লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

Vitamin D: কেন আমাদের শরীরের জন্য এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ?

Vitamin D: কেন আমাদের শরীরের জন্য এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ?

যারা সাধারণত রোদে যথেষ্ট সময় ব্যয় করেন না তারা ভিটামিন D-এর ঘাটতির শিকার হতে পারেন

  • Share this:

ভিটামিন D-এর গুরুত্ব সুপরিচিত হয়ে উঠছে কারণ এটি স্বাস্থ্যকর হাড় গঠনে সহায়তা করে, কিন্তু সময়ের সাথে সাথে যেভাবে শারীরিক কার্যকলাপ কমে যেতে শুরু হয়েছে, সক্রিয় জীবন-যাপন বজায় রাখার জন্য ভিটামিন D -এর ভূমিকা গুরুত্ব পেয়েছে। আমি বিশ্বাস করি যে এখনই সঠিক সময় যে আমরা ভিটামিন D-এর ঘাটতির সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরণের স্বাস্থ্যের অবস্থার উপর আলোকপাত করি।

একজন পেশাদার চিকিৎসক হিসেবে আমি সময়ের সাথে সাথে অনেক রোগীদের দুর্বল স্বাস্থ্যের লক্ষণ যেমন হাড়/পেশী ব্যথা এবং ক্লান্তি দেখেছি। স্বাস্থ্যের এই ধরণের অবনতির সবচেয়ে বড় কারণ হল ভিটামিন D-এর ঘাটতি। তাই মানুষের ভিটামিন D গ্রহণ করার ব্যাপারে সচেতন থাকা এবং ঘাটতির প্রাথমিক লক্ষণগুলি চিনতে পারা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আমি বিশ্বাস করি যে এই মুহূর্তে আমাদের একটি ভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য সঙ্কটের উপর আলোকপাত করার একটি ভাল সময় এসেছে। যদিও আমাদের কাজের অভ্যাস পরিবর্তিত হয়েছে, এটা অন্যান্য বিদ্যমান অবস্থাকে আরও বাড়িয়ে তুলেছে।

ভিটামিন D-এর ঘাটতি বিশ্বব্যাপী জনসংখ্যার প্রায় ৫০%-কে প্রভাবিত করে। সাম্প্রতিক তথ্য থেকে জানা গেছে যে ৭৬% ভারতীয়ের অপর্যাপ্ত মাত্রায় ভিটামিন D আছে। এই গবেষণায় আরও দেখা গেছে যে ১৮-৩০ বছর বয়সী ভারতীয়দের যারা দেশের সকল অঞ্চলে সমানভাবে ছড়িয়ে আছে তাদের মধ্যে এই ঘাটতির প্রবণতা সর্বোচ্চ।

ভিটামিন D-এর ঘাটতি হাড়ের কম ভর এবং পেশী দুর্বলতার সঙ্গে সম্পর্কিত, যার ফলে হাড় ভাঙ্গা এবং হাড়ের অসুখ যেমন অস্টিওমালাসিয়া(হাড়ের নরম হওয়া), অস্টিওপেনিয়া এবং অস্টিওপরোসিস-এর ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

আবারহৃদরোগ, টাইপ-২ ডায়াবেটিস, হাড় ভাঙা,বিষণ্ণতা, ক্যান্সার এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করার বিরুদ্ধে ভিটামিন D-এর সম্ভাব্য ভূমিকা সমর্থন করেকিছুনতুনগবেষণা।

কিন্তু এই লক্ষণগুলি মাথায় রেখেও, বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে সচেতন হওয়া গুরুত্বপূর্ণ যেখানে ভিটামিন D-এর মতো একটি অপরিহার্যভিটামিনেরঅভাব একাধিক স্বাস্থ্য অবস্থার উপর প্রভাব ফেলতে পারে, এটাও গুরুত্বপূর্ণ যেহেতু আমি আমার রোগীদের এই ধরনের পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য সুস্বাস্থ্যের মৌলিক বিষয়গুলি রক্ষণাবেক্ষণ করা ও যত্ন নেওয়ার জন্য উপদেশ দিচ্ছি।

ভিটামিন D-এর উৎস

প্রযুক্তিগতভাবে, প্রাপ্তবয়স্কদের পর্যাপ্ত ভিটামিন D-এর মাত্রা হিসাবে প্রায় ৩০ এমজি(mg)/এমএল ভিটামিন D বজায় রাখতে হবে। ভিটামিন D-এর একটি কার্যকর উৎস হল সূর্যের আলো, যা ত্বকে ভিটামিন D সংশ্লেষণে সাহায্য করে। খুব কম খাদ্যই ভিটামিন D-এর একটি ধারাবাহিক সরবরাহ প্রদান করতে পারে; বেশিরভাগ মাছ যেমন স্যালমন এবং টুনা, মাছের লিভার তেল, পনির ডিম এবং ডিমের কুসুমআসলে শিশুদের জন্য ভিটামিন D-এর সবচেয়ে ভালো উৎস। এর সাথে নিয়মিত সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৩টার মধ্যে দুবার ১০-১৫ মিনিট রোদে থাকলে আপনার দৈনন্দিন ভিটামিন D-এর প্রয়োজনীয়তা পূরণ হওয়া উচিত। আমি বেশীরভাগ রোগীকে পরামর্শ দেই যে এই ভিটামিন D-এর উৎসগুলোর মধ্যে যেটি তাদের কাছে সবচেয়ে সহজলভ্য তারা যেন নিশ্চিত করে যে তারা সেটির দৈনন্দিন ডোজ পায়। যদি কোন ঘাটতি হয় তাহলে তারা যেন ভিটামিন D-এর পরিপূরক দিয়ে তা পূরণ করে নেয়।

কি কারণে ভিটামিন D-এর ঘাটতি ঘটে?

যারা সাধারণত রোদে যথেষ্ট সময় ব্যয় করেন না তারা ভিটামিন D-এর ঘাটতির শিকার হতে পারেন। এটা বাইরে সময় কাটানো ছাড়াও আরো অনেক কারণে হতে পারে, যদি সূর্যের আলো খুব দুর্বল হয় অথবা ব্যবহৃত সানস্ক্রিনে ৩০-এরও বেশি এসপিএফ থাকে।

আপনার ত্বকের রঙও আপনার শরীরে ভিটামিন D-এর পরিমাণ উৎপাদন করতে বাইরে আরো সময় ব্যয় করার ক্ষেত্রে অবদান রাখে।

মেদবৃদ্ধি VDD-এর সাথে সম্পর্কিত কারণ সাধারণত ব্যারিয়াট্রিক রোগীদের খাদ্য ভিটামিন D-এর কম গ্রহণ এবং চর্বি ম্যালশোষণ রোগ যেখানে ক্ষুদ্রান্ত পুষ্টি শোষণ করতে অক্ষম হয়, এর জন্য। এছাড়াও অবশ্যই আরো গতানুগতিক কারণ আছে, যেমন বয়স বৃদ্ধি যা ধীরে ধীরে একটি শরীরের ভিটামিন D সংশ্লেষণের ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। কিন্তু সময়মত ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে এই সমষ্টিগত প্রভাবগুলির গতি রোধ করা যেতে পারে।

কেন আমরা শুধুমাত্র ডাক্তারের সুপারিশে ঘাটতির জন্য সম্পূরক বিবেচনা করব?

একজন চিকিৎসকের সুপারিশের উপর ভিত্তি করে সম্পূরক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য ভারতে একাধিক ধরণের প্রস্তুতি পাওয়া যায়। গ্রানুলেস /ট্যাবলেট /ক্যাপসুল-এর মত প্রস্তুতি ভাল ভাবে শোষণের জন্য চর্বি জাতীয় খাদ্যের সঙ্গে খেতে হবে এবং এমন কিছু ন্যানো তরল প্রস্তুতি আছে যা পরিচালনা করার জন্য প্রস্তুত হিসাবে উপলব্ধ। ভিটামিন D-এর ন্যানোপার্টিকেল-এর সাথে অধ্যয়নগুলি রোগীর লাইফ ইনডেক্সের উল্লেখযোগ্য উন্নতির সাথে তরল প্রস্তুতিগুলির ভাল কার্যকারিতা দেখিয়েছে|আপনার চিকিৎসক আপনার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন উদ্বেগ দূর করতে এবং বিভিন্ন রোগীর প্রোফাইল সহ শিশু থেকে বয়স্ক দের ভিটামিন D-এর ঘাটতি সম্পর্কে আরো সচেতনতা সৃষ্টির জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন।

অ্যাবটের ‘ডি স্ট্রং, অ্যাকটিভ লাইফ’ নামক প্রচারাভিযান একটি স্বাস্থ্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছে যা আমাদের জাতির মঙ্গলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আরো জানতে এখানে ক্লিক করুন।

ডিসক্লেমার: ** এটি অ্যাবোট ইন্ডিয়ার সাথে যৌথভাবে লিখেছেন ‘ড:সম্বিত দাশ ডি.এম. এন্ডোক্রিনোলজি পরামর্শদাতা এন্ডোক্রিনোলজিস্ট অ্যাপোলো হাসপাতাল, ভুবনেশ্বর’।

এই উপাদানে প্রদর্শিত তথ্য শুধুমাত্র সাধারণ সচেতনতার জন্য এবং কোন চিকিৎসাগত উপদেশ প্রদান করে না। আপনার অবস্থা সম্পর্কে আপনার যে কোন প্রশ্ন বা উদ্বেগের জন্য দয়া করে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

References:

1. Ritu G, Gupta A. Vitamin D Deficiency in India: Prevalence, Causalities and Interventions. Nutrients 2014, 6, 729-775

2. Aparna P et al. Vitamin D deficiency in India. Family Med Prim Care. 2018 Mar-Apr; 7(2): 324–330.

3. Goel S. Vitamin D status in Indian subjects: a retrospective analysis. Int J Res Orthop. 2020 May;6(3):603-610

4. Zhang and Naughton. Vitamin D in health and disease: Current perspectives. Nutrition Journal 2010, 9:65

5. Nair R, Maseeh A. Vitamin D: The “sunshine” vitamin. J PharmacolPharmacother. 2012 Apr-Jun; 3(2): 118–126.

6. Kennel KA, Drake MT, Hurley DL. Vitamin D Deficiency in Adults: When to Test and How to Treat. Mayo Clin Proc. 2010;85(8):752-758

7. Cleveland Clinic. Vitamin D Deficiency. Available at: https://my.clevelandclinic.org/health/articles/15050-vitamin-d--vitamin-d-deficiency

8. Bothiraja C, Pawar A & Deshpande G. Ex vivo absorption study of a nanoparticle based novel drug delivery system of vitamin D3(ArachitolNano™) using everted intestinal sac technique. J Pharma Investing. 2016;46(5):425-432.

এটি একটি পার্টনারড  পোস্ট। 

Published by: Ananya Chakraborty
First published: October 15, 2020, 1:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर