Home /News /life-style /
Heart disease : মহিলারা হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমাতে কী করবেন? সহজ সমাধান বিশেষজ্ঞদের

Heart disease : মহিলারা হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমাতে কী করবেন? সহজ সমাধান বিশেষজ্ঞদের

মহিলারা হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমাতে কী করবেন?

মহিলারা হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমাতে কী করবেন?

Heart disease : নিজের শরীরের ওজন, রক্তচাপ, সুগারের মাত্রা, কোলেস্টেরল ইত্যাদি সব সময়ে জেনে রাখা দরকার।

  • Share this:

    #কলকাতা: হার্টের অসুখে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। বহু পরিবারে জায়গা করে নিয়েছে হৃদযন্ত্রের অসুখ (Heart disease)। আর পরিবারের একজনের হার্টের অসুখ থাকলে বংশানুক্রমে সেই অসুখ বিস্তার করতে থাকে। এমন ঝুঁকি থেকেই যায়। তাই কয়েকটি বিষয়ে বিশেষ ভাবে সচেতন থাকা দরকার।

    নিজের শরীরের ওজন, রক্তচাপ, সুগারের মাত্রা, কোলেস্টেরল ইত্যাদি সব সময়ে জেনে রাখা দরকার। কারণ এই গুলির উপরেই অনেকটা নির্ভর করে আপনার হৃদযন্ত্র কেমন থাকবে।মহিলাদের শরীরেও হার্টের অসুখ বাসা বাঁধলে তা বড় পর্যায় যেতে বেশি দেরী করে না। নিয়মিত কয়েকটি জিনিস মেনে চললে হার্টের অসুখকে (Heart disease) অনেকটাই দূরে রাখা সম্ভব। জেনে নেওয়া যাক সেগুলি সম্পর্কে-

    ১) সপ্তাহে ১৫০ মিনিট শরীরচর্চা করুন। যোগ ব্যায়াম করতে পারেন। তবে শারীরিক কোনও সমস্যা থাকলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। কিন্তু প্রতিদিন অন্তত ৩০-৪০ মিনিট হাঁটার অভ্যেস রাখুন।

    ২) অবশ্যই ডায়েটের দিকে নজর দিতে হবে। অল্প ফ্যাট যুক্ত ও অল্প লবন দেওয়া খাবার খান। ফাইবার যুক্ত খাবার, সবজি, ফল ইত্যাদি বেশি করে খান। স্যাচুরেটে ফ্যাট, অ্যাডেড সুগার এড়িয়ে যান।

    আরও পড়ুন- পায়ের নখে ফাংগাল ইনফেকশন থেকে দুর্গন্ধ? রইল কার্যকরী ৬টি ঘরোয়া টোটকা

    ৩) কোমরের মাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন। মহিলাদের ক্ষেত্রে কোমরের মাপ ৩৫ এর বেশি তার কিন্তু হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকটাই বেশি থাকে।

    ৪) যে মহিলারা ধূমপান করেন তাঁদের মৃত্যু ১৪.৫ আগে হয় নন-স্মোকার মহিলাদের থেকে। কিন্তু ধূমপান বন্ধ করলে ঝুঁকি অনেকটাই কমতে থাকে।

    ৫) মেনোপজের পরে অতিরিক্ত পরিমাণে ওরাল কন্ট্রাসেপ্টিভ ওষুধ খেলে হার্টের অসুখের সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যায়।

    আরও পড়ুন- আপনি নতুন সম্পর্কে! প্রাক্তন ফিরে আসতে চাইছেন? কী ভাবে সামাল দেবেন

    ৬) স্ট্রেস হল হার্টের অসুখের অন্যতম কারণ। নিয়মিত শরীরচর্চা করলেন স্ট্রেস কমে। স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণে রাখলে এই রোগের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়।

    ৭) রোজ সঠিক সময়ে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম দরকার। ইতিমধ্যেই হার্টের অসুখের (Heart disease)ওষুধ খেলে তা নিয়মিত খান। কোনও দিন যেন বাদ না যায়।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: Heart Disease

    পরবর্তী খবর