লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্বামী এখন আর ফিরেও তাকান না! কী ভাবে তাঁকে উত্তেজিত করে তোলা যায় যৌনক্রীড়ায়, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ!

স্বামী এখন আর ফিরেও তাকান না! কী ভাবে তাঁকে উত্তেজিত করে তোলা যায় যৌনক্রীড়ায়, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ!
Representational Image

তেমন সমস্যা নিয়েই পল্লবীকে চিঠি লিখেছিলেন এক যুবতী।

  • Share this:

#কলকাতা: এই পর্বে বিশেষজ্ঞ পল্লবী বার্নওয়াল যে বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছেন, তাকে বিচার করতে হবে একটু অন্য দৃষ্টিভঙ্গী থেকে। এটা ঠিক যে কী ভাবে আগ্রহ হারিয়ে ফেলা সঙ্গীকে যৌনক্রীড়ায় (Sex) উৎসাহিত করে তুলতে হয় নতুন করে, তা নিয়ে তিনি এর আগে পরামর্শ দিয়েছেন!

কিন্তু একই সঙ্গে এটাও ঠিক যে সেই সব পরামর্শই ছিল পুরুষদের জন্য। এই পর্বে তিনি এক নারীর হয়ে সওয়াল করেছেন এবং জবাব দিয়েছেন! যা আলাদা করে তাৎপর্যপূর্ণ তো বটেই! একটা নির্দিষ্ট বয়স এবং সময়ের পর  দেশের অনেক মহিলাই তাঁদের প্রতি স্বামীর যৌন আকর্ষণ না থাকাটা স্বাভাবিক বলে ধরে নেন। তা বলে সেটা নিয়ে যে তাঁদের মানসিক এবং শারীরিক সমস্যা হয় না, এমনটা কিন্তু নয়!

তেমন সমস্যা নিয়েই পল্লবীকে চিঠি লিখেছিলেন এক যুবতী। তিনি জানিয়েছিলেন যে দীর্ঘ ১৪ বছরের সম্পর্ক তাঁদের, তার মধ্যে বিবাহিত জীবন পার করেছে ৭ বছর। বিয়ের আগে থেকেই পরস্পরকে চেনা এবং বোঝাটাই ছিল স্বামীর (Husband) সঙ্গে তাঁর আকর্ষণের প্রধান কেন্দ্রবিন্দু। সেই বোঝাপড়ার জায়গাটা এখনও রয়েছে। কিন্তু শারীরিক সম্পর্ক (Physical Intimacy) এসে ঠেকেছে তলানিতে। মহিলা ভাবছেন- এর জন্য তাঁর বয়স দায়ী। আগের মতো ভাল তিনি দেখতে নেই, সেটাও স্বামীর অনিচ্ছার অপর কারণ!

পল্লবী জানাচ্ছেন যে একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরে দাম্পত্যে (Conjugal Life) এমন সমস্যা হতেই পারে। এর সঙ্গে বয়স বেড়ে যাওয়া বা রূপের কোনও সম্পর্ক নেই। কেন না, এই দুই ঘটনাই বিপরীত ক্রমেও সত্য, অর্থাৎ পুরুষটির ক্ষেত্রেও তো তা-ই হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে যৌন আকর্ষণ (Sexual Attraction) না থাকাটা নেহাতই অভ্যেসের ফল, বছরের পর বছর একই মানুষের সঙ্গে রতিক্রীড়া একটা একঘেয়েমি তৈরি করেছে।

তাই পল্লবীর পরামর্শ- নিচের বিষয়গুলো সমস্যার সমাধানে অনুসরণ করে দেখা যেতে পারে-

১. সময় দিতে হবে পরস্পরকে সারা দিন কাজের মাঝে, দিনের শেষে কাজের পরে পরস্পরকে সময় দেওয়াটা খুব দরকার। মানসিক আদানপ্রদান যত বেশি হবে, তত তা শারীরিক টান তৈরির জায়গা তৈরি করবে।

২. সঙ্গীকে উত্তেজিত করা এই কাজটা শুধু যৌনক্রীড়ার সময়ে করলে চলবে না। করতে হবে সারা দিন ধরেই। এ ক্ষেত্রে অন্তরঙ্গ টেক্সট, নিজের গোপন ইচ্ছার কথা, অন্তর্বাসে নিজের ছবি- এ সব পাঠানো যায় অপর পক্ষকে। কাজের মাঝে মাঝে একটা-দুটো যৌন ইঙ্গিত ছুড়ে দেওয়া যায়। এ ভাবে সারা দিন ধরে একটা যৌন আকর্ষণ (Sexual Tension) তৈরি করতে পারলে সহজেই শারীরিক অন্তরঙ্গতা ফিরে আসবে।

৩. নতুন ভাবে খেলা অনেকগুলো বছর একসঙ্গে থাকার ফলে দুই পক্ষই পরস্পরের যৌন স্বভাব নিয়ে পরিচিত। সেই জায়গা থেকে নতুন কোনও আসন (Sexual Position), শৃঙ্গার (Foreplay) অনুসরণ করতে হবে। যা রতিসুখের (Orgasm) তীব্রতা বাড়িয়ে তুলবে।

তবে এর কোনও কিছুতেই যদি স্বামী সহযোগিতা না করেন, তাঁর সঙ্গে কথা বলতে হবে খোলাখুলি। সেই মতো তাঁর মর্যাদাকে সম্মান দিতে হবে!

Pallavi Barnwal

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: December 18, 2020, 12:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर