Home /News /local-18 /
Alipurduar: মার্বেল পাথরের মূর্তি বানিয়ে আয়ের মুখ দেখছেন যুবক

Alipurduar: মার্বেল পাথরের মূর্তি বানিয়ে আয়ের মুখ দেখছেন যুবক

বাড়িতেই

বাড়িতেই চলছে পাথরের তৈরি মূর্তি বানানোর কাজ।  

করোনায় লকডাউনের ধাক্কা সামলাতে না পেরে ভিন রাজ্যে চরম সংকটে পড়ে ফিরে আসেন নিজের বাড়িতে। দীর্ঘ দিন আর্থিক অনটনের মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে বাড়িতেই আবার নতুন করে শুরু করেন মূর্তি তৈরির কাজ ।

  • Share this:

    দীপেন্দ্র লাহিড়ী, আলিপুরদুয়ার: করোনায় লকডাউনের ধাক্কা সামলাতে না পেরে ভিন রাজ্যে চরম সংকটে পড়ে ফিরে আসেন নিজের বাড়িতে। দীর্ঘ দিন আর্থিক অনটনের মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে বাড়িতেই আবার নতুন করে শুরু করেন মূর্তি তৈরির কাজ। গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যুবকের মার্বেল পাথর কেটে মূর্তি বানানোর কাজ দেখে রীতিমত অবাক এলাকাবাসী। স্থানীয় উঠতি যুবকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে গ্রামের বাড়িতে বসেই তৈরি করছেন বিভিন্ন ধরনের পাথরের মূর্তির । কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ ২ নং ব্লকের রামপুর ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত দক্ষিণ রামপুর এলাকার বাসিন্দা শিবু সরকার। তাঁর হস্ত শিল্পের কাজ দেখে রীতিমত অনুপ্রাণিত হয়ে উঠেছেন এলাকার উঠতি যুবকেরা। কাজ শিখে স্বাবলম্বী হতে শুরু করছে এলাকার যুবকেরা। ছোটবেলা থেকেই মনিষীদের ছবি আঁকতে ভালোবাসতেন তিনি । আর্থিক অনটন ও পরিকাঠামোর অভাবে জন‍্য হয়ে ওঠেনি ছবি আঁকা শেখা। স্কুলের গতানুগতিক পড়াশোনা ছেড়ে প্রতিবেশী এক দাদার সাথে পাড়ি দেন সুদূর রাজস্থানে। সেখানে গিয়েই শেখা পরিচয় হয় হস্ত শিল্পের সাথে। দীর্ঘ দিন পাথরের মূর্তি বানানোর কাজ শিখে জয়পুরের মানসারোভারে নিজেই খুলে ফেললেন একটি মূর্তির দোকান। প্রায় ২০ বছর রাজস্থানে থাকার পর করোনা কালে সব ছেড়ে চলে আসেন নিজের গ্রামের বাড়িতে। এবাার বাড়িতেই কারখানা বানিয়ে রাজস্থান থেকে মার্বেল পাথর নিয়ে এসে চলছে মূর্তি তৈরির কাজ। মূর্তি তৈরি করে পাঠাচ্ছেন বিভিন্ন ভাস্কর্যের দোকান। ভাস্কর্য শিল্পী শিবু সরকার জানান, অনলাইনের যুগে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মূর্তির অর্ডার আসে, মূর্তির দৈর্ঘ্যে ও কাজের নমুনার ওপর নির্ভর করে দাম ঠিক হয়। এরপর বাড়ির আটচালাতে বসেই তৈরি করে তা পাঠিয়ে দেওয়া হয় ।গ্রামে হস্ত শিল্পের কাজ দেখে অনেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে শিখতে আসছে, এমনকি পাথরের মূর্তি তৈরির কাজ দেখে এলাকায় নতুনদের মধ্যে হাতের কাজ শেখার আগ্রহ বাড়ছে , এর ফলে এলাকায় কিছুটা উপার্জনের মধ্যে দিয়ে নতুনদের মধ্যে বিকল্প কর্মসংস্থানও বাড়বে বলে তিনি জানান।

    First published:

    Tags: Alipurduar, Coochbehar, North Bengal

    পরবর্তী খবর