হোম /খবর /লাইফস্টাইল /
শিশুকে স্তন্যপান করাচ্ছেন? সদ্য মা হওয়া মহিলারা কী খাবেন, কী খাবেন না

Women Health : শিশুকে স্তন্যপান করাচ্ছেন? সদ্য মা হওয়া মহিলারা কী খাবেন, কী খাবেন না

একটি হাতে তৈরি কার্ড সবসময়েই সেরা উপহার। সন্তানের হাতে বানানোর উপহারের থেকে ভাল আর কী হয়! এইদিনটা মাকে বরং ছুটিই দিন৷ তাঁকে রান্না করে খাওয়ান৷ সিনেমা দেখতে নিয়ে যান৷ সময় কাটান৷

একটি হাতে তৈরি কার্ড সবসময়েই সেরা উপহার। সন্তানের হাতে বানানোর উপহারের থেকে ভাল আর কী হয়! এইদিনটা মাকে বরং ছুটিই দিন৷ তাঁকে রান্না করে খাওয়ান৷ সিনেমা দেখতে নিয়ে যান৷ সময় কাটান৷

Women Health : একটি শিশুর যে পরিমাণ পুষ্টি লাগে তা মাতৃদুগ্ধের মধ্যেই থাকে। শিশুর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা, মস্তিষ্কের বিকাশ হয় স্তন্যপান করেই।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: সদ্যজাতের শরীরে পুষ্টি আসে মাতৃদুগ্ধ খেয়ে। অন্তত প্রথম ছয়মাস শিশুকে স্তন্যপান করানোর পরামর্শ দেন চিকিৎসক ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। শিশুর প্রথম খাদ্যই এটি। তাই তার বেড়ে ওঠার পিছনে মাতৃদুগ্ধের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। একটি শিশুর যে পরিমাণ পুষ্টি লাগে তা মাতৃদুগ্ধের মধ্যেই থাকে। শিশুর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা, মস্তিষ্কের বিকাশ হয় স্তন্যপান করেই। আর তাই সদ্য মা হওয়া মহিলাদেরও ডায়েটে বেশ কিছু দিকে নজর দেওয়া উচিত।

যে মায়েরা সন্তানকে স্তন্যপান করান (Lactating Women) তাঁদের জন্য চিকিৎসকরা বিশেষ কিছু পরামর্শ দিচ্ছেন। মিল্ক প্রোডাকশনে এই সময়ে শরীরে বেশি এনার্জি ক্ষয় হয়। তাই প্রতিদিন ৩০০-৩৫০ ক্যালরি দরকার পরে সদ্য মা হওয়া মহিলাদের। চিকিৎসকরা এই সময়ে মহিলাদের পুষ্টি সমৃদ্ধ ও ভালো ক্যালরি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন। ফল, দুগ্ধজাত খাবার, হেলদি ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবার, ভেজিটেবল অয়েল, বাদাম, সশ্যদানা, এই ধরনের খাবার সদ্য মা হওয়া মহিলাদের জন্য আদর্শ। অন্যদিকে মিষ্টি, সফট ড্রিঙ্ক ইত্যাদি এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন - গোটা শরীর ছিপছিপে হলেও, মেদ জমছে পেটে! অজান্তে বিপদ ডেকে আনছেন না তো?

সন্তান জন্ম দেওয়ার পরে শরীরে যে স্ট্রেস তৈরি হয় তা প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেলে অনেকটাই কমে। স্বাস্থ্যকর প্রোটিন খেতে হলে মুরগির মাংস, ডিম, সিফুড, দুধ ইত্য়াদি খাওয়া উচিত। এছাড়াও শস্যদানা খাওয়ারও পরামর্শ দেন নিউট্রিশনিস্টরা।

এনার্জি প্রদান করা ছাড়াও খাবারে স্বাদ আনতে তেলের ভূমিকা আছে। শিশুর মস্তিষ্ক ও স্নায়ু বিকাশে স্বাস্থ্যকর ভেজিটেবল তেল সাহায্য করে। মায়ের শরীরে ভিটামিন ও মিনারেলের অভাব হলে তা শিশুর বিকাশেও ঘাটতি তৈরি করে। মস্তিষ্কের বিকাশ ও রেড ব্লাড সেল তৈরির জন্য দরকার ভিটামিন বি১২। এর জন্য আমিষ খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন। নিরামিষাসীরা চিকিৎসকের পরামর্শে সাপ্লিমেন্ট খেতে পারেন। মায়ের শরীরে আয়োডিনের অভাব হলে শিশুর পুষ্টিতেও ঘাটতি হয়। খাবারে যথাযথ পরিমাণে নুন এবং দুধ, সিফুড, ডিম ইত্যাদি খাওয়া উচিত আয়োডিনের জন্য। শিশুর বিকাশের জন্য যথেষ্ট পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ফলিক অ্যাসিডও প্রয়োজন।

আরও পড়ুন - ভ্রূপল্লবের ডাক; ঘরোয়া পদ্ধতিতে দ্রুত আইব্রো ঘন করবেন কী ভাবে? রইল সহজ টিপস

আরও যে বিষয়গুলিতে সদ্য মা হওয়া মহিলাদের নজর দেওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা-

১) এই সময়ে ওজন বেড়ে যায়। কিন্তু স্তন্যপান করালে ওজন কমে অনেকটাই। কিন্তু শরীরে এনার্জি কম হলে মিল্ক প্রোডাকশনে ঘাটতি হয়।

২) শরীরকে হাইড্রেটে রাখতে হবে। শরীরে ফ্লুইড জোগানের জন্য যথেষ্ট পরিমাণে জল খাওয়া প্রয়োজন।

৩) স্তন্যপান যে মহিলা করাচ্ছেন তাঁর অ্যালকোহোল এড়িয়ে যাওয়া উচিত। এই সময়ে মদ্যপান করলে শিশুর

৪) মাত্রাতিরিক্ত কফি, চা, বা সফট ড্রিঙ্ক পান এবং চকোলেট খাওয়ায় দাঁড়ি টানতে হবে।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Health, Women