Covid Symptoms: শ্রবণশক্তি হ্রাস, পেটের সমস্যা! করোনার নতুন স্ট্রেইন ছড়াচ্ছে দ্রুত, একাধিক আনকোরা উপসর্গের কথা জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা

Covid Symptoms: শ্রবণশক্তি হ্রাস, পেটের সমস্যা! করোনার নতুন স্ট্রেইন ছড়াচ্ছে দ্রুত, একাধিক আনকোরা উপসর্গের কথা জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা

একাধিক আনকোরা উপসর্গের কথা জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা

ভাইরাসের চরিত্রের পরিবর্তন হয়েছে যার ফলে নতুন উপসর্গও দেখা যাচ্ছে। এবং এই নতুন মিউট্যান্ট আগের তুলনায় দ্রুত সংক্রমিত হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনার (Corona) দ্বিতীয় ঢেউয়ে ইতিমধ্য়েই ত্রস্ত গোটা দেশ। এক বছর ধরে এই ভাইরাসের আবহে মানুষের জীবনযাপন চলছে। এই ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে নানা বিধি নিষেধ থাকলেও আটকানো যায়নি দ্বিতীয় ঢেউকে (Second Wave)। ঝড়ের গতিতে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে। করোনা যে দেশগুলির উপর সবচেয়ে সাংঘাতিক প্রভাব ফেলেছে তাদের মধ্যে ভারত রয়েছে চতুর্থ স্থানে। এই মুহূর্তে ভারতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ১৩ মিলিয়ন বা ১৩০ লক্ষ। তবে এরই মধ্যে অনেকেই করোনার নতুন স্ট্রেইনেও আক্রান্ত হচ্ছেন।

    সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গ (Corona Symptoms) হিসেবে জ্বর, কাশি, স্বাদ ও গন্ধ হারিয়ে ফেলাকেই দেখা হচ্ছিল। কিন্তু এরই মধ্যে ভাইরাসের চরিত্রের পরিবর্তন হয়েছে যার ফলে নতুন উপসর্গও দেখা যাচ্ছে। এবং এই নতুন মিউট্যান্ট আগের তুলনায় দ্রুত সংক্রমিত হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনকি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা থাকলেও অনায়াসেই জাঁকিয়ে বসছে এই ভাইরাস।

    কী সেই নতুন উপসর্গ? এতদিন বহু ক্ষেত্রেই আক্রান্তদের জ্বর হচ্ছিল না। বা হলেও অনেকেরই খুব বেশি হচ্ছিল না। কিন্তু এই নতুন স্ট্রেইনে আক্রান্ত হলে জ্বর হচ্ছে এবং শরীরের তাপমাত্রা উপরের দিকেই থাকছে। এছাড়াও কানে কম শোনা, শরীরের পেশীতে ব্যথা, ত্বকে ইনফেকশন, চোখে ঝাপসা দেখা, পেট খারাপ এবং চোখে কনজাংটিভাইটিসের মতো উপসর্গ দেখা দিচ্ছে এই নতুন স্ট্রেইনের জন্য।

    উজালা গ্রুপ অফ হসপিটালের চিকিৎসক শুচিন বাজাজ সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছেন, বর্তমানে আমরা কোভিডের নতুন স্ট্রেইন দেখতে পাচ্ছি। জ্বর, শরীরের পেশীতে ব্যথা, পেটে সমস্যা, শুকনো কাশি, ত্বকে সমস্যা, গলা ব্যথা, হাত ও পায়ের আঙুলে রঙে পরিবর্তনের মতো কিছু নতুন উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। এছাড়াও এই নতুন স্ট্রেইন দ্রুত সংক্রমিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

    প্রসঙ্গত, গত বছরের তুলনায় এ বছর আরও ভয়ঙ্কর রুপ নিয়েছে করোনা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ দেশের দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাকেও বাড়িয়ে দিয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯০৪ জনের। যা মার্চের শুরুতেও দেশের দৈনিক মৃত্যু থাকছিল ১০০-১৫০ ঘরে। দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৭০ হাজার ১৭৯ জনের। দেশে কোভিড আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১,২১,৫৬,৫২৯ জন। সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লক্ষ ১ হাজার ৯ জন। দেশে সুস্থতার হার ৮৯.৯ শতাংশ।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: