Home /News /life-style /

শুধুই শারীরিক সম্পর্কে ইচ্ছুক? কী ভাবে অন্যের সম্মতি আদায় করা যায়?

শুধুই শারীরিক সম্পর্কে ইচ্ছুক? কী ভাবে অন্যের সম্মতি আদায় করা যায়?

Representational Image

Representational Image

নাম প্রকাশ না করে পল্লবী জানিয়েছেন তেমনই এক যুবকের কথা যিনি এই ধরণের সম্পর্ক বজায় রাখতে ইচ্ছুক! কিন্তু তা কী ভাবে সম্ভব হতে পারে, সে বিষয়ে ওই যুবকের কোনও স্পষ্ট ধারণা নেই!

  • Share this:

#কলকাতা: সমস্যা হল, যৌনতা নিয়ে নানা বিষয়ে ছুঁৎমার্গ যেমন এখনও পর্যন্ত ভারতীয় সমাজের কাটেনি, তেমনই যৌনতার ক্ষেত্রে নানা পরিভাষা যা খুব বেশি করে সারা বিশ্ব জুড়ে পরিচিত, তার কোনও ভারতীয় প্রতিশব্দও তৈরি হয়নি। যেমন, এই পর্বের বিষয়। কোনও রকম মানসিক সূত্র ছাড়া, সম্পর্কের টানাপোড়েনে না গিয়ে শুধুই শারীরিক সম্পর্ক বজায় রাখার ব্যাপারটা পশ্চিমের দেশগুলোয় NSA বা No Strings Attached সম্পর্ক নামে পরিচিত। বিশেষজ্ঞা পল্লবী বার্নওয়াল জানিয়েছেন যে ভারতীয় সমাজে দেরিতে হলেও এই No Strings Attached সম্পর্ক ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। নাম প্রকাশ না করে পল্লবী জানিয়েছেন তেমনই এক যুবকের কথা যিনি এই ধরণের সম্পর্ক বজায় রাখতে ইচ্ছুক! কিন্তু তা কী ভাবে সম্ভব হতে পারে, সে বিষয়ে ওই যুবকের কোনও স্পষ্ট ধারণা নেই!

এ বিষয়ে সবার প্রথমে পল্লবীর সাফ বক্তব্য- কারও সঙ্গে শুধুই শারীরিক সম্পর্ক বজায় রাখতে গেলে কাজে এবং কথায় এক হতে হবে। অর্থাৎ উল্টোদিকের ব্যক্তিটিকে এমন কোনও ইঙ্গিত দেওয়া চলবে না যা থেকে তাঁর মনে হতে পারে অন্য পক্ষ তাঁকে ভালোবাসেন! এ ক্ষেত্রে কী করা উচিৎ এবং সেই মতো কী করা উচিৎ নয়, পল্লবীর পরামর্শ অনুসারে দেখে নেওয়া যাক এক এক করে!

১. সাফ কথা

কোনও রকম ছলনা চলবে না! কোনও রকম মাইন্ড গেম বা ইমোশন না দেখানোই উচিৎ হবে। কাউকে শুধুই শারীরিক ভাবে চাইলে সেটা শুরুতে তো বটেই, পাশাপাশি অন্য সময়েও স্পষ্ট করে দেওয়া উচিৎ। তাতে দুই পক্ষের মধ্যেই স্বচ্ছতা বজায় থাকবে।

২. ফ্লার্ট করা

বুদ্ধিমানের মতো ফ্লার্ট করতে পারলে তা যৌন সম্পর্কে উদ্দীপনা আনে। এ ক্ষেত্রে সঙ্গী বা সঙ্গিনীর মানসিক এবং শারীরিক সৌন্দর্যের বিশেষ করে প্রশংসা করা যেতে পারে। কিন্তু এমন কিছু কখনই বলা যাবে না যা ভালোবাসার ন্যূনতম ইঙ্গিত দেয়।

৩. হ্যাং আউট

যৌনতার আগে সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে কোনও রেস্তোরাঁয় বা সিনেমায় নিয়ে যাওয়া যেতে পারে। কিন্তু এটা স্পষ্ট করে দিতে হবে যে সেটা দুই পক্ষের সেক্সুয়াল টেনশন বাড়ানোর জন্য করা হচ্ছে, সরাসরি বিছানায় যাওয়ার আগে একটু নিজেদের ওয়ার্ম-আপ করা হচ্ছে।

৪. কোথায় পাব তারে

এটা খুব জরুরি প্রশ্ন। কোনও পার্টিতে কারও সঙ্গে আলাপ হলে বা কোনও সহকর্মীকে পরিস্থিতি বুঝে এমন প্রস্তাব দেওয়া যায় ঠিকই, কিন্তু তা থেকে পরে জটিলতাও তৈরি হতে পারে। তাই এ ক্ষেত্রে Tinder, Bumble, OKCupid, Grindr, Hinge-এর মতো ডেটিং অ্যাপের সাহায্য নেওয়া যায়। কিন্তু সেখানে বায়োতে এই No Strings Attached সম্পর্কের কথা স্পষ্ট করে দেওয়া প্রয়োজন।

৫. নিজের সুরক্ষা

এটা শারীরিক এবং মানসিক দুই দিক থেকে প্রযোজ্য। কমফর্টেবল ফিল না করলে কারও বাড়িতে বা কোনও হোটেলে এক ডাকে চলে না যাওয়াই ভালো! তেমনই অসুরক্ষিত যৌনতায় প্রবৃত্ত হওয়া চলবে না। আর কেউ প্রত্যাখ্যান করলে সেটা সহজ ভাবে নিতে হবে। তা হলেই শারীরিক-মানসিক দুই দিক থেকে সুস্থ থাকা যাবে!

Pallavi Barnwal

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Sexual Wellness

পরবর্তী খবর