Home /News /life-style /
ছেলেমেয়েরা সিগারেট খেলে টেরও পাচ্ছেন না মা-বাবা, কপাল চাপড়াচ্ছে মার্কিন মুলুক !

ছেলেমেয়েরা সিগারেট খেলে টেরও পাচ্ছেন না মা-বাবা, কপাল চাপড়াচ্ছে মার্কিন মুলুক !

এখন সকলের কাছেই স্মার্টফোন রয়েছে। এই ফোনে ধূমপান থেকে বেরোনোর জন্য অনেক ধরনের অ্যাপ পাওয়া যায়, সেগুলি ডাউনলোড করতে পারেন।

এখন সকলের কাছেই স্মার্টফোন রয়েছে। এই ফোনে ধূমপান থেকে বেরোনোর জন্য অনেক ধরনের অ্যাপ পাওয়া যায়, সেগুলি ডাউনলোড করতে পারেন।

যে কোনও গবেষণা বা সমীক্ষার আসল কথাও সেটাই। প্রথমে একটা কিছু অনুমান করে নিতে হবে, তার পরে খুঁজতে হবে তার প্রত্যক্ষ বা সরাসরি প্রমাণ।

  • Share this:

#নিউইয়র্ক: মার্কিন মুলুকের কথা বলতে গিয়ে আগে একটু প্রাচীন ভারতীয় দর্শনশাস্ত্রের কথা বলা জরুরি। উঁহু, ভারতীয় দার্শনিকরা ধূমপান নিয়ে কিছু বলেননি বা লেখেননি। তাঁদের বক্তব্য শুধু ধোঁয়া আর আগুন নিয়ে। এ হেন মতামত জানাচ্ছে যে তথ্যের আবিষ্কার করতে হলে আমাদের দুই বিষয়ের উপরে ভর দিয়ে চলতে হয়। একটা হল প্রত্যক্ষ, আরেকটা হল অনুমান। যে কোনও গবেষণা বা সমীক্ষার আদত কথাও সেটাই। প্রথমে একটা কিছু অনুমান করে নিতে হবে, তার পরে খুঁজতে হবে তার প্রত্যক্ষ বা সরাসরি প্রমাণ। ঠিক যেমনটা করেছেন সম্প্রতি ক্যালিফোর্নিয়ার স্যান ফ্রান্সিসকোর এক অধ্যাপক এবং দন্তরোগবিদ বেঞ্জামিন শ্যাফ।

তা, ভারতীয় দর্শন ওই তথ্যের আবিষ্কারের দিক থেকে একটা উদাহরণ দিয়ে থাকে- যেখানে ধূম, সেখানেই বহ্নি! মানেটা সোজা- ধোঁয়া দেখা গেলে একেবারে নিশ্চিত হওয়া যাবে যে সেখানে আগুন আছে। কিন্তু সখেদে জানিয়েছেন বেঞ্জামিন শ্যাফ- মার্কিন মুলুকের মা-বাবারা ধোঁয়াও দেখতে পাচ্ছেন না, ফলে আগুন জ্বালিয়ে বা না জ্বালিয়ে ছেলেমেয়ে যে সুখটানে মেতেছে, সেটা তাদের অজানাই থেকে যাচ্ছে!

এই জায়গায় এসে প্রাথমিক কিছু তথ্য আবার না দিলেই নয়। যেমন শ্যাফ তাঁর সমীক্ষা চালিয়েছেন সিগারেটের চেয়েও বেশি করে ই-সিগারেট এবং অন্য তামাকজাত জিনিস নিয়ে। কেন না, সিগারেট খেতে শুরু করলে তা বেশি দিন লুকিয়ে রাখা শক্ত। কিন্তু ই-সিগারেটের কথা যদি ধরা হয়, সে ক্ষেত্রে তামাকের কড়া গন্ধ গায়ে লেগে থাকার সমস্যা নেই। আবার অন্য তামাকজাত জিনিস মুখে পুরে দিলেও চট করে বোঝা কঠিন!

কাজেই শ্যাফের সমীক্ষা বলছে, মার্কিন মুলুকে আপাতত মা-বাবারা ছেলেমেয়েদের তামাক নেওয়া বন্ধ করতে প্রায় ব্যর্থ! এ বিষয়ে আবার মা এবং বাবাদের মধ্যে দলও ভাগ করেছেন শ্যাফ। বলছেন, মায়েরা না কি এ বিষয়ে অনেক চটপটে হয়ে থাকেন, সহজেই বুঝতে পারেন যে সন্তান তামাকের নেশা ধরেছে কি না! কিন্তু বাবাদের তা বুঝে উঠতে অনেকটা দেরি হয়ে যায়।

মার্কিন মুলুকের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী ২৩,০০০ ছেলেমেয়ের উপরে সমীক্ষা করে আরও একটা তথ্য পেয়েছেন শ্যাফ। যদিও তা এমন কিছু আহামরি নয়। তিনি দেখেছেন যে সব পরিবারে তামাক নিয়ে খুব কড়াকড়ি থাকে, সে সব পরিবারের ছেলেমেয়েদের এই নেশায় মজার সম্ভাবনা তুলনামূলক ভাবে ২০-২৬% কম হয়!

তবে প্রহ্লাদ তো দৈত্যকুলেই জন্মেছিলেন। তাই ব্যতিক্রমের দিকটা ভেবে আপাতত কুলকিনারা পাচ্ছেন না শ্যাফ! স্বাভাবিক, তামাকের অভ্যেস ছাড়ানো সহজ না কি! তা ছাড়া যে কোনও দেশের সরকার তামাক চাষ করে পয়সা জমায়, সে কথাটাও মাথায় না রাখলেই নয়!

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Cigarette

পরবর্তী খবর