Home /News /life-style /

Polished rice : কী ভাবে চাল পালিশ করা হয়? নিয়মিত পালিশ করা চাল খাওয়া ক্ষতিকারক কেন জানেন?

Polished rice : কী ভাবে চাল পালিশ করা হয়? নিয়মিত পালিশ করা চাল খাওয়া ক্ষতিকারক কেন জানেন?

নিয়মিত পালিশ করা চাল খাওয়া ক্ষতিকারক কেন জানেন

নিয়মিত পালিশ করা চাল খাওয়া ক্ষতিকারক কেন জানেন

Polished rice : পালিশ করা চাল বলতে সেই চাল বোঝায় যা ভুসি, তুষ, জীবাণু এবং কিছু পরিমাণে পুষ্টি বের করে তৈরি হয়!

  • Share this:

#কলকাতা: প্রশ্নটা এখানে ভেজালের নয়। নিখাদ পুষ্টিগুণের। কেন না, ধান থেকে যখন চাল তৈরি করা হচ্ছে, সেই প্রক্রিয়ার মধ্যেই থেকে যাচ্ছে পুষ্টির ব্যাপার। কখনও বা সেই পুষ্টিগুণ হারিয়ে যাচ্ছে, আবার কখনও কখনও থাকছে অটুট। এই ব্যাপারের উপরে ভিত্তি করেই রোজ যে চাল আমরা খেয়ে থাকি, তাকে ভাগ করা যায় দুই ভাগে। এর মধ্যে একটিকে বলা হচ্ছে পালিশ করা চাল এবং অন্যটি সেই দিক থেকে পালিশহীন চাল।

খাদ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, পালিশ করা চাল বলতে সেই চাল বোঝায় যা ভুসি, তুষ, জীবাণু এবং কিছু পরিমাণে পুষ্টি বের করে তৈরি হয়, যার ফলে তা একটি স্টার্চ-সমৃদ্ধ শস্যে পরিণত হয়।

পালিশ ছাড়া চাল কী

পালিশহীন চাল হল চাল থেকে ভুসি সরানো হয় কিন্তু তুষ আংশিক বা সম্পূর্ণরূপে অবশিষ্ট থাকে, ফলে চাল স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর হয়ে ওঠে।

চাল কী ভাবে পালিশ করা হয়

একটি রাইস পলিশিং মেশিনের মাধ্যমে চালের গঠন ও স্বাদ পরিবর্তন করা হয়৷ ভারতে এই ভাবে ব্রাউন রাইসকে হোয়াইট রাইস করা হয়। এই যন্ত্রগুলিতে ধানের শস্যের বাইরের আবরণ সরানোর জন্য ট্যাল্ক বা অন্যান্য উপাদানের সূক্ষ্ম ধুলো ব্যবহার করা হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, পলিশিং প্রক্রিয়ায় তুষ বের করার জন্য ধানের বীজ মাইলিম করে বাদামি চাল তৈরি হয়, তার পরে তুষ বের করা হয়।

আরও পড়ুন- ত্বকের যত্নে একাই একশো প্রিবায়োটিক, জানুন কী ভাবে তা ভালো রাখে ত্বককে!

পালিশ করা চাল এবং পালিশহীন চালের পার্থক্য কোথায় হয়

পালিশ করা চাল চকচকে এবং সাদা রঙের হয়, অন্য দিকে পালিশহীন চাল বাদামি রঙের হয়। প্রথম প্রকারের চালের ধরন মসৃণ এবং শেষেরটি অসম হয়। পালিশ না করা চালের তুলনায় পালিশ করা চালের আঁশের পরিমাণ খুবই কম থাকে। পালিশ করা চাল রান্না করা সহজ এবং এতে সময়ও কম লাগে। সর্বোপরি, পালিশ করা চালের পুষ্টিগুণ খুবই কম, অন্য দিকে পালিশহীন চালে প্রচুর পরিমাণে আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, জিঙ্ক এবং ক্যালসিয়াম থাকে।

আরও পড়ুন- নতুন বছরে দাঁত হোক মজবুত, শুধু রোজ ডায়েটে থাক এই ৬ খাবার!

পালিশ করা চাল খাওয়া কি ভালো

দেখা গিয়েছে যে পালিশ করা চালে তুলনায় কম বায়োটিন, খনিজ, নিয়াসিন, প্রোটিন এবং ফ্যাটি উপাদান থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ফাইবার বের করে নেওয়া এবং প্রোটিন কমে যাওয়ায় এটি অসম্পূর্ণ ডায়েটে পরিণত হয়।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Food, Rice

পরবর্তী খবর