনহারাদের কান্না

বগটুই গ্রামে গত মার্চ মাসে ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন৷ তাই অন্যান্য বছরের মত জলসা ও অন্যান্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে৷ দুঃখ নিয়ে কেবলমাত্র রীতি এবং ছোটদের কথা মাথায় রেখেই তারা এই বছর ইদ পালন করছেন বলে জানিয়েছেন

  • Share this:

    #বীরভূমরামপুরহাট থানার অন্তর্গত বগটুই গ্রাম এখন প্রত্যেকের কাছে পরিচিত। এই গ্রাম রাতারাতি পরিচিতি লাভ করেছে কোনও ভাল কাজের জন্য নয়, বরং নৃশংস হত্যাকাণ্ডের কারণে। গত মার্চ মাসের ২১ তারিখ রাতে এই গ্রামে দুষ্কৃতীদের বোমার আঘাতে নিহত হন বরশাল গ্রামের উপপ্রধান ভাদু শেখ। তারপর ওই রাতেই এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড চলে বগটুই গ্রামে।

    অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে মুহুর্মুহু বোমাবাজির পাশাপাশি চলে একের পর এক বাড়িতে অগ্নিসংযোগ। আর সেই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় আটজনের। আহতদের মধ্যে হাসপাতালে মৃত্যু হয় একজনের এবং ৪০ দিন পর মৃত্যু হয় আরও একজনের। এক রাতেই উপ-প্রধান সহ মৃত্যু হয় একই গ্রামের মোট ১১ জনের। ফলে এবারের খুশির ইদে বগটুইয়ের স্বজনহারাদের চোখে দেখা গেল জল৷

    অন্যান্য বছর ইদ উপলক্ষে এই গ্রামে নিকটবর্তী ইদগাঁহ ময়দানে ঘটা করে নামাজের আয়োজন করা হয়। তবে এই বছর রীতি মেনে সেই আয়োজন হলেও তাদের চোখে মুখে তেমন খুশি নেই। যতই হোক, গ্রামেরই ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন নৃশংস হত্যাকাণ্ডের ঘটনায়। এছাড়াও অন্যান্য বছর জলসা সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে, তাও এই বছর বাতিল করা হয়েছে। দুঃখ নিয়ে কেবলমাত্র রীতি এবং ছোটদের কথা মাথায় রেখেই তারা এই বছর ইদ পালন করছেন বলে জানিয়েছেন।

    খুশির দিনে স্বজনহারা নুরেন্নেসা বিবি জানিয়েছেন, "আগে খুব আনন্দ করে ইদ পালন করা হতো। সবাই এই আনন্দে শামিল হতাম। কিন্তু এই বছর মা, কাকিমা কেউ নেই।" এই নুরেন্নেসা বিবি হলেন মৃত আতাহার বিবির মেয়ে। পাঁচ বছর আগে তার বিয়ে হয়। তবে প্রতি বছর তিনি ইদের দিন মায়ের বাড়ির টানে ছুটে আসেন। এই বছরও তিনি এখানেই রয়েছেন। তবে আগের মত আর তাদের মনে ইদের খুশি নেই। বলা যায়, বগটুই গ্রামের ইদ এবার জৌলুসহীন।

    Madhab Das
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: Birbhum, Bogtui case, Eid al-Fitr 2022

    পরবর্তী খবর