লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

আসছে শীত, বাড়বে বায়ুদূষণ! জেনে নিন কোন কোন যোগাসনে ফুসফুসের সমস্যা কমবে!

আসছে শীত, বাড়বে বায়ুদূষণ! জেনে নিন কোন কোন যোগাসনে ফুসফুসের সমস্যা কমবে!

শীত এখনও আসেনি। আসবে আসবে করছে, এই যা! কিন্তু এর মধ্যেই মাঝে মাঝে টান ধরছে শ্বাস নিতে গিয়ে। চট করে হাঁফিয়ে পড়ছি আমরা অনেকেই!

  • Share this:

#কলকাতা: শীত এখনও আসেনি। আসবে আসবে করছে, এই যা! কিন্তু এর মধ্যেই মাঝে মাঝে টান ধরছে শ্বাস নিতে গিয়ে। চট করে হাঁফিয়ে পড়ছি আমরা অনেকেই! সব কিছুর নেপথ্যেই মূল কারণ বায়ুদূষণ। বাতাসে ভেসে বেড়ানো দূষিত বায়ুকণা আমাদের সুস্থ থাকার পথে বাধার সৃষ্টি করছে। এ হেন পরিস্থিতিতে শীত জাঁকিয়ে বসলে পাল্লা দিয়ে বাড়বে শ্বাসকষ্ট। তাই ফুসফুসজোড়া সুস্থ না রাখলেই নয়! দেখে নেওয়া যাক কোন পাঁচ যোগাসন শরীরের শ্বাসযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখে! ১. ধনুরাসন

মেঝেতে একটা ম্যাট পেতে প্রথমে পেটে ভর দিয়ে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। এ বার ধীরে ধীরে হাঁটুদু'টো একটু ভাঁজ করে নিতম্বের কাছে নিয়ে আসুন। হাতদু'টো পিছনে নিয়ে গিয়ে গোড়ালিদু'টো চেপে ধরুন। এ বার পা এবং হাত যতটা পারেন উপরের দিকে তুলে ধরে রেখে কিছুক্ষণ এই ভাবে থাকুন। ২. হস্ত উত্থাসন টানটান ভঙ্গিতে সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে হাতদু'টো উপরের দিকে তুলুন। হাতের পাতাদু'টো প্রণামের ভঙ্গিতে একে অপরের সঙ্গে জোড়া থাকবে, আপনার মাথা থাকবে দুই হাতের মধ্যে। এ বার চোখ খোলা রেখে খুব ধীরে ধীরে পিছনে একটু হেলে যান, হাঁটু যেন ভাঁজ না হয়! এ ভাবে কিছুক্ষণ থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুন, বেশ কয়েকবার অভ্যাস করুন। ৩. উষ্ট্রাসন ম্যাটের উপরে হাঁটু মুড়ে বসুন, হাতদু'টো রাখুন নিতম্বে। এ বার ধীরে ধীরে শরীরটা একটু তুলে ধরুন, পিছনে হেলে যান, হাতদু'টো রাখুন গোড়ালিতে। কিছুক্ষণ এ ভাবে থেকে ধীরে ধীরে নিশ্বাস ছেড়ে আগের অবস্থায় ফিরে আসুন। ৪. অর্ধচন্দ্রাসন বাম দিকের পা প্রসারিত করে দিন। একটি হাত মাটিতে রেখে ভর দিন। মাথা সোজা করে সামনের দিকে তাকান। এ ভাবে কিছুক্ষণ থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুন। ৫. চক্রাসন ম্যাটের উপরে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। পাদু'টো হাঁটু বরাবর ভাঁজ করে মাটিতে রাখুন। দুই হাত পিছনে নিয়ে গিয়ে মাটিতে ভর দিন। এই অবস্থায় ধীরে ধীরে যতটা পারেন শরীরটাকে তুলে ধরুন। কিছুক্ষণ থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুন।

Published by: Akash Misra
First published: November 18, 2020, 8:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर