Home /News /life-style /
কয়েক মাসের মধ্যেই বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষা দেশে, সঠিক প্রস্তুতির জন্য রইল টিপস

কয়েক মাসের মধ্যেই বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষা দেশে, সঠিক প্রস্তুতির জন্য রইল টিপস

আগাম সতর্কতা নিয়ে, হাতে সময় নিয়ে পরীক্ষা সফল করতে চায় সব বোর্ড। সেই মতো মে থেকে দেশের প্রায় সমস্ত বোর্ডই পরীক্ষা নিতে চলেছে

  • Share this:

ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। একে একে খুলছে স্কুল। করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে গত বছর বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষা বাতিল হলেও এবার আগাম সতর্কতা নিয়ে, হাতে সময় নিয়ে পরীক্ষা সফল করতে চায় সব বোর্ড। সেই মতো মে থেকে দেশের প্রায় সমস্ত বোর্ডই পরীক্ষা নিতে চলেছে।

এই পরিস্থিতিতে এক বছরের একটা বড় গ্যাপে পরীক্ষার অনুশীলনের অভ্যাস অনেকেরই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ফলে আসন্ন বোর্ড পরীক্ষা তাদের কাছে একটা বড় চ্যালেঞ্জ। শক্ত হাতে, সঠিক প্রস্তুতি নিয়ে এই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়ার জন্য রইল টিপস-

১) একটা নির্দিষ্ট সময় নির্ধারণ করে দেওয়া

প্রতিটি বিষয়ের জন্য, বিশেষ করে যেগুলি কঠিন বিষয়, তার জন্য দিনে আলাদা করে সময় বেছে নিতে হবে। এর জন্য স্কুলের রুটিনের মতো ব্রেক টাইম-সহ একটি রুটিন বানিয়ে নিতে হবে। প্রত্যেকটি বিষয়কে আলাদা করে সময় দিতে হবে। কঠিন বিষয়ের জন্য বেশি সময় ধার্য করতে হবে।

২) চ্যালেঞ্জিং জায়গাগুলিকে গুরুত্ব দেওয়া

যে কোনও বিভাগেই চ্যালেঞ্জিং বিষয় থাকে। বা কোনও একটি বিষয়ে কোনও একটি অংশ নিয়ে সমস্যা থাকতে পারে, সেই অংশ বা অধ্যায়টিকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে।

৩) টেক্সট বই ভালো করে পড়তে হবে

যে কোনও পরীক্ষায় সফল হওয়ার চাবিকাঠি এই টেক্সট বইগুলি। সাধারণত সব প্রশ্ন এই বই থেকেই হয়। ফলে এই বইগুলি খুঁটিয়ে পড়া অত্যন্ত জরুরি।

৪) পড়ার মাঝে বিরতি নেওয়া ও যোগ অভ্যাস

অনলাইনে পড়ার ফলে অনেকেরই মানসিক সমস্যা, মানসিক অবসাদ তৈরি হয়েছে। তার একাধিক কারণ রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তাই পড়ার মাঝে ছোট ছোট বিরতি নেওয়া প্রয়োজন। পাশাপাশি ব্যায়াম বা যোগ অভ্যাস করা অত্যন্ত জরুরি। এতে পড়ায় মনোযোগ বসবে।

৫) পরীক্ষার আগের দিন বিধ্বস্ত হলে চলবে না

২০২০-২১ বর্ষের প্রত্যেক পরীক্ষার্থী অনেকটাই বাড়তি সময় পাচ্ছে। ফলে পরীক্ষার আগে পড়ব- এই বলে পড়া জমিয়ে রাখা উচিৎ নয়। পাশাপাশি পরীক্ষার আগের দিন রাতে কখনওই জেগে পড়া উচিৎ নয়। প্রস্তুতি তাই আগে থেকেই নিতে হবে।

৬) প্রশ্নপত্র পড়ার সময় ভালো করে পড়তে হবে

মাথায় রাখতে যে ১৫ মিনিট প্রশ্নপত্র পড়ার জন্য দেওয়া হয়, সেই ১৫ মিনিটই সিদ্ধান্ত নেবে কেমন হবে পরীক্ষার ফল। তাই এই ১৫ মিনিটে মাথা ঠাণ্ডা করে প্রশ্নপত্র পড়তে হবে ও কোন প্রশ্ন করা যেতে পারে সেগুলি দাগ দিয়ে নিতে হবে।

৭) MCQ-তে অতিরিক্ত গুরুত্ব দিতে হবে

মাথায় রাখতে হবে, MCQ থেকে প্রচুর নম্বর পাওয়া যায়। তাই প্রশ্নপত্রের এই দিকটিতে বাড়তি নজর দিতে হবে। ভালো করে MCQ শেষ করতে হবে।

৮) খাতায় উপস্থাপনা গুরুত্ব পাবে, সৌন্দর্য নয়

খাতায় কী ভাবে কোনও প্রশ্নের উত্তর লেখা হবে, সেটা গুরুত্ব পায়। অনেক রঙের কালি দিয়ে লেখা কিন্তু পছন্দ হয় না কারও। তাই পয়েন্টের জায়গা থাকলে পয়েন্ট করে লেখা, বুলেট করে চিহ্নিত করা ইত্যাদি মাথায় রাখা প্রয়োজন।

৯) উত্তর ভালো করে ভেবে নিতে হবে

অনেক সময়েই হয়- কী লিখতে চাই আর কী লিখি, এই দুইয়ের মধ্যে আকাশ-পাতাল পার্থক্য থাকে। তাতে নম্বর অনেকটাই কমে যায়। গুছিয়ে লিখলে উত্তর পড়তেও ভালো লাগে। ফলে আগে থেকে প্রশ্নের উত্তর গুছিয়ে নেওয়া প্রয়োজন। ভেবে নেওয়া প্রয়োজন কী লিখতে চাই!

১০) উত্তর লেখার সময় মাথা ঠাণ্ডা রাখা

প্রশ্ন পড়ার সময় যেমন মাথা ঠাণ্ডা রাখতে হবে, উত্তর লেখার সময়ও মাথা ঠাণ্ডা রাখা প্রয়োজন। একদম শেষ মিনিট পর্যন্ত লেখা উচিৎ নয়। এতে গুলিয়ে যেতে পারে। শেষে অবশ্যই চোখ বুলিয়ে নেওয়ার মতো সময় হাতে রাখা উচিৎ!

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: CBSE

পরবর্তী খবর