• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • local-18
  • »
  • BIRBHUM ANUBRATA MANDALS REACTION ON MUKUL ROY COME BACK IN TMC PB

'দড়ি ছিঁড়ে পালিয়ে গিয়েছিল, বাঁধা হল', মুখ খুললেন অনুব্রত মণ্ডল

মুকুল রায় যখন তৃণমূলে ছিলেন তখন তিনি দলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড দায়িত্ব সামলেছেন। সেই সময় এবং পরবর্তীকালেও তাকে বারংবার বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য বলে আখ্যা দেওয়া হত।

মুকুল রায় যখন তৃণমূলে ছিলেন তখন তিনি দলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড দায়িত্ব সামলেছেন। সেই সময় এবং পরবর্তীকালেও তাকে বারংবার বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য বলে আখ্যা দেওয়া হত।

  • Share this:

     #বীরভূম : এক সময় তিনিই ছিলেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড। তবে পরবর্তীতে দলের সাথে বিরোধ তৈরি হয় মুকুল রায় ২০১৭ সালের তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। অবশেষে এই দীর্ঘ সময়ের পর শুক্রবার বিজেপি থেকে তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন হল মুকুল রায়ের। আর এই প্রত্যাবর্তনের মুহূর্তেই বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল মুখ খুললেন এবং তার কথায়, দড়ি ছিঁড়ে পালিয়ে গিয়েছিল, বাঁধা হল।

    মুকুল রায়ের প্রত্যাবর্তনের সাথে সাথেই স্বাভাবিকভাবেই একটি প্রশ্ন ওঠে, সেই প্রশ্নটি হল, 'বিজেপিতে যারা গিয়েছিল তারা অনেকেই ফিরে আসছেন, কি বললেন?' এই প্রশ্ন শুনে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, "গোয়ালে অনেক গরু থাকে জানেন। রাত্রে বেলায় দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে যায়। সকালবেলায় এনে আবার গোজে বেঁধে দেওয়া হয়। এরা দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছিল। আবার বাঁধা হচ্ছে।"

    মুকুল রায় যখন তৃণমূলে ছিলেন তখন তিনি দলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড দায়িত্ব সামলেছেন। সেই সময় এবং পরবর্তীকালেও তাকে বারংবার বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য বলে আখ্যা দেওয়া হত। এদিন মুকুল রায়ের পুনরায় তৃণমূলে প্রত্যাবর্তনের পরিপ্রেক্ষিতে অনুব্রত মণ্ডল সেই রাজনীতির চাণক্য প্রসঙ্গ তুলে আনেন এবং বুঝিয়ে দেন মুকুল রায় রাজনীতির চাণক্য নন, চাণক্য হলেন একমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    অনুব্রত মণ্ডল বলেন, "আগে প্রেস ওয়ালারা বলতো মুকুল রায় নাকি চাণক্য। প্রেসের মুখ থেকে শুনতাম, মুকুল রায় ছিল চাণক্য। একুশে তো আর মুকুল রায় ছিল না। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চেয়ে বড় চাণক্য আর কেউ নেই। এটা মাথায় রাখতে হবে, যে মমতা ব্যানার্জির চেয়ে বড় চাণক্য আর কেউ নাই।"

    মাধব দাস

    Published by:Piya Banerjee
    First published: