মুখ থেকে ধোঁয়া ছেড়ে শিকারকে ঘায়েল করে গিলে ফেলল মাছ, ভিডিও ভয় ধরিয়ে দেবে!

মুখ থেকে ধোঁয়া ছেড়ে শিকারকে ঘায়েল করে গিলে ফেলল মাছ, ভিডিও ভয় ধরিয়ে দেবে!
ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে একটা কাদা-জল এলাকা। বোঝা যাচ্ছে যে একটা কোনও গর্তের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে একটা ইলমাছ। আর সেটাকে ধরার চেষ্টা করে চলেছে একটা লাঙ্গফিশ।

ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে একটা কাদা-জল এলাকা। বোঝা যাচ্ছে যে একটা কোনও গর্তের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে একটা ইলমাছ। আর সেটাকে ধরার চেষ্টা করে চলেছে একটা লাঙ্গফিশ।

  • Share this:

 #নয়াদিল্লি: ভিডিওটি যে এই প্রথম প্রকাশ্যে এল, তা কিন্তু নয়। আদতে এটা বেশ পুরনো ভিডিও। সম্প্রতি IFS অফিসার সুশান্ত নন্দা শুধু সেটা নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে শেয়ার করেছেন তাঁদের জন্য, যাঁরা এখনও ভিডিওটি দেখেননি! সে কথা স্পষ্ট ভাবে ভিডিওটি আপলোড করার সময়ে লিখেও দিয়েছেন তিনি।

ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে একটা কাদা-জল এলাকা। বোঝা যাচ্ছে যে একটা কোনও গর্তের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে একটা ইলমাছ। আর সেটাকে ধরার চেষ্টা করে চলেছে একটা লাঙ্গফিশ। প্রথমে সে জল থেকে কিছুটা শরীর তুলেছে কাদায়। তার পর মুখ দিয়ে গলগল করে ধোঁয়া ছাড়ছে। ওই ধোঁয়ায় ব্যতিব্যস্ত হয়ে যে-ই ইলমাছটা বেরিয়ে আসছে, সেটাকে ধরার চেষ্টা করছে সে।

এই চেষ্টা বেশ কিছুক্ষণ পর্যন্ত চলেছে। ইলমাছটা বেরিয়ে এসেছে, তাকে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে দেখে ফের ঢুকে গিয়েছে গর্তে। তবে শেষ পর্যন্ত সে আর আত্মরক্ষা করতে পারেনি। এক সময়ে লাঙ্গফিশটা তাকে গিলে ফেলেছে একটু একটু করে। আর এই ভিডিওটা নিয়ে এখন তুমুল উত্তেজনা তৈরি হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেক ট্যুইটারেতির বক্তব্য- ঘটনা তাঁদের ভয় ধরিয়ে দিয়েছে। আবার বেশিরভাগেরই বক্তব্য- ভিডিওটা সত্যি নয়! ওটা এডিট করা হয়েছে!

প্রমাণ হিসেবে এই দ্বিতীয় দল তুলে ধরেছে আন্তর্জাতিক স্তরে বিখ্যাত গায়ক Big Boi-এর একটি ট্যুইট। ২০১৯ সালে এই রকম একটা ভিডিও তিনিও পোস্ট করেছিলেন। তবে সেখানে ইলমাছ আর লাঙ্গফিশের এই টানাপোড়েনটা উঠে আসেনি। দেখা যায়নি লাঙ্গফিশের মুখ থেকে ধোঁয়া বের হওয়ার ঘটনাও! ফলে তর্কবিতর্ক চলছেই, বোঝা যাচ্ছে না যে নন্দার আপলোড করা ভিডিওটাই আসল ঘটনা দেখাচ্ছে কি না!

এর আগে এক বাঘিনীর মুখ থেকে ধোঁয়া বের হওয়ার ভিডিও বেশ চাঞ্চল্য তৈরি করেছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা সামনে আসে বনদফতরের আধিকারিক পরভিন কাসওয়ানের একটি ট্যুইট থেকে। তিনি ট্যুইটটিতে ওই ভিডিওটি পোস্ট করেন। যার ক্যাপশনে মজার ছলে লেখেন, বান্ধবগড়ের বাঘিনীটি কি ধূমপান করছে? তার পর থেকেই ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি।

আদতে কিন্তু বাঘিনীটি ধূমপান করছিল না। শীতে খুব কম তাপমাত্রায় শ্বাস-প্রশ্বাস নিলে যে ভাবে মুখ থেকে বেরোনো বাতাস ধোঁয়ায় পরিণত হয় এবং দেখলে মনে হয় ধোঁয়া বের হচ্ছে মুখ থেকে, সে ভাবেই তারও মুখ থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছিল। জানা গিয়েছে, তাকে সেই সময়ে উদ্ধার করে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়ার কাজ চলছিল।

Published by:Piya Banerjee
First published:

লেটেস্ট খবর