Home /News /life-style /
Weight Loss Tips: কিছুতেই ওজন কমছে না! সকালের এই অভ্যাসগুলো অক্ষরে অক্ষরে মানুন, হাতে-নাতে ফল পাবেন

Weight Loss Tips: কিছুতেই ওজন কমছে না! সকালের এই অভ্যাসগুলো অক্ষরে অক্ষরে মানুন, হাতে-নাতে ফল পাবেন

Morning Routine For Weight Loss: ডায়েট, ওয়ার্কআউট এবং জীবনযাত্রার ধরন বদল- এই তিনটে জিনিসকে বাঁধতে হবে এক সুতোয়। তবেই মিলবে কাঙ্ক্ষিত ফল।

  • Share this:

Weight Loss Tips: বাড়তি ওজন কমাতে কে না চায়! কিন্তু ব্যাপারটা অত সহজ নয়। এ জন্য নির্দিষ্ট পরিকল্পনা চাই। ডায়েট, ওয়ার্কআউট এবং জীবনযাত্রার ধরন বদল- এই তিনটে জিনিসকে বাঁধতে হবে এক সুতোয়। তবেই মিলবে কাঙ্ক্ষিত ফল।

ডায়েট এবং ওয়ার্কআউটই মূলত ওজনকে বশে আনে। তবে সকালে তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার মতো কিছু স্বাস্থ্যকর অভ্যাস এই প্রক্রিয়াটাকে আরও ত্বরান্বিত করে। বেশ কিছু গবেষণাতেও দেখা গিয়েছে, ভোরে ঘুম থেকে ওঠা এবং ব্যায়ামের অভ্যাস দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করে। এখানে এই ধরনের গবেষণা সমর্থিত টিপস এবং বিশেষজ্ঞের সুপারিশ দেওয়া হল যা ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

ভোরে ঘুম থেকে ওঠা: ঘুম থেকে ওঠা শুধু ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে না, এর বেশ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতাও রয়েছে। তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার জন্য, তাড়াতাড়ি ঘুমোতে হবে। এটা ঘুমের চক্রকে নিয়ন্ত্রণ করে যা ওজন কমানোর জন্য অপরিহার্য। রাতে ৮ ঘন্টা ঘুমিয়ে ভোরে ওঠার পর শরীর মেটাবলিজমের জন্য প্রস্তুত থাকবে। ভোরে ঘুম থেকে উঠলে ওয়ার্কআউটের পরিকল্পনার জন্য, সকালের জলখাবার বানাতে এবং দিন শুরু করার আগে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলি শেষ করার জন্য যথেষ্ট সময় পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন - এই নতুন ম্যালওয়্যার মারাত্মক বিপজ্জনক! এক নজরে দেখে নিন সুরক্ষার উপায়

ধ্যান: দিন শুরু করার জন্য এর থেকে ভালো আর কিছু হয় না। ভোরে ১০ থেকে ১৫ মিনিটের ধ্যান মনকে শান্ত করে এবং সারা দিনের ঝড়ঝাপ্টা সামলানোর জন্য প্রস্তুত করে দেয়। নিয়মিত ধ্যানে আত্মিক শক্তি জাগ্রত হয়। ফলে উৎপাদনশীলতা বাড়ে। শুধু তাই নয়, ধ্যান মানসিক চাপ এবং উদ্বেগ দূর করে। এর নিয়মিত অভ্যাসে প্যারাসিমপ্যাথেটিক স্নায়ুতন্ত্র উদ্দীপিত হয়, হৃদস্পন্দন নিয়ন্ত্রণে আসে এবং রক্ত প্রবাহ উন্নত হয়।

এক গ্লাস ইষদুষ্ণ গরম জল: সকালে এক গ্লাস ইষদুষ্ণ গরম জল পানের উপকারিতা সকলেরই জানা। এতে হজম প্রক্রিয়া সচল থাকে, মেটাবলিজম উন্নত হয়। হজম ছাড়াও, গরম জল কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের উন্নতিতেও সহায়তা করে।

আরও পড়ুন - এই নতুন ম্যালওয়্যার মারাত্মক বিপজ্জনক! এক নজরে দেখে নিন সুরক্ষার উপায়

হাই প্রোটিন ব্রেকফাস্ট: সকালের জলখাবার হল দিনের প্রথম এবং সবচেয়ে বড় খাবার। তাই সর্বদা ভারী প্রোটিন সমৃদ্ধ প্রাতঃরাশের পরামর্শ দেওয়া হয়। যাতে দীর্ঘ সময়ের জন্য পেট ভরা থাকে। এটা ভারী ব্যায়াম করতে সাহায্য করবে, মেজাজ ফুরফুরে রাখবে, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করবে এবং সামগ্রিকভাবে ওজন কমাবে।

ওয়ার্কআউট: ওজন কমাতে সন্ধ্যার চেয়ে সকালের ওয়ার্কআউট বেশি কার্যকরী। এর কারণ হল, খালি পেটে ব্যায়াম করলে চর্বি বেশি পোড়ে। এক্সারসাইজের জ্বালানি যোগানোর জন্য সেই সময়ে শরীরে ফ্যাট ছাড়া আর কিছুই নেই। ফলে ওজন কমে দ্রুত।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Healthy habits, Weight Loss

পরবর্তী খবর