• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Christmas|Xmas: বড়দিনে দুয়ার সজ্জার চারকাহন, তাক লাগবে অতিথিদের!

Christmas|Xmas: বড়দিনে দুয়ার সজ্জার চারকাহন, তাক লাগবে অতিথিদের!

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

Chistmas Happy Hours|Christmas Cake|Xmas Cake|Xmas at Park Street|Christmas at Park Street|Life Style: সঠিক পদ্ধতিতেই বাড়িতে অতিথিদের অভ্যর্থনা করুন জমিয়ে দিন উৎসব, বড়দিনে সদর দরজার সাজেও আনতে হবে বাহারিয়ানা। কী ভাবে?

  • Share this:

#কলকাতা: ডিসেম্বর এলেই বাতাসে কেকের গন্ধ। আকাশে বাতাসে উৎসবের মেজাজ। সামনেই বড়দিন যে! সাজগোজ, ক্রিসমাস ট্রি থেকে রকমারি কেক, প্যাস্ট্রি তৈরির পরিকল্পনা ছকে ফেলেছেন অনেকেই। চলছে শেষ মুহূর্তের রূপটান। সঙ্গে থাকছে বাড়ির অন্দরসাজও।

কিন্তু বাইরের! মানে, সদর দরজা সাজানোর ব্যাপারে কিছু ভাবা হয়েছে কি? ওই পথ দিয়েই যে ঘরে প্রবেশ করবেন অতিথিরা! তাই সেটাও হতে হবে নিখুঁত। আর প্রবেশদ্বারে চমক থাকলে, বাড়ির কর্তা-গিন্নির উপর সম্ভ্রম জাগতে বাধ্য। তাই বড়দিনে সদর দরজার সাজেও আনতে হবে বাহারিয়ানা। কী ভাবে?

আরও পড়ুন :  Christmas Cake|Xmas Cake: ক্রিসমাস কেকের স্বাদবদল! বড়দিনের আমেজ জমে যাক নারকেল সুজির কেকে, রইল রেসিপি!

উল আছে নিশ্চয়?

শীতকালে অনেকেরই সোয়েটার বা মাফলার বোনার শখ থাকে। তাই বাড়িতেই মজুত থাকে উল। সেই সব উলের গোলা দিয়েই চমৎকার সাজিয়ে ফেলা যায় বাড়ির সদর দরজা। কী ভাবে? বিভিন্ন রঙের উলের গোলা আঠা দিয়ে জুড়ে জুড়ে একটা বৃত্ত তৈরি করতে হবে। মাঝখানে একটা সান্তার মুখ বা ক্রিসমাস ট্রি লাগিয়ে দেওয়া যায়। এবার তাতে জড়িয়ে দিতে হবে মিনিয়েচার লাইট। ব্যস, এটুকুতেই ভোল বদলে যাবে দরজার।

পশমের বুট

বাড়িতে যদি পুরনো পশমের বুট থাকে, তাহলে সেটা কাজে লাগাবার এটাই উপযুক্ত সময়। আগে বুটের ধুলো-ময়লা ঝেড়ে ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। তার পর ক্রিসমাস ট্রির কিছু ডাল ভেঙে নিয়ে তাতে রঙিন বল ও সান্তার মুখ ঝুলিয়ে দিতে হবে। তার পর সেটা রাখতে হবে বুটের ভিতর। পাইনের ডালপালা নিয়ে পশমের বুট ডিসপ্লের জন্য প্রস্তুত।

আরও পড়ুন :  Inhaler for Asthma: অ্যাজমা রোগীদের নতুন করে বাঁচতে শেখায় ইনহেলার, কী বলছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক?

বো-ওয়াও

ফ্যান্সি নেকটাই অনেকেই উপহার পান। তার পর সে সবের ঠাঁই হয় আলমারিতে। ব্যবহার করা আর হয়ে ওঠে না। সেই সব নেকটাই দিয়েই সদর দরজার সামনেটা সাজিয়ে ফেলা যায় সুন্দর করে। বিভিন্ন রঙ এবং আকৃতির নেকটাই দিয়ে একটা বৃত্ত তৈরি করে সেটা টাঙিয়ে দিতে হবে সদর দরজার সামনে। এছাড়া ক্রিসমাস ট্রিতেও এই নেকটাইগুলো ঝুলিয়ে দেওয়া যায়। এমন আনকোরা সাজ অতিথির নজর কাড়বেই। সঙ্গে চালিয়ে যেওয়া যায় রেড বাটনস-এর ‘বো-ওয়াও ওয়ান্টস এ বয় ফর ক্রিসমাস’।

গত বছরের কিছু আছে?

জীবনের ধন কিছুই যায় না ফেলা! গত বছর ক্রিসমাসেও নিশ্চয় ঘর সাজানো হয়েছিল? সেই সময়কার ক্রিসমাস ট্রিতে ঝোলানোর বলগুলো নতুনভাবে ব্যবহার করা যায় এই বছর। কী করতে হবে? প্রথমে যে বলগুলো ব্যবহার করা যাবে সেগুলো আলাদা করে ফেলতে হবে। তার পর বিভিন্ন রঙের বলগুলো নিয়ে তৈরি করতে হবে ছোট ছোট বৃত্ত। আঠা দিয়ে জুড়ে জুড়ে। এবার সেই বৃত্তগুলো শিকলির মতো ঝুলিয়ে দিতে সদর দরজায়। তার সঙ্গে মিনিয়েচার লাইট জড়িয়ে দিলে দেখতে আরও ভালো লাগবে।

First published: