পুরুষের বাহারি সাজ!

পুরুষের বাহারি সাজ!
Representative Image
  • Share this:

ARUNIMA DEY

#কলকাতা: বিয়ে বাড়ি হোক বা অন্য কোনও অনুষ্ঠান, ছেলেদের রেডি হতে আর কতক্ষণ লাগে। মেয়েরাই নাকি সময় নিয়ে ফেলেন। আজ্ঞে না, এখন আর তা খাটে না। মেন’স ফ্যাশন-এর জেরে পুরুষরাও সময় নিয়ে রেডি হন। রীতি মতো সাজেন। শীতের সময় মানে ফেসটিভ সিজনে পুরুষের সাজ ঠিক কেমন হবে? তারই হদিশ থাকল...

সাজপোশাক বা বেশভূষা। কপিরাইট-টা মেয়েদের একচেটিয়া বলেই ভাবেন অনেকে। তবে পুরুষেরাও পিঁছিয়ে নেই। মেন’স ফ্যাশন প্রতিদিন তৈরি করছে নতুন সংজ্ঞা। ফ্যাশন আসলে আপনার ইনার ভয়েস। দামী পোশাক পরলেই ফ্যাশনেবল হওয়া যায়, এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। প্রচুর সুন্দর পোশাক পরলেন, অথচ ক্যারি করতে পারলেন না, তাহলে আপনাকে কিন্তু একেবারেই ভাল দেখাবে না। পোশাক কেনার আগে নিজের স্টাইলটা খুঁজে বের করা প্রয়োজন।

ফর্মাল, ক্যাজুয়াল, পার্টি-- তিন ভাগেই মূলত ভাগ করা হয় পোশাক। তবে এখন লাইন ব্লার হয়ে এসেছে। অলটারনেটিভ ক্লোদিং বা ফিউশন পোশাক নিয়ে পরীক্ষা-নিরিক্ষা করছেন পুরুষেরা। এই ধরুন ক্যাজুয়াল লুকের জন্য শীতের সময় হুডি বা সুয়েট শার্ট পরুন। সঙ্গে টিম আপ করুন জিন্স। ফর্মালের মধ্যেই কিন্তু রয়েছে অনেক বিভাজন। কলকাতায় মূলত সেমি ফর্মাল পোশাকই বেশি পরেন পুরুষেরা। সাদা শার্টের সঙ্গে একটা কটন প্যান্ট পরুন। তার ওপর চাপিয়ে নিতে পরেন একটা ভি নেক, বা টারটাল নেক সোয়েটার। শার্টটা ইন না করে সোয়েটারের নীচে একটু বের করে রাখলেন এবং ফোল্ড করে নিলেন শার্টের হাতা। আপনি নজর কাড়তে বাধ্য। লং কুর্তার সঙ্গে ক্যাজুয়াল ব্লেজার কিংবা ওয়েস্টার্ন জ্যাকেট টিম আপ করুন। সঙ্গে পরুন টর্নড জিন্স। ভিড়ে আপনাকে আলাদা করার জন্য এইটুকুই যথেষ্ট।

নিজের মতো করে স্টাইল তৈরি করে চলেছেন অভিনেতা থেকে স্পোর্টস পার্সন। এমনকী, রাজনৈতিক নেতারাও। বিরাট কোহলি ইন্ডো-ওয়েস্টার্ন পোশাক দারুণ ক্যারি করেন। বলিউডের দিকে তাঁকালে সকলেরই রণবীর সিং-এর কথা মনে পড়বে। তিনি যে ধরনের পোশাক কমফোর্ট-এর সঙ্গে পরেন অন্য কোনও পুরুষ সেটা পারার কথা ভাববেন পর্যন্ত না। নহেরু জ্যাকেট, মোদি কুর্তা কিংবা কোট কিন্তু অনেকের ইনস্পিরেশন।

বিয়ের সিজন, সাজতে তো হবেই। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এথনিক পোশাকই পরবেন, সেটা ধরে নেওয়া যায়। কয়েকটা জিনিস মনে রাখা প্রয়োজন। চেস্ট দেখিয়ে লং ভি নেক কুর্তা মডেলদেরই ভাল লাগে, সেটা না পরাই ভাল। চকচকে, প্রচুর মিরর ওয়ার্কযুক্ত কুর্তা না পরে ঝুঁকুন সোবারের দিকে। জিন্সের সঙ্গে কুর্তা পরলে অবশ্যই হাতা গোটান। স্মার্ট দেখাবে। কুর্তার মধ্যে ম্যাক্সিমাম তিনটে রং থাকতে পারে। এর চেয়ে বেশি থাকলে রংগুলো খুলবে না। ইন্ডিয়ান পোশাকের সঙ্গে স্পোর্টস শু বা স্নিকার্স কোনও মতেই পরা উচিত নয়। কোলাপুরি বা ইন্ডিয়ান ফর্মাল পরুন। লেডারের বেল্টওয়ালা ঘড়ি পরুন। ফাঙ্কি কিছু বা মেটাল পরলে একটু বে মানান লাগে।

ধারণ করার আগে নিজের সম্পর্কে একটা ধারণা তৈরি করে ফেলুন। কমফোর্ট, কনফিডেন্স এবং কালার এই তিনটে জিনিস মনে রেখে ইচ্ছে মতো পোশাক পরুন। কারও কাছ থেকে ইনস্পিরেশন নিতেই পারেন তবে কপি করবেন না।

First published: 10:59:07 PM Dec 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर