corona virus btn
corona virus btn
Loading

সময়মত টীকাকরণ : কিভাবে সম্পূর্ণ নিরাপত্তা বজায় রাখবেন টীকাকরণের সময় ? জেনে নিন

সময়মত টীকাকরণ : কিভাবে সম্পূর্ণ নিরাপত্তা বজায় রাখবেন টীকাকরণের সময় ? জেনে নিন

সময়মত টীকাকরণ : শিশুদের সুস্বাস্থ্যের চাবিকাঠি

  • Share this:

এই পুরনো প্রবচনটি অনেকক্ষেত্রেই সত্যি, বিশেষ করে যখন আপনি আপনার শিশুর নিরাপত্তা এবং সুস্বাস্থ্যের কথা ভাবছেন, তখন এ কথাটিকে বেদবাক্য ধরে নেওয়াই শ্রেয়। যারা সদ্য মা-বাবা হয়েছেন বা হতে চলেছেন, টীকাকরণের ব্যাপারে তাদের মনে অনেক সংশয় থেকে যায়; এবং এটা অত্যন্ত সাধারণ ব্যাপার। এরকম দ্বিধার সম্মুখীন হলে, আমরা বলি, সবার আগেই আপনার ডাক্তার (pediatrician)-এর সাথে যোগাযোগ করুন। এবং দ্বিতীয় ধাপ হল, বিশ্বাসযোগ্য কোনও সুত্র থেকে, জানুন টীকাকরণ কি, কিভাবে এটা কাজ করে এবং সময়মত টীকাকরণের গুরুত্ব কি।

সময়মত টীকাকরণের গুরুত্ব কি?

সময়মত টীকাকরণ (আপনার ডাক্তারের নির্ধারিত সময়তালিকা অনুযায়ী) করা উচিৎ আপনার শিশুর রোগ থেকে দীর্ঘ মেয়াদী সুরক্ষার জন্য। আপনার সন্তানের শরীরে বিভিন্ন রোগের প্রতি অনাক্রম্যতা তৈরী হওয়া অত্যন্ত জরুরী, অন্যথায় এইসব রোগ প্রাণঘাতী চেহারা নিতে পারে। যেহেতু তাদের শরীরের গঠন সম্পূর্ণ হয়নি, তাই তাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশী, শুধু তাই নয়, তারা একটি রোগে আক্রান্ত হলে, বাহক হয়ে তারা অন্যদেরও আক্রান্ত করতে পারে। তাই টীকাকরণ শুধু আপনার সন্তানকেই সাহায্য করে না, সংক্রমণের সম্ভবনাও হ্রাস করে।

হাম, পার্টুসিস (ঘুংড়ি কাশি)/হুপিং কাশি ইত্যাদি হওয়ার সম্ভবনা কম হলেও, সাবধানতা অবলম্বন অত্যন্ত জরুরী। টীকাকরণ, বিশেষ করে সময়মত টীকাকরণ, শিশুদের সাহায্য করে অনেকটা গাড়ি চালানোর সময় সীটবেল্ট পড়ার মত।

আপনার মনে কোনও প্রশ্ন থাকলে, অবশ্যই আপনার শিশুর টীকাকরণ কার্ড দেখুন, বা আপনার শিশু চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন।

কোভিড-১৯ এর প্রভাব কি আপনার সন্তানের সময়মতো টীকাকরণের ওপর পড়ছে ?

আমরা এক কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। এবং মা-বাবা হিসাবে আপনার মনে নিশ্চয়ই অনেক আশঙ্কা দানা বাঁধছে, কারণ এই পরিস্থিতিতে সময় মত টীকা নেওয়ার জন্য বাড়ির বাইরে বা হাসপাতালে গেলে আর কি না কি বিপদের সম্মুখীন হতে হবে।

একদম চিন্তা করবেন না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) টীকাকরণ কে জরুরী পরিষেবা (Essential Service) হিসাবে ঘোষণা করেছে, এবং আমাদের দেশেও টীকাকরণ জরুরী পরিষেবার অন্তর্গত। তাই আপনার সন্তানকে সুরক্ষিত রাখতে আপনি একই নিয়ম পালন করুন, যা বাড়ির জরুরী জিনিসপত্র আনার সময় করে থাকেন। বারবার অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন, মাস্ক ব্যবহার করুন, সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং-এর নিয়ম মেনে চলুন, অযাচিত জায়গায় হাত দেবেন না এবং অর্থ লেনদেন-এর কাজ বৈদ্যুতিক মাধ্যমের সাহায্যে করুন; এইসব নিয়মের পালনই আপনার সন্তানের সুরক্ষা এবং সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে। সন্তানপালন একটি কঠিন কাজ, এবং সন্তানের সুরক্ষা সবসময়ই মা-বাবার কাছে সবচেয়ে জরুরী। আপনার দূর্ভাবনার কথা আমরা বুঝতে পারি। এবং সময়মত টীকাকরন সেই চিন্তা দুর করার পথে একটি বড় পদক্ষেপ। তাই আপনার শিশু চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন, এবং আপনার সন্তানকে এবং নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন।

Disclaimer: Information appearing in this material is for general awareness only. Nothing contained in this material constitutes medical advice. Please consult your physician for medical queries, if any, or any question or concern you may have regarding your condition. Issued in public interest by GlaxoSmithKline Pharmaceuticals Limited. Dr. Annie Besant Road, Worli, Mumbai 400 030, India. NP-IN-GVX-OGM-200061, DOP July 2020.

Published by: Ananya Chakraborty
First published: July 29, 2020, 1:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर