Home /News /life-style /
Health Tips: বারে বারে প্রস্রাবের বেগ? যা জানা দরকার...

Health Tips: বারে বারে প্রস্রাবের বেগ? যা জানা দরকার...

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

Health Tips: বিষয়টা খুব সাধারণ এবং বেশিরভাগ মেয়েরাই বিষয়টি এড়িয়ে যায় বা গুরুত্ব দেয় না।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: প্রস্রাবের সমস্যায় ভোগেন না এমন মহিলা কম। ৮০ শতাংশ মেয়েদেরই এই সমস্যা রয়েছে। বেশিরভাগ সময় খুব জোরে হাসলে, বা কখনও লাফালে বা জোরে কথা বললে, কাশলে, হাঁচলে প্রস্রাব বেরিয়ে যায়। এই বিষয়টা খুব সাধারণ এবং বেশিরভাগ মেয়েরাই বিষয়টি এড়িয়ে যায় বা গুরুত্ব দেয় না। অনেক সময় গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে এটি দেখা যায় বা যাদের বয়স ৫০-এর কোঠায় তাদের মধ্যেও এটা চোখে পড়ে। তবে আজকাল অল্পবয়সী মেয়েদের মধ্যেও ছড়িয়ে যাচ্ছে। যদিও এটাকে এতটাও স্বাভাবিক ভাবে নেওয়া উচিত নয়।

লক্ষণ

প্রথম যেটা লক্ষ্য করা দরকার সেটা হল, বার বার প্রসাবের বেগ আসছে কি না। অনেক সময় আবহাওয়া বা বেশি জল খাওয়ার জন্যও এটা হয়। কিন্তু এটা ছাড়া যদি বেশি বেগ পায় তাহলে বুঝতে হবে কিছু সমস্যা আছে। আবার, এক্সারসাইজ করার সময় বা কোন উত্তেজনামূলক পরিস্থিতিতে যদি মনে হয়ে যে বেগটা প্রচণ্ড বাড়ছে তাহলে একটুও সময় নষ্ট না করে এখনই ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন- লতা মঙ্গেশকরের গানের ৭৬০০ গ্রামোফোন রেকর্ড নিয়ে বিরাট কাজ ইন্দোরের ব্যক্তির

কারণ

এর কারণ বিভিন্ন হতে পারে। অনেকে বেশি পরিমাণে কফি বা মদ খান সেই কারণেও হতে পারে। আবার অনেকের ইউটিআইয়ের (UTI) সমস্যা থাকে বা বেশি পরিমাণে ভিটামিন সি (Vitamin C) অথবা আসিডিক খাবার-দাবার খেলে তখনও এই সমস্যা দেখা যায়। এই রোগটি অনেক সময় মেয়েদের মধ্যে মুড স্যুইং, অর্থাৎ হঠাৎ মন খারাপ, ভালো না লাগা, মানুষের সঙ্গে মেলামেশা বন্ধ করে দেওয়া ইত্যাদিও ঘটাতে পারে।

আরও পড়ুন- অবশেষে করোনা নেগেটিভ হিসেবে চিকিৎসা! সন্ধ্যা মুখোপাধ্য়ায়ের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি

কত ধরনের হতে পারে

এর ধরনের শেষ নেই। তবুও ডাক্তারদের মতে বেশ কিছু ভাগে এই রোগটিকে ভাগ করা হয়েছে।

· এটি সাধারণত প্রচণ্ড উত্তেজনার মুহূর্ত বা লাফঝাঁপের সময় হয়ে থাকে। মনে হয় যে প্রস্রাব বেরিয়ে আসছে। বা খুব জোরে কাশলে বা হাঁচলেও এটি হতে পারে। অর্থাৎ যখনই এমন কোনও কাজ করা হবে যাতে পেটে চাপ পড়ে, তাতেই এই সমস্যাটি দেখা দিতে পারে।

· প্রস্রাব পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই যদি কাউকে বাথরুমে ছুটতে হয় তবে তা ভালো লক্ষণ না। সাধারণত বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ধৈর্য শক্তি বাড়ে। কিন্তু বড়বেলায় এসেও যদি নিজের প্রস্রাব ধরে রাখা না যায় তবে তা অবশ্যই সমস্যার বিষয়।

এই সমস্যা ফেলে রাখার জিনিস নয়, তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলা দরকার।

First published:

Tags: Health Tips

পরবর্তী খবর