মশাবাহিত রোগে আক্রান্ত? জেনে নিন কীভাবে এর হাত থেকে বাঁচবেন...

সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে৷ রোগ মোকাবিলায় বারবার বার্তা দিচ্ছেন পুরো আধিকারিকরা৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 19, 2019 07:55 PM IST
মশাবাহিত রোগে আক্রান্ত? জেনে নিন কীভাবে এর হাত থেকে বাঁচবেন...
Representative Image
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 19, 2019 07:55 PM IST

#নয়াদিল্লি: আবহাওয়ার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়েছে মশাবাহিত রোগের প্রকোপ৷ ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়া, চিকুনগুনিয়ার মত রোগ ছাড়াচ্ছে মারাত্মকভাবে৷ বৃষ্টির শুরু হতেই শুরু হয়েছে সমস্যা৷ ঘনঘন এমন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই৷ রোগ প্রতিরোধে এগিয়ে এসেছে পুরসভা৷ মশাবাহিত রোগ যাতে না ছড়ায়, তার জন্য পূর্ব দিল্লি পুরসভা বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে৷ সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে৷ রোগ মোকাবিলায় বারবার বার্তা দিচ্ছেন পুরো আধিকারিকরা৷ এই বিষয় পূর্ব দিল্লির মেয়র জানিয়েছেন যে ডেঙ্গি মোকাবিলায় আলাদা করে কোনও টিকাকরণ শুরু হয়নি৷ এমন কোনও টিকাও নেই বাজারে৷ তাই ডেঙ্গি প্রতিরোধে নিজেদেরই সচেতন হতে হবে, এমনই বার্তা দেওয়া হয়েছে৷ ডেঙ্গি রোধে মশার জন্ম নিয়ন্ত্রণ করাই একমাত্র উপায় বাতলেছেন আধিকারিকরা৷ বাড়ির আশেপাশে মশার বৃদ্ধি বন্ধ করতে হবে৷ জমা জলে হুহু করে মশার জন্ম হয়৷ তাই লক্ষ্য রাখতে হবে যে কোথাও যেন জল না জমে৷ অনেক সময়ই বৃষ্টির জল জমে যায় খানা খন্দে বা রাস্তায় থাকা গর্তে৷ এটা বন্ধ করতে হবে৷ বাড়ির ছাদ হোক বা অন্য কোনও ফাঁকা জায়গায় আবর্জনা রাখা চলবে না৷ এর থেকেও মশার জন্ম নেয়৷ এর জন্য জন সচেতনতার অভিযান শুরু হয়েছে৷ জনবসতি, স্কুল, হাসপাতাল, থানাসহ নির্মিয়মান বাড়িতে গিয়ে গিয়ে চলতে প্রচরাভিযান৷ তবে শুধু সচেতন হওয়া নয়, জানতে হবে ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়া বা ম্যালেরিয়ার উপসর্গ৷ কারণ উপসর্গ না জানা থাকলে অনেক সময়ই জ্বরের ভুল ব্যাখ্যা হতে পারে৷ জেনে নিন এই ধরণের মশাবাহিত রোগের উপসর্গ৷

১) ম্যালেরিয়া হলে একদিন অন্তর প্রচন্ড জ্বর আসে৷ শরীরের তাপমাত্রা বাড়তে থাকে মারাত্মকভাবে৷ জ্বরের সঙ্গে কাঁপুনি অনুভব করেন রোগী৷

২) ম্যালেরিয়া প্রথম ধাপে শরীরের তাপমাত্রা বাড়ার ফলে রোগীর খুব ঠান্ডা লাগে৷ কিছুক্ষণ পরে জ্বর ছাড়লে স্বাভাবিক হয় তাপমাত্রা৷ কিন্তু তারপরই রোগীর গরম লাগতে শুরু করে৷

৩) ম্যালেরিয়ার ক্ষেত্রে ঘাম দিয়ে জ্বর ছাড়ে, এবং শরীর খুব দুর্বল হয়৷

৪) ম্যালেরিয়ার ক্ষেত্রে একভাবে ২-৩ দিন জ্বর থাকে৷

Loading...

৫) অন্যদিকে চিকুনগুনিয়ার ক্ষেত্রে জ্বরের সঙ্গে থাকে প্রচন্ড মাথাব্যাথা৷ এমন জ্বর হলে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে৷ না হলে মারাত্মক বিপদ৷

৬) ডেঙ্গু হলে প্রাথমিকভাবে শরীরে ব্যাথা হয়৷ সঙ্গে দুর্বলতা, খিদে না পাওয়া বা শরীরে চাকা চাকা দাগ দেখা যায়৷ শরীর দুর্বল হয়ে যাওয়ার ফলে রক্তচাপ বা ব্লাড প্রেশার লো অর্থাৎ কম হয়৷

এই ধরণের সমস্যা হলে গাফিলতি না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন৷ আর সচেতন থাকুন৷

ডিসক্লেমার- এই আর্টিকেলটিতে  যে তথ্য রয়েছে তা অনুমানের ভিত্তিতে লেখা৷ তাই এমন কোন কিছু হলেই ডাক্তার দেখান৷

First published: 07:20:15 PM Aug 19, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर