• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • ওয়ার্কআউট না করেও সহজে কমান বাড়তি ওজন

ওয়ার্কআউট না করেও সহজে কমান বাড়তি ওজন

Representational Image

Representational Image

বাড়তি ওজন নিয়ে আমরা অনেকেই বিব্রত ৷ অতিরিক্ত মেদ কমাতে চান অনেকেই ৷ কিন্তু তার জন্য ওয়ার্কআউটে বা কোনওরকম কসরত করতে নারাজ ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: বাড়তি ওজন নিয়ে আমরা অনেকেই বিব্রত ৷ অতিরিক্ত মেদ কমাতে চান অনেকেই ৷ কিন্তু তার জন্য ওয়ার্কআউটে বা কোনওরকম কসরত করতে নারাজ ৷ সারাদিনের ব্যস্ততার পর জিমে যেতে কারই বা ভালো লাগে ৷ কিন্তু জিম না করে কী করে অতিরিক্ত ওজন কমাবেন ?

    আরও পড়ুন: বাতিল সিমেন্টে মেশানো হত গঙ্গামাটি, চড়া লাভে চলছে জাল সিমেন্টের কারবার

    শপিং করতে গিয়ে মন খারাপ ৷ পুরনো সাইজ আপনার আর গায়ে আঁটছে না ৷ পুজোর আর কয়েক মাস বাকি ৷ আর তার আগে মোটা হতে কারই বা ভালো লাগে ৷ কিন্তু কাকেই বা দোষ দেবেন ৷ সারাদিন অফিসে বসে কাজ আর বাইরে খাওয়া ৷ মোটা তো হবেনই ৷ তবে মন খারাপ করবেন না ৷ কয়েকটি নিয়ম মেনে চলুন তাহলেই কেল্লাফতে ৷

    আরও পড়ুন: সারাদিন মেঘলা আকাশ, আজও বৃষ্টিতে ভাসবে কলকাতা

    সব থেকে প্রথমে ঠিক করুণ আপনি কতটা ওজন কমাতে চান ৷ প্রতিদিনের একটি ডায়েট চার্ট বানান ৷ একটা মাস এই চার্ট অনুযায়ী খেতে হবে । নির্দিষ্ট সময় সঠিক পরিমাণ খাবার খেলেই রোগা হওয়া থেকে আপনাকে কেউ আটকাতে পারবে না ৷ তবে ডায়েট চার্ট বানানোর সময় এই কয়েকটা জিনিস মনে রাখবেন -

    ১. সকালে উঠে খালি পেটে গরম জলে পাতি লেবুর রস খান ৷ ২. পেট খালি না রাখার চেষ্টা করবেন ৷ প্রত্যাক দু’ঘণ্টা পর পর অল্প কিছু খাবার খান ৷ ৩. ব্রেকফাস্ট দিনের মধ্যে সব থেকে জরুরি ৷ আমরা অনেকেই ব্রেকফাস্ট স্কিপ ৷ এটা শরীরের পক্ষে খুব ক্ষতিকারক ৷ না খেয়ে রোগা হওয়া যায় না ৷ বরং এতে ফল বিপরীত হয় ৷ অনেকক্ষণ খালি পেটে থাকার পর খাবার খেলে ওজন বেড়ে যায় ৷ কারণ আমার খিদের চোটে পরিমাণের চেয়ে বেশি খেয়ে ফেলি ৷ ৪. পেট ভরে ব্রেকফাস্ট করুণ ৷ ৫. প্রচুর পরিমাণ জল খাবেন ৷ দিনে ৫ লিটার জল মাস্ট ৷ বেশি পরিমান জল খেলে শরীর থেকে টক্সিন বের হয়ে যায় ৷ ৬. ফল ও সবজি খান ৷ ৭. কফি বা চা খেলে চিনি ছাড়া খান ৷ গ্রিন টি খেতে পারলে সব থেকে ভালো ৷ এতে স্কিনও ভালো থাকে ৷ ৮. কার্ব জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন ৷ বাঙালিদের আবার ভাত না হলে চলেই না ৷ তবে ভাতের বদলে রুটি খেতে পারলে ভালো হয় ৷ তবে রুটি মানে হাতে করা দুটি রুটি ৷ তার বেশি নয় ৷ আর একান্ত ভাত খেতে হলে ব্রাউন রাইস খান৷ ৯. রান্নাতে সর্ষের তেলের বদলে অলিভ অয়েল ব্যবহার করুণ ৷ ১০. কোল্ড ড্রিঙ্ক মিষ্টি, আইসক্রিম, চকোলেট একদম স্ট্রিক্ট নো নো ৷ ১১. দই ও স্যালাড খান ৷ খিদে পেলে স্যুপ খান ৷ এতে পেটও ভরবে অথচ ওজন বাড়ার চিন্তা থাকবে না ৷ ১২. রাত আটটার মধ্যে ডিনার সেরে ফেলার চেষ্টা করুণ ৷ যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে ডিনার করার পরই শুয়ে পড়বেন না ৷ ডিনার করার পর অন্তত একঘণ্টা পর ঘুমোতে যাবেন ৷ ১৩. অফিসে বাড়ি থেকে বানানো খাবার নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুণ ৷

    তবে একটা কথা মাথায় রাখবেন ৷ কোনও কিছু হঠাৎ করে শুরু না করায় ভালো ৷ ডায়েট শুরু করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে নিন ৷ অফিস যাওয়ার সময় রিক্সার বদলে হেঁটে যান ৷ অফিসে লিফটের বদলে শিঁড়ি ব্যবহার করুণ ৷ কাজের ফাঁকে গোটা অফিসে একবার হেঁটে নিন ৷

    আরও পড়ুন: জাতীয় সড়কে ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনা ! ২০ ফুট গর্তে পড়েও বেঁচে গেলেন চার যাত্রী

    First published: