• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • local-18
  • »
  • BIRBHUM DIDI SAVE US PLEADED THE BUS OWNERS OF SURI TO CM MAMATA BANERJEE SR

'দিদি আমাদের বাঁচান', কাতর আকুতি সিউড়ির বাস মালিকদের

বীরভূমের সিউড়ি শহরের বাস মালিকরা বাসস্ট্যান্ডের বিভিন্ন এলাকা সহ পোস্টারিং করলেন 'দিদি আমাদের বাঁচান'।

বীরভূমের সিউড়ি শহরের বাস মালিকরা বাসস্ট্যান্ডের বিভিন্ন এলাকা সহ পোস্টারিং করলেন 'দিদি আমাদের বাঁচান'।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : অদ্ভুত এক পরিস্থিতির মধ্যে বাস মালিকরা। করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্যে জারি হওয়া কঠোর বিধিনিষেধের কারণে বন্ধ বাস চলাচল। তবে পুনরায় বাস চলাচল শুরু হলেও এই বাস মালিকরা রাস্তায় বাস নামাতে পারবেন কিনা তা নিয়েও তাঁদের মধ্যে রয়েছে সন্দেহ। এমন অদ্ভুত পরিস্থিতির মাঝে বীরভূমের সিউড়ি শহরের বাস মালিকরা বাসস্ট্যান্ডের বিভিন্ন এলাকা সহ পোস্টারিং করলেন 'দিদি আমাদের বাঁচান'।

    কিন্তু কেন এমন পোস্টারিং? তার সম্পর্কে বাস মালিকদের তরফে জানানো হয়েছে, এমনিতেই প্রায় এক মাস ধরে বন্ধ রয়েছে বাস চলাচল। এই বাস চলাচল বন্ধ থাকার দরুন আমরা আমাদের রুজি-রোজগার হারিয়েছি। বাস বসে থাকলেও গুণতে হচ্ছে ইনসিওরেন্স সহ লোন এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক খরচের টাকা। এই পরিস্থিতিতে আমরা অসহায় হয়ে পড়েছি।

    এর পাশাপাশি, বাস মালিকদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দিনের পর দিন যেভাবে ডিজেলের দাম বেড়ে চলেছে তাতে এই কঠোর বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পরেও আমরা বাস রাস্তায় নামাতে পারব কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। কারণ পেট্রোল-ডিজেলের দাম এবং আনুষাঙ্গিক জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি পেলেও বাস ভাড়া বৃদ্ধি পায়নি। এছাড়াও রয়েছে টোটো অটো সহ অন্যান্য ছোট যানবাহনের বহর।

    বীরভূম জেলা তৃণমূল বাস মালিক সংগঠনের সদস্য শেখ বাবুলাল জানিয়েছেন, "বাস মালিকদের যা পরিস্থিতি তাতে তাঁরা বাস সহ বিভিন্ন জায়গায় এমন পোস্টারিং করেছেন 'দিদি আমাদের বাঁচান'। তাঁরা  ভালই করেছেন। এই পরিস্থিতিতে ভাড়া বৃদ্ধি অথবা সরকারি সাহায্য ছাড়া বাস চালানো অসম্ভব।" আরও এক বাস মালিক শান্তনু মন্ডল জানিয়েছেন, "আমাদের ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি। বর্তমানে যে বাস ভাড়া তাতে জিনিসপত্রের যা দাম বাস চালালে খরচ উঠবে না। সুতরাং আমরা তো আর ঘর থেকে টাকা দিয়ে বাস চালাতে পারবো না।"

    মোটের উপর সিউড়ির বাস মালিকরা তাঁদের এই অভিনব পোস্টারিংয়ের মধ্য দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছেন বলেই জানিয়েছেন। তাঁদের যেসকল দাবিগুলি রয়েছে সেগুলি হল বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা, বর্তমান করোনাকালে বাস চালানোর ক্ষেত্রে সরকারি সাহায্য প্রদান করা। বাস মালিকরা এটাও আশঙ্কা করছেন, এই সকল দাবি-দাওয়া পূর্ণ না হলে তারা আগামী দিনে বাস চালাতে পারবেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে।

    Published by:Simli Raha
    First published: