ওষুধের প্রয়োজন নেই, শীঘ্রপতনের সমাধান লুকিয়ে যৌনখেলাতেই; জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ!

ওষুধের প্রয়োজন নেই, শীঘ্রপতনের সমাধান লুকিয়ে যৌনখেলাতেই; জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ!
বিশেষজ্ঞর পরামর্শ- শীঘ্রপতনের সম্ভাবনা এলে তখন আর Penetration-এ মেতে থাকা উচিৎ হবে না। এক্ষেত্রে ২-৩ মিনিটের জন্য থেমে যেতে হবে।

বিশেষজ্ঞর পরামর্শ- শীঘ্রপতনের সম্ভাবনা এলে তখন আর Penetration-এ মেতে থাকা উচিৎ হবে না। এক্ষেত্রে ২-৩ মিনিটের জন্য থেমে যেতে হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: রতিক্রীড়া সুখকর কীসে হয়? শীঘ্রপতনের সমস্যা নিয়ে আলোচনার সঙ্গে এই প্রশ্নটি একরকম অঙ্গাঙ্গী ভাবেই জড়িয়ে রয়েছে। কেন না, অনেক পুরুষ-ই ধরে নেন যে যৌনতার আসল আনন্দ লুকিয়ে রয়েছে সঙ্গিনীর শরীরে প্রবেশের মাধ্যমে। যাকে ইংরেজিতে বলা হয়ে থাকে Penetration। শরীরে প্রবেশ করার পরে জনৈক পুরুষ কতক্ষণ তাঁর বীর্যপতন ধরে রাখতে সক্ষম হলেন, কতক্ষণ তিনি সঙ্গিনীকে আনন্দ দিয়ে নিজেও তৃপ্ত হলেন- ধরেই নেওয়া হয় যে এর মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে রতিসুখ বা Orgasm-এর চাবিকাঠি!

আর ঠিক এই জায়গা থেকেই Premature Ejaculation বা শীঘ্রপতনের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা প্রয়োজন। বিশেষজ্ঞ পল্লবী বার্নওয়াল জানিয়েছেন যে সম্প্রতি এই বিষয়ে এক পাঠক তাঁকে চিঠি দিয়েছেন। তিনি জানতে চেয়েছেন- সঙ্গিনীর শরীরে প্রবেশের ৫ মিনিটের মধ্যেই বীর্যস্খলনকে কি শীঘ্রপতনের সমস্যা বলে গণ্য করতে হবে?

সবার প্রথমে পল্লবী আবার মনে করিয়ে দিচ্ছেন যে পর্নোগ্রাফি যৌনতার আদর্শ নয়। সেখানে এডিট করে, বার বার শ্যুট করে Penetration-এর মুহূর্তটি দীর্ঘায়িত করা হয়ে থাকে। বাস্তবে পল্লবী বলছেন যে ৩-৫ মিনিট এক্ষেত্রে আদর্শ সময়। যদি ২ মিনিটেরও কম সময়ে বীর্যস্খলন ঘটে, একমাত্র তাহলেই বিষয়টিকে শীঘ্রপতন বলা যেতে পারে।


আবার, এই প্রসঙ্গে আরেকটি কথাও বলতে ভুলছেন না বিশেষজ্ঞা। তাঁর মতে, যখন সঙ্গী বা সঙ্গিনী দুই পক্ষই অথবা কোনও একজন প্রস্তুত নন, কিন্তু বীর্যস্খলন হল, তাকেও শীঘ্রপতন বলতে হবে। অর্থাৎ ধরে নেওয়া যাক পুরুষটির বীর্যস্খলন হল, কিন্তু নারীটি তার জন্য প্রস্তুত নন- সেটাও পল্লবীর মতে শীঘ্রপতনের গণ্ডিতে পড়ে- কেন না, সঙ্গম দুই পক্ষের সম্মতি এবং আনন্দের ব্যাপার, এক্ষেত্রে কোনও এক পক্ষ দিয়ে কোনও কিছু বিচার করা যায় না।

পল্লবী বলছেন যে পুরুষের শরীর যখন রতিসুখের চূড়ান্তে পৌঁছতে থাকে, তখনই বীর্যস্খলনের সম্ভাবনা তৈরি হয়। খুব অল্প বয়স থেকে হস্তমৈথুনের ফলেও অনেক পুরুষের শীঘ্রপতন হয়। কিন্তু এর সমাধান রয়েছে যৌনখেলার মধ্যেই। বীর্যস্খলনের মুহূর্তটিকে ইংরেজিতে বলা হয়ে থাকে Point Of No Return বা PNR। কিন্তু আদতে ফিরে যাওয়া সম্ভব।

বিশেষজ্ঞার পরামর্শ- শীঘ্রপতনের সম্ভাবনা এলে তখন আর Penetration-এ মেতে থাকা উচিৎ হবে না। এক্ষেত্রে ২-৩ মিনিটের জন্য থেমে যেতে হবে। সেই সময়টায় মন দিতে হবে নানা ধরনের Foreplay-তে। চুম্বন, আলিঙ্গন, পরস্পরের প্রশংসা, শরীরের নানা জায়গা স্পর্শের মধ্যে দিয়ে নতুন করে তৈরি করতে হবে সুখাবেশ। তা হলেই আবার বেশ কিছুক্ষণ Penetration-এর জন্য শরীর তৈরি হবে। ইচ্ছা মতো নিয়ন্ত্রণ করা যাবে বীর্যস্খলনের বিষয়টিকে।

Pallavi Barnwal 

Published by:Pooja Basu
First published: