লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নির্দিষ্ট বয়সের আগে অবসর? আর্থিক দিক থেকে কী ভাবে তৈরি থাকা যায়, বলছেন বিশেষজ্ঞ!

নির্দিষ্ট বয়সের আগে অবসর? আর্থিক দিক থেকে কী ভাবে তৈরি থাকা যায়, বলছেন বিশেষজ্ঞ!

নির্দিষ্ট একটা বয়সের আগে অবসর নেওয়ার কথা ভাবলে অনেকেই খুশি হন।

  • Share this:

#কলকাতা: নির্দিষ্ট একটা বয়সের আগে অবসর নেওয়ার কথা ভাবলে অনেকেই খুশি হন। একঘেয়ে কাজ থেকে মুক্তি পেয়ে নিজের মনের মতো কাজ করার সুযোগ সামনে আসে। কিন্তু তার জন্য অবশ্যই আর্থিক স্বচ্ছলতা থাকা প্রয়োজন। কারণ মাথায় টাকার চিন্তা থাকলে কিন্তু অবসর সে ভাবে উপভোগ করা যায় না। অনেকেই নিজের ইচ্ছেতে নির্দিষ্ট বয়সের আগে অবসর নিয়ে থাকেন। যাতে একটু বেশি সময় ধরে অবসর উপভোগ করা যায়। কিন্তু অনেকেই থাকেন, যাঁদের অবসর নেওয়ার পরিকল্পনা না থাকলেও সংস্থার চাপে বা অন্য কোনও কারণে অবসর নিতে বাধ্য হন। যেমন- পরিবারের কেউ অসুস্থ হলে বিশেষ করে বাবা, মা, স্ত্রী বা সন্তান অসুস্থ হলে, যদি শহর ছেড়ে যেতে হয়, তা হলে একই সঙ্গে চাকরি চালিয়ে যাওয়া চ্যালেঞ্জের হতে পারে। এমন হলে, আর্থিক জায়গা দিয়ে সমস্যায় পড়তে পারেন তাঁরা। তাই বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন, অবসরের আগে অবশ্যই পরিকল্পনা করা উচিৎ। যদি সম্ভব হয়, তা হলে একটু অল্প বয়স থেকেই অবসরের জন্য তৈরি থাকলে সমস্যা কম হতে পারে। মানসিক চাপ হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে না।

অবসর নিয়ে আগে থেকে পরিকল্পনা করত - বেশি করে টাকা জমাতে হবে বেশি করে টাকা জমালে এমনিতেই ভবিষ্যতের জন্য তা ভালো। কারও শরীর খারাপ হোক বা অন্য কোনও আর্থিক সমস্যা, টাকা জমালে কিন্তু সব কিছুতেই কাজে আসে। তেমনই টাকা জমালে তা কাজে দেয় পোস্ট রিটায়ারমেন্টে। এ বার অল্প বয়স থেকেই টাকা জমানোর কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তার জন্য একটি ব্যাখা তাঁরা দিয়েছেন। ধরা যাক সাধারণ ভাবেই ৬০ বছর বয়সে অবসর নিয়েছেন কেউ এবং তিনি ৩০ বছর বয়স থেকে জমানো শুরু করেছেন। বেঁচেছেন ৮৫ বছর পর্যন্ত। তা হলে এখানে দেখা যাচ্ছে, ৩০ বছর টাকা জমিয়ে তিনি খুব স্বাচ্ছন্দ্যেই বাকি ২৫ বছর অবসরের পর কাটিয়ে ফেলছেন। এখন যদি তাঁকে ৪৮ বছর বয়সে কাজ থেকে বেরিয়ে যেতে হত, তা হলে তিনি মাত্র ১৮ বছর টাকা জমালেন এবং ভোগ করলেন ৩৭ বছর। এ বার এতে অবশ্যই জমানোর পরিমাণ কম। তাই টাকাও কম হতে পারে। এ বার যদি কেউ ৩০ বছরেও টাকা জমানো না শুরু করেন, তাঁকে যদি ৪৮-এ অবসর নিতে হয়, তা হলেই তিনি আর্থিক সমস্যায় পড়তে পারতেন। তাই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যদি আগে-ভাগে অবসর নেওয়ার পরিকল্পনা না-ও থাকে, তা-ও অল্প বয়সেই অবসরের চিন্তা করা উচিৎ। এমারজেন্সি ফান্ড তৈরি করতে হবে বিপদ যে কোনও মুহূর্তে আসতে পারে। কোভিড প্যানডেমিকই তার প্রমাণ। তাই এর জন্য আগে থেকে টাকা রাখা প্রয়োজন। যদি হঠাৎ চাকরি চলে যায়, তা হলে সেই টাকা দিয়ে যেন খরচ চলে যেতে পারে, এমন ব্যবস্থা করে রাখা প্রয়োজন। যদি এই টাকা এমারজেন্সিতে কাজে না লাগে, তা হলে তা সঞ্চয় হবে। এ ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ, যদি টাকা নিয়ে বিনিয়োগের ব্যাপারে, সঞ্চয়ের ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছতে পারেন, তা হলে অবশ্যই কোনও ইনভেস্টমেন্ট অ্যাডভাইজারের সঙ্গে আলোচনা করা যেতে পারে।

Published by: Akash Misra
First published: January 4, 2021, 7:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर