লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্রথমবার সঙ্গমের সময়ে এই চার কথা মাথায় না রাখলেই নয়, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ

প্রথমবার সঙ্গমের সময়ে এই চার কথা মাথায় না রাখলেই নয়, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ

প্রথমবারের সঙ্গমের অভিজ্ঞতা নিয়ে কী ধরনের দ্বিধা থাকে এবং তা কী ভাবে কাটিয়ে ওঠা যায়, জেনে নিন

  • Share this:

#কলকাতা: যৌনতায় প্রবৃত্ত হওয়ার বিষয়টি নিয়ে অনেকের মনে অনেক রকমের অনিচ্ছা তৈরি হয়। সে ক্ষেত্রে অনিচ্ছা কাটিয়ে আবার কী ভাবে ফেরা যায় রতিসুখের চূড়ান্তে, তা নিয়ে এর আগে নানা পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞা পল্লবী বার্নওয়াল। কিন্তু এবারের বিষয়টি একটু অন্য। এই পর্বে তিনি কথা বলেছেন প্রথমবারের সঙ্গমের অভিজ্ঞতা নিয়ে কী ধরনের দ্বিধা থাকে এবং তা কী ভাবে কাটিয়ে ওঠা যায়, সেই বিষয়ে!

পল্লবী জানিয়েছেন যে পাঠক-পাঠিকাদের অনেকেই এই মর্মে তাঁকে চিঠি দিয়েছেন। যৌন অভিজ্ঞতা না হওয়া এঁদের সবারই বক্তব্য মোটের উপরে এক- সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে তাঁরা তৃপ্তি দিতে পারবেন কি না, সে নিয়ে তাঁদের মনে সন্দেহ আছে। পাশাপাশি, অনেকে আতঙ্ক প্রকাশ করেছেন ব্যথা পাওয়া বা দেওয়ার ব্যাপারটি নিয়ে।

পল্লবীর পরামর্শ- এই সব দ্বিধাই অকারণ। কেন, সে বিষয়ে তাঁর চার পরামর্শের দেখে এবার নজর দেওয়া যাক!

১. পর্নোগ্রাফির কথা ভুলে যেতে হবে - যাঁরা সঙ্গী সা সঙ্গিনীকে তৃপ্ত করার ব্যাপারে অসহায় বোধ করছেন, তাঁদের জন্য বিশেষ করে এই পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন- পর্নোগ্রাফি আর যৌনতাকে এক করে ভাবলে চলবে না। কেন না, পর্নোগ্রাফি একটা তৈরি করা জিনিস। অন্য দিকে, যৌনতা স্বতস্ফূর্ত। তাই তিনি বলছেন যে পর্নোগ্রাফিতে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত অভিনেতারা যা করেন, সেটাকেই আদর্শ বলে ধরে নেওয়া ঠিক হবে না। নিজের মন এবং শরীর যে ভাবে সুখ চাইছে, সেই পন্থাই অনুসরণ করা ভালো হবে।

২. লুব্রিকেন্টের ব্যবহার - প্রথমবার সঙ্গমের সময়ে ব্যথা পাওয়ার বা দেওয়ার আতঙ্ক অনেককেই অস্থির করে রাখে। পল্লবীর পরামর্শ- এক্ষেত্রে লুব্রিকেন্টের ব্যবহার বাঞ্ছনীয়। তা যোনি বা পায়ুপথকে পিচ্ছিল করে শরীরে প্রবেশের মুহূর্তটি সুখকর করে তুলবে। তবে ব্যথা যে একেবারেই লাগবে না, তা কিন্তু তিনি বলছেন না। তাঁর পরামর্শ- প্রথম কয়েক মুহূর্তের সেই ব্যথা সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে ঘন ঘন চুম্বন বা আদরের মাধ্যমে সহনীয় করে তুলতে হবে।

৩. সুরক্ষিত যৌনতা - প্রথমবার সঙ্গমের সময়ে পল্লবী সুরক্ষিত যৌনতার দিকটি মাথায় রাখতে বলছেন। এক্ষেত্রে কন্ডোমের ব্যবহার ভুললে চলবে না। তবে তিনি এটাও বলেছেন যে অনেকে অতিরিক্ত সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে একটি কন্ডোমের উপরে আরেকটি কন্ডোম পরেন। যাকে ইংরেজিতে ডবল ব্যাগিং বলে। কিন্তু এই পদ্ধতি সুরক্ষা দেয় না। উল্টে ঘষা লেগে দু'টি কন্ডোমই ছিঁড়ে যেতে পারে। তাই ভালো গুণমানের একটি কন্ডোম ব্যবহার করাই যথেষ্ট। আর একটা কথাও এ প্রসঙ্গে উল্লেখ করেছেন পল্লবী। যদি লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করা হয়, তা হলে নিরোধক লুব্রিকেন্ট কেনাটাই ঠিক হবে। অন্যথায়, কন্ডোম বার বার নেমে আসতে পারে!

৪. অতিরিক্ত সজাগ না থাকা - যৌনতা এবং তার অভিব্যক্তি স্বতস্ফূর্ত হওয়াটাই বাঞ্ছনীয়। পল্লবী বলছেন যে এক্ষেত্রে কারও কাছে নিজের দক্ষতা প্রমাণের কোনও প্রশ্নই ওঠে না। তাই সজাগ না থেকে প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করা ঠিক হবে। পাশাপাশি, সঙ্গী বা সঙ্গিনী, কী চাইছেন, সেটা জেনে নিয়ে সেই মতো এগোনো যায়। একই সঙ্গে, নিজে কী চাইছেন, সেটাও অন্য পক্ষকে জানাতে হবে।

Pallavi Barnwal

Published by: Ananya Chakraborty
First published: January 12, 2021, 4:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर