Home /News /life-style /
কোন ডাবে জল বেশি, কোন ডাবে শাঁস! বাছাই করার পদ্ধতি দেখে নিন, ঠকতে হবে না!

কোন ডাবে জল বেশি, কোন ডাবে শাঁস! বাছাই করার পদ্ধতি দেখে নিন, ঠকতে হবে না!

ডাবের জল

ডাবের জল

বাইরে থেকে দেখে কীভাবে বোঝা যাবে ডাবে জল এবং শাঁস দুটোই আছে? (Coconut Water)

  • Share this:

আমাদের এই গরমের দেশে যে কোনও সময়ে এক গ্লাস ডাবের জল মানে অমৃত। এক চুমুক খেলেই শরীর, মন ঠান্ডা। ডাবের জল স্বাস্থ্যের জন্যও খুবই উপকারী। এতে সোডিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মতো ইলেকট্রোলাইট রয়েছে। তাই ডাবের জল শুধু তৃষ্ণা মেটায় তাই নয়, শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতেও সাহায্য করে।

বাজার থেকে ডাব কেনার পর অনেক সময়ই ঠকে যেতে হয়। বাড়িতে এনে দেখা যায়, পুরো খালি, ছিটেফোঁটা জলও নেই। ভাল জাতের ডাবে জল তো থাকবেই, সঙ্গে থাকবে শাঁস। কিন্তু বাইরে থেকে দেখে কীভাবে বোঝা যাবে ডাবে জল এবং শাঁস দুটোই আছে?

ডাব দুই রকমের: বাজারে ডাব কেনার সময় বিক্রেতা অনেক সময়ে জিজ্ঞেস করেন, কোনটা দেব? আসলে দু’ধরনের ডাব হয়। একটায় জলের পরিমাণ বেশি হয়। অন্যটায় ভাল এবং ঘন শাঁস থাকে। এই ধরনের ডাবেও জল থাকে, তবে পরিমাণে কম। যারা শাঁস খেতে পছন্দ করেন বা এটা দিয়ে কিছু রাঁধতে চান, তাঁরা এই ধরনের ডাব কেনেন।

আরও পড়ুন: জমির বিনিময়ে গরু? অনুব্রতর পাচার-পদ্ধতি খুঁজতে গিয়ে আকাশ থেকে পড়ছে সিবিআই!

ডাবের আকার কেমন হওয়া উচিত: ডাবের আকার অনুযায়ী কি জলের পরিমাণ কম-বেশি হয়? হয়। ডাবের আকার ছোট হলে তাতে জল কম থাকবে। তবে আকার বড় হলেই তাতে জল বেশি থাকবে এমনটাও নয়। ডাব যদি পেকে যায় তাহলেও জলের পরিমাণ কমে যায়। কারণ তখন এর শাঁস ভাল ভাবে জমে যায়। এই কারণে, সবসময় মাঝারি আকারের ডাব বেছে নেওয়া উচিত। এতে বেশি জল থাকে। তাছাড়া কেনার আগে ভাল করে ঝাঁকিয়ে দেখে নেওয়া উচিত। যদি মনে হয় জল কম আছে, তাহলে বিক্রেতাকে গর্ত করতে বলা যায়, যাতে কতটা জল আছে দেখে নেওয়া যায়।

আরও পড়ুন: অ্যাকাউন্ট থেকে অ্যাকাউন্ট লেনদেনেও শতাংশের খেলা, ধরা পড়ে গেল অনুব্রতর কৌশল-কেরামতি!

ডাবের রঙ কেমন হওয়া উচিত: ডাব কেনার জন্য সঠিক আকার বাছাই করা যতটা প্রয়োজন, তার রঙ দেখে নেওয়াও সমান গুরুত্বপূর্ণ। তবেই সঠিক ডাব বেছে নেওয়া যাবে। ডাবের গায়ে কোনও ধূসর প্যাচ বা ফিতের মতো দাগ থাকলে চলবে না। বাদামি, হলুদ-সবুজ বা বাদামি ছোপ থাকলেও সেই ডাব কেনা উচিত নয়। এগুলো অতিরিক্ত পাকা হয়। এ ধরনের ডাবে জলের পরিমাণ কম হতে পারে। এমনও হতে পারে, এতে জলের বদলে শুধু শাঁস রয়ে গিয়েছে।

গোল ডাবে জল বেশি থাকে: ডাবে প্রথমে বৃত্তাকার থাকে। ধীরে ধীরে সেটা লম্বা বা তির্যক হয়ে যায়। গোল ডাবে জল বেশি থাকে। তবে বাজারে এই ধরনের ডাব পাওয়া কঠিন। তাই বাকিটা বুঝে-সুঝে কিনতে পারলেই ভাল!

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: Coconut water, Lifestyle tips

পরবর্তী খবর