• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Risk of heart attack: কাজের চাপ এবং অর্থ নিয়ে উদ্বেগ হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে, প্রকাশ গবেষণায়

Risk of heart attack: কাজের চাপ এবং অর্থ নিয়ে উদ্বেগ হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে, প্রকাশ গবেষণায়

দীর্ঘ মানসিক উদ্বেগ, শরীরে কোর্টিসোলের মাত্রা বেড়ে যায়

দীর্ঘ মানসিক উদ্বেগ, শরীরে কোর্টিসোলের মাত্রা বেড়ে যায়

সুইডেনের গঠেনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দাবি করেন, কর্মক্ষেত্রের চাপ এবং অর্থ সংক্রান্ত উদ্বেগ স্বাস্থ্যের উপর তীব্র প্রভাব ফেলে (impact of mental pressure on health)

  • Share this:

    আজকের জীবনযাত্রায় প্রত্যেকে বিধ্বস্ত কিছু না কিছু মানসিক চাপে৷ কারওর কাছে বাড়ির সমস্যা সাঙ্ঘাতিক, কেউ আবার অফিস বা কাজের জায়গা (workplace) নিয়ে বিপর্যস্ত৷ সুইডেনের গঠেনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দাবি করেন, কর্মক্ষেত্রের চাপ এবং অর্থ সংক্রান্ত উদ্বেগ স্বাস্থ্যের উপর তীব্র প্রভাব ফেলে (impact of mental pressure on health)৷

    মানসিক চাপের প্রভাবে হৃদরোগের অসুখের আশঙ্কা বেড়ে যায় প্রায় ৩০%৷ সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিভিন্ন দেশের প্রায় ১ লক্ষ মানুষের উপর গবেষণা করা হয়৷ সেখানে দেখা গিয়েছে, দীর্ঘ মানসিক উদ্বেগ, শরীরে কোর্টিসোলের মাত্রা বেড়ে যায়৷ এর ফলে রক্তচাপ, কোলেস্টেরল, ব্লাড শুগার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে৷

    আরও পড়ুন : তেল-শ্যাম্পু-কন্ডিশনারের যত্নের পরও চুল সেই নির্জীব? এ বার হাঁটুন উল্টোপথে

    ৩০ থেকে ৭০ বছর বয়সিদের উপর এই গবেষণা চালানো হয়৷ সমীক্ষায় প্রকাশ, বয়সের সঙ্গে সঙ্গে উদ্বেগের হারও বেড়ে যায়৷ গবেষণা যিনি মূলত করেছেন সেই অন্নিকা রোজেনগ্রেন জানিয়েছেন, কাজে চাপ এবং অর্থ সংক্রান্ত উদ্বেগ কার্ডিওভাসক্যুলার ডিজিজ ও ব্লাড ক্লটিংয়ের আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে৷ ‘‘মানসিক উদ্বেগে ভোগা মানুষের মধ্যে হৃদরোগের আশঙ্কা কেন বেশি, সে সম্বন্ধে স্পষ্ট কিছু জানা যায় না৷ উদ্বেগের ফলে জমাট বাঁধতে পারে রক্তও৷ বিশ্ব জুড়ে হৃদরোগ যদি আমাদে কমাতে হয় তাহলে মানসিক উদ্বেগকে এর রিস্ক ফ্যাক্টর বলে চিহ্নিত করতেই হবে’’ বলেছেন অন্নিকা৷

    আরও পড়ুন : কেক তৈরি থেকে গ্যাসের আভেন পরিষ্কার, কমলালেবুর খোসা ফেলে না দিয়ে ব্যবহার করুন নানা কাজে

    কী করে মুক্তি পাওয়া যাবে এই সমস্যা থেকে? সমীক্ষায় প্রকাশ, সারা পৃথিবীতে ১৮০ মিলিয়ন মানুষ প্রতি বছরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান৷ এখন হৃদরোগ পৃথিবীতে মৃত্যু অন্যতম বিপজ্জনক কারণ৷ সদর্থক চিন্তাভাবনা এবং সুস্থ জীবনযাপনই এই সমস্যামুক্তির মূল উপায়৷ বয়স ৪০ বছর পার হওয়ার পর প্রত্যেকের দৈনন্দিন রুটিনে থাকতেই হবে শরীরচর্চা৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: