ভালোটা নয়, সম্পর্ক খুঁড়ে আনছে স্বভাবের সব চেয়ে খারাপ দিক! জানান দেবে এই লক্ষণগুলো!

Representational Image

Signs a guy brings out the worst in you: কাছের মানুষটির সঙ্গে যদি সারাক্ষণ ঝামেলায় জড়িয়ে থাকতে হয় তাহলে সম্পর্কে ক্লান্তি আসাই স্বাভাবিক।

  • Share this:

অনেক সম্পর্ককে বাইরে থেকে দেখলে মজবুত মনে হলেও ভেতরে অনেক খামতি থেকে যায়। সম্পর্কে অনেকসময়ই আমাদের চরিত্রের ভালো দিকের পরিবর্তে বেড়িয়ে আসে সবচেয়ে খারাপ দিকগুলো। কিছু ছোট ছোট লক্ষণেই সেগুলো ধরা পড়ে। আসুন এই সাতটি লক্ষণ সম্পর্কে আমরা জেনে নিই।

পার্টনারের কারণে অন্য সম্পর্ককে অবহেলা করা

ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে একসঙ্গে সময় কাটানো স্বাভাবিক। কিন্তু একইসঙ্গে অন্য সম্পর্ককে যদি একেবারেই অবহেলা করতে হয় তবে বুঝতে হবে কোথাও সমস্যা আছে। সেক্ষেত্রে ক্রমাগত বন্ধুদের বা পরিবারের মানুষকে সময় না দেওয়া ঠিক নয়। যে কোনও সুস্থ সম্পর্কের মতো পার্টনার যদি ভালো চান তিনি এই বিষয়ে সচেতন থাকবেন।

সম্পর্কে ক্লান্তি আসা

কাছের মানুষটির সঙ্গে যদি সারাক্ষণ ঝামেলায় জড়িয়ে থাকতে হয় বা অশান্তি লেগে থাকে তাহলে সম্পর্কে ক্লান্তি আসাই স্বাভাবিক। এর থেকে নানান মানসিক সমস্যা হতে পারে যেমন ঠিক সময় কিছু খুঁজে না পাওয়া, কাজে মন না বসা ইত্যাদি। এই ধরণের সম্পর্ক শেষ পর্যন্ত আমাদের এক মানসিক শূন্যতার দিকে ঠেলে দেয়।

পার্টনারের স্বপ্নকে বা জীবনের লক্ষকে সাপোর্ট না করা

এঁরা সাধারণত পার্টনারের কোনও স্বপ্ন বা ইচ্ছেকে গুরুত্বই দিতে চান না। সুস্থ সম্পর্কে এমনটা হওয়ার কথা নয়। একে অপরের পাশে থাকা, ভালোবাসার মানুষের স্বপ্ন পূরণ করতে যে কোনওভাবে সাহায্য করা সম্পর্ককে মজবুত করে।

তুচ্ছ বিষয়ে রেগে যাওয়া

সম্পর্কে তিক্ততা থেকে যখন আমাদের সবচেয়ে খারাপ দিকগুলো বেড়িয়ে পড়ে তখন খুব সামান্য বিষয়েই আমরা রেগে যাই চিৎকার করি, নিজেদের সংযত করতে পারি না।

খারাপ ব্যবহারে সায় দেওয়া

একে অপরের খারাপ দিকগুলো চিনিয়ে দিয়ে নিজেদের শুধরে নিতে চাইলে তবেই সম্পর্ক একটা সুস্থ পরিণতির দিকে এগিয়ে যায়। কিন্তু পার্টনার অন্য প্রকৃতির হলে সে কিছুতেই ভালোবাসার মানুষটিকে পরিবর্তিত হতে দেখতে পারে না।

সম্পর্কে নিজের অস্থিত্ব খুঁজে না পাওয়া

আমি কেমন সেটা বোঝাতে গিয়েই যদি সম্পর্কে অনেকটা সময় কেটে যায় তাহলে বুঝতে হবে পার্টনার আদেও আমাকে নিয়ে ইন্টারেস্টেড নয়। যে সম্পর্কে না চাইতেই নিজেকে মেলে ধরা যায় তার কাছেই সম্ভবত আমরা নিজেকে সবচেয়ে ভালোভাবে প্রকাশ করতে পারব।

সম্পর্কে নিজেকে ছোট করে দেখানো

ভালোবাসা কোনও কম্পিটিশন নয়। সেখানে কারোর হারা বা জেতার প্রশ্নই ওঠে না। কিন্তু কেউ যদি আমাদের সারাক্ষণ ছোট করার চেষ্টা করে, ভুল-ত্রুটি দেখানোর চেষ্টা করে সেটা একেবারেই সুলক্ষণ নয়। সেক্ষেত্রে এই ধরনের সম্পর্ক যত তাড়াতাড়ি ছেড়ে আসা যায় ততই ভালো।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: