বাড়ির দেওয়ালে চকখড়ির রহস্যময় দাগ, ভয় পেয়ে শহর ছাড়ছেন ইংল্যান্ডের লোকেরা!

বাড়ির দেওয়ালে চকখড়ির রহস্যময় দাগ, ভয় পেয়ে শহর ছাড়ছেন ইংল্যান্ডের লোকেরা!

বাড়ির দেওয়ালে চকখড়ির রহস্যময় দাগ, ভয় পেয়ে শহর ছাড়ছেন ইংল্যান্ডের লোকেরা!

ভয় পেয়ে গিয়েছেন অধিবাসীরা, অনেকেই বাড়ি ছেড়ে নিরাপদ থাকতে চলে যাচ্ছেন অন্যত্র। সব মিলিয়ে এক অস্বস্তিতে ভুগছে শহর।

  • Share this:

#লন্ডন: আরব্য রজনীর আলিবাবা আর চল্লিশ চোরের গল্পের একটা জায়গা একটু বলে নিতেই হবে! কেন না, হুবহু তেমনটাই ঘটছে তাঁদের সঙ্গে, এই কথা দাবি করছেন ইংল্যান্ডের নর্দাম্পটনশায়ারের অধিবাসীরা।

তো, আরব্য রজনীর সেই গল্প বলছে যে গুহাভরা ধনরত্ন সব লোপাট হয়ে যেতে দেখে চোরেরা কে বাটপাড়ি করল তাদের উপরে, সেই তদন্তে নামল। খুঁজেও পেল আলিবাবার বাড়ি। ফেরিওলার ছদ্মবেশে ঘুরে গেল এক চোর সেই বাড়ি থেকে আর চিনতে পারার সুবিধার জন্য বাড়ির দরজায় একটা চকখড়ির দাগ দিয়ে গেল। আলিবাবার দাসী মর্জিনা বুদ্ধি করে শহরের সব বাড়ির দোরে রাতের বহেলা ওই রকম চকখড়ির দাগ দিয়ে রেখেছিল, তাই সে যাত্রা আর চোরেরা বাড়ি খুঁজে পায়নি!

কিন্তু এই পদ্ধতি নর্দাম্পটনশায়ারের ক্ষেত্রে খাটবে না। কেন না, সেখানে রহস্যময় ব্যক্তি বা সম্ভাব্য ডাকাত কোনও একটা বাড়ির দেওয়ালে চকখড়ির দাগ দেয়নি, দিয়েছে বেশ কয়েকটা বাড়িতে। সেই সঙ্গে এলাকায় কুকুর আর গাড়ি চুরি তো লেগেই আছে! তাই হালে এই দাগ দেখে ভয় পেয়ে গিয়েছেন অধিবাসীরা, অনেকেই বাড়ি ছেড়ে নিরাপদ থাকতে চলে যাচ্ছেন অন্যত্র। সব মিলিয়ে এক অস্বস্তিতে ভুগছে শহর।

দ্য মিরর সংবাদপত্র এই প্রসঙ্গে তাদের প্রতিবেদনে তুলে ধরেছে গেমা স্মলবোনস নামে এক বৃদ্ধার কথা। তিনি জানিয়েছেন যে একদিন এক ব্যক্তি ইলেকট্রিক অফিসের নাম করে তাঁর বাড়িতে আসেন। গেমা জানিয়েছেন যে ওই ব্যক্তি মূল কাচের দরজার সঙ্গে প্রায় লেপটে দাঁড়িয়েছিলেন, যেন তিনি ঘরের ভিতরটা উঁকি দিয়ে দেখছেন! তাতেই গেমার অস্বস্তি হয়, তিনি ওই ব্যক্তিকে ঘরে ঢুকতে দেননি। এর পর ইলেকট্রিক অফিসে ফোন করলে তারা বলে যে কোনও সেলসম্যান পাঠানো হয়নি। পরের দিন গেমা তাঁর বাড়ির দেওয়ালে চকখড়ির দাগ দেখেন!

অবশ্য, শুধুই বৃদ্ধা নয়, এই রহস্যময় ব্যক্তির পাল্লায় পড়েছেন ক্রিস্টি ক্লেফোর্থ লি। তিনি তাঁর বাড়ির সামনে একই রকম চেহারার এক ব্যক্তিকে ঘোরাফেরা করতে দেখেছিলেন। ক্রিস্টি ব্যাপারটা দেখতে যেতেই সে পালিয়ে যায়। এবং ক্রিস্টি দেখেন যে দেওয়ালে চকখড়ির দাগ রয়েছে। স্কুল থেকে ফিরে এসে এর পর ক্রিস্টি তাঁর বাড়ির সামনের বেড়ার গায়েও চকখড়ির দাগ দেখেন।

পুলিশ জানিয়েছে যে সিসিটিভি ফুটেজে এমন বেশ কিছু সন্দেহজনক লোকজনের আনাগোনা তারা নজর করেছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধরা যায়নি। কবে তাদের আবার দেখা পাওয়া যাবে, সেই অপেক্ষায় আছে তারা। পাশাপাশি, এমন কাউকে দেখলে সঙ্গে সঙ্গে থানায় ফোন করারও নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

Published by:Debalina Datta
First published:

লেটেস্ট খবর