#ViralVideo: মালাবদলে বড় চমক! স্বামী-স্ত্রী পরস্পরকে প্রণাম, প্রশংসায় ভরালেন আত্মীয় স্বজনেরা, সুপার ভাইরাল ভিডিও

#ViralVideo: মালাবদলে বড় চমক! স্বামী-স্ত্রী পরস্পরকে প্রণাম, প্রশংসায় ভরালেন আত্মীয় স্বজনেরা, সুপার ভাইরাল ভিডিও

বদলেছে সময় স্বামী-স্ত্রী পরস্পরের প্রতি সম্মানই সাংসারিক জীবনের দীর্ঘায়ু বাড়িয়ে দেয়, বৃদ্ধি করে বাঁচার ইচ্ছাও

বদলেছে সময় স্বামী-স্ত্রী পরস্পরের প্রতি সম্মানই সাংসারিক জীবনের দীর্ঘায়ু বাড়িয়ে দেয়, বৃদ্ধি করে বাঁচার ইচ্ছাও

  • Share this:

    দুই মনের মিলনই হল বিয়ে, স্বামী-স্ত্রীর শুভ পরিণয়ের মাধ্যমেই নতুন জীবনে পদাপর্ণ করে জীবনের সব হাসি কান্না ভাগ করে নেওয়ার নামই জীবন ৷ পরকে আপন করার অন্যতম সামাজিক ও মানবিক পদ্ধতিই হল বিয়ে ৷ দধিমঙ্গল, জল সইতে যাওয়া, গায়ে হলুদ, বৃদ্ধি বা নান্দীমুখ, সম্প্রদান, মালাবদল, সাত পাকে বাঁধা, বাসি বিয়ে ইত্যাদির মাধ্যমে বিয়ের নানান রীতিনীতি মানতে হয়, অবশ্য যাঁরা সামাজিক বা শাস্ত্রমতে বিয়ে করেন তাঁদের জন্যই এই নিয়ম ৷ বিয়ের আসল অর্থ আগামী দিনে আরও সুখী হওয়া ৷ জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত সুখের সঙ্গে অতিবাহিত করা ৷ স্বামী-স্ত্রীর পরস্পর-পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা ভালবাসার মাধ্যমেই গড় উঠতে পারে ৷

    ভালবাসা ছাড়া শ্রদ্ধা আসেনা আর ভক্তি-শ্রদ্ধা ছাড়া কিছু শেখাই যায়না, একটি কথা প্রচলিত আছে "শ্রদ্ধাবান লভতে জ্ঞানম ৷" অর্থাৎ প্রকৃত শ্রদ্ধাবানেরাই জ্ঞান আহরণ করতে পারে ৷ মন্ত্রপাঠ করে দুই যদি অং হৃদয়ং তব, তদস্তু হৃদয়ং মম ৷ এরপরেই সারা জীবনই নয় সাত জন্মের জন্য বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার প্রতিশ্রুতি সুখে দুঃখে পাশে থাকার অঙ্গীকার নিয়েই পথ চলার শুরু ৷ বিয়ের এমনই এক দৃশ্য যা বারেবারে একটি কথাই জানান দেয় বদলেছে যুগ পাল্টেছে চিন্তাধারা ৷

    বিয়ের মালাবদলের পরে স্ত্রী স্বামীকে প্রণাম করার পরে স্বামীও স্ত্রীকে প্রণাম করছেন ৷ কোনও মানুষের প্রণাম নেওয়ার মত যোগ্যতা নেই ৷ কোনও মানুষ অন্য মানুষকে প্রণাম করেন প্রতীকী রূপে, শারীরিক ভাবে না হলেও মনে মনে সবারই প্রণাম ফেরৎ দেওয়া উচিৎ, কেননা ব্যক্তি হিসাবে প্রত্যেকে প্রত্যেকের কাছে প্রণম্য ৷

    এই ভিডিওটি গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করা হয়েছে ৷ প্রতি মুহূর্তেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভিউ ৷ এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই ভিডিওটি আরও একবার ৷ যদিও এই ভিডিও-র সত্যতা আমরা যাচাই করিনি ৷

    Published by:Arjun Neogi
    First published: