লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিয়েবাড়িতে সবার নজর কাড়বে একটু অন্য ভাবে শাড়ি পরলেই, রইল টিপস!

বিয়েবাড়িতে সবার নজর কাড়বে একটু অন্য ভাবে শাড়ি পরলেই, রইল টিপস!

কঙ্গনার হিমাচলি স্টাইল ভালো না লাগলেও কুছ পরোয়া নেহি। লম্বা শ্রাগ বা লেদার জ্যাকেট (jacket) আছে নিশ্চয়ই?

  • Share this:

#কলকাতা: শাড়ি পরার হ্যাপা নেহাত কম নয়। ম্যাচিং ব্লাউজ আর অ্যাকসেসরি পাওয়া সত্যিই সৌভাগ্যের ব্যাপার। আর শীতকালে যেন শাড়ি এড়িয়ে চলাই ভাল! শাড়ির উপরে শাল বা চাদর জড়ালে লোকে দেখবে কী ভাবে যে শাড়িটা কত সুন্দর! হ্যাঁ, সোয়েটার বা কার্ডিগান পরা যায়, তবে সেটা অনেক সময়েই শাড়ির লুকের একদম দফারফা করে দেয়। মোটামুটি শাড়ি পরা নিয়ে এবং আরও সংক্ষেপে বললে শীতকালে শাড়ি পরা নিয়ে এটাই হল সারমর্ম।

আসলে ব্যাপারটা কিন্তু তা নয়। শাড়ির চেয়ে সুন্দর পোশাক আর আছে কি না সন্দেহ! বলিউডের (Bollywood) সুন্দরীরা কিন্তু শীত হোক বা গ্রীষ্ম, শাড়ি পরেই মাত করে দিচ্ছেন। তাঁদের থেকে একটু টিপস ধার করলেই এই শীতে বিয়ের সিজনে শাড়ি পরেই দিব্যি সবার চোখ ধাঁধিয়ে দেওয়া যায়।

শীতের কথাই উঠল যখন, তা হলে শীতের দেশের মেয়েকে দিয়েই শুরু করা যাক। হিমাচল প্রদেশের মানালির মেয়ে কঙ্গনা রানাউত (Kangana Ranaut)। ওখানে যে কত ঠাণ্ডা পরে, সে আর আলাদা করে বলার কিছু নেই! কুলু অঞ্চলের বিখ্যাত কুলু শাল আর মাথায় হিমাচলি টুপি পরেই কঙ্গনা ফুলহাতা ব্লাউজের সঙ্গে শাড়ি (Saree) পরেছেন। একদম অন্যরকম স্টাইল আর সত্যিই কুর্নিশ জানানোর মতোই স্টাইল।

কঙ্গনার হিমাচলি স্টাইল ভালো না লাগলেও কুছ পরোয়া নেহি। লম্বা শ্রাগ বা লেদার জ্যাকেট (jacket) আছে নিশ্চয়ই? নানা রকমের লম্বা জ্যাকেট বাজারে পাওয়া যায়, তার থেকে একটা বেছে নিলেই হল। তবে শাড়ি যদি খুব জমকালো বা প্রিন্টেড হয়, তা হলে একরঙা এবং হাল্কা শেডের জ্যাকেট পরতে হবে। আর শাড়ি সাদামাটা হলে ঠিক উল্টোটা। বলিউডে এই স্টাইল সব চেয়ে ভালো ক্যারি করেন করিশ্মা কাপুর (Karisma Kapoor)।

সোয়েটার শাড়ি-লুকের দফারফা করে দেবে বলে একে একদম হেলাফেলা করা ঠিক নয়। ফুলহাতা টার্টলনেক সোয়েটার ব্লাউজের পরিবর্তে ব্যবহার করা যায় অনায়াসে। যেমন অভিনেত্রী হিনা খান (Hina Khan) প্রায়শই করেন। তিনি পুলওভার আর সোয়েটারের সঙ্গে ম্যাচ করে শাড়ি পরেন।

জ্যাকেটের প্রেমে মজে আছেন সোনাক্ষী সিনহাও (Sonakshi Sinha)। সব সময়ে জ্যাকেট যে কন্ট্রাস্ট হতে হবে, তার কিন্তু কোনও মানে নেই। শাড়ির সঙ্গে একদম ম্যাচ করেও জ্যাকেট আলাদা করে তৈরি করে নেওয়া যায়। যেমন একটা পিচ রঙা নেটের শাড়ি হলে, ওই রঙেরই নেট কাপড় কিনে বানিয়ে নেওয়া যায় একটা জ্যাকেট।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: December 2, 2020, 5:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर