কীভাবে বুঝবেন আপনার সন্তানের কাউন্সেলিং প্রয়োজন?

কখনও তলিয়ে ভেবেছেন সন্তানের মন ভাল, মন খারাপের কথা?

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 21, 2019 04:27 PM IST
কীভাবে বুঝবেন আপনার সন্তানের কাউন্সেলিং প্রয়োজন?
photo: child health
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 21, 2019 04:27 PM IST

সমাজ একটাই। তার বিধিনিষেধ অনেক। ট্যাবু তার চেয়ে আরও বেশি। সেই কারণেই চোখ এড়িয়ে যায় বাড়ির খুদের মনখারাপ। সে রেগে গেলে তাকে উল্টে ধমক দেন আপনি। কখনও তলিয়ে ভেবেছেন সন্তানের মন ভাল, মন খারাপের কথা?

মনখারাপ? সে তো বড়দের হয়। সমস্যা? পরিবারের খুদে সদস্যের আবার সমস্যা কী? তার তো এখন শুধুই শেখার বয়স, কথা শুনে চলার বয়স। শুধু আপনি নন, এদেশের অধিকাংশ বাবা-মা সেটাই ভাবেন। সমাজ অভিভাবকদের এভাবেই ভাবতে শিখিয়েছে। অথচ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিসার্চ বলছে,

বিশ্বের ১০-২০% শিশু ও কিশোর-কিশোরী মানসিক সমস্যায় ভুগছে

৫০% মানসিক সমস্যা ১৪-২০ বছর বয়সের মধ্যেই দেখা দেয়

শিশুদের মানসিক সমস্যাকে মান্যতা দেয় না সমাজ

Loading...

অনেক ক্ষেত্রেই চিকিৎসাও পায় না শিশুরা

সমস্যা যত না সন্তানের তার চাইতে অনেক বেশি অভিভাবকদের। অনেক ক্ষেত্রেই হয়তো স্কুল অভিভাবকদের শিশুর অন্যমনস্কতা, চুপ করে থাকা, টিফিন না খাওয়া, বন্ধুদের থেকে আলাদা থাকা বা ঝগড়াঝাটি-মারপিটের খবর দিচ্ছে। ছাত্র বা ছাত্রী অবসাদে ভুগছে সেই ইঙ্গিতও দিচ্ছে পরিবারকে। বাবা-মায়েরা কি তা সহজে মেনে নিতে পারছেন?

বাড়িতে নানা আলোচনায় পরোক্ষে শিশুর উপর মানসিক চাপ দিচ্ছেন অভিভাবকরাই। ভালবাসার মত রাগের বহিঃপ্রকাশও শিশু শিখছে বাবা-মায়ের কাছ থেকেই।

কীভাবে বুঝবেন আপনার সন্তানের কাউন্সেলিং বা বিশেষজ্ঞের সঙ্গে আলোচনার প্রয়োজন?

কথা বলা এড়িয়ে যাচ্ছে

কথা বা মেসেজে উত্তর ক্রমশ ছোট হচ্ছে

দীর্ঘক্ষণ ফোনে সময় কাটাচ্ছে

বেশি ঘুমোচ্ছে অথবা ঘুমোচ্ছে না

বন্ধুদের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হচ্ছে

সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গীও কিন্তু ছোটদের মানসিক গঠনে বড় সমস্যা। সমস্যা অনেক। সমাধানের পথও আছে। শুনলে অবাক হবেন, শিশুর খাওয়াদাওয়া ছোট থেকে নিয়ন্ত্রণ করলে কমতে পারে আচরণগত সমস্যাও। আর, বাবা মায়েদের পাশাপাশি, শিশুর ভাল থাকায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে হবে শিক্ষকদের।

সোশাল মিডিয়া থেকে বিভিন্ন সংস্থার রিসার্চ, আর্টিকল। প্রাপ্তবয়স্কদের মানসিক সমস্যার কথা উঠে এসেছে বারবার। মন খুলে কথা বলেছেন সেলিব্রিটিরাও। কিন্তু যে বয়সে গড়ে উঠছে মানসিক স্বাস্থ্য, তা নিয়ে এখনও সচেতনতার অভাব। যা কাটিয়ে উঠতে পারলে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে পরিস্থিতি।

First published: 04:01:19 PM Aug 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर