Home /News /life-style /
করোনার মাঝেই এই ভ্যাকসিনগুলি নিয়ে সজাগ থাকুন, তবেই সুস্থ থাকবে গর্ভস্থ সন্তান ও মা

করোনার মাঝেই এই ভ্যাকসিনগুলি নিয়ে সজাগ থাকুন, তবেই সুস্থ থাকবে গর্ভস্থ সন্তান ও মা

অধিক সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের। শুধু করোনার ভ্যাকসিন নয়, ঠিক সময়ে ঠিক ভ্যাকসিনেশনের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। এতে মায়ের পাশাপাশি ভাল থাকবে সন্তানও

  • Share this:

#কলকাতা: ইতিমধ্যেই এলাকায় এলাকায় করোনার ভ্যাকসিন পৌঁছতে শুরু করেছে। সংক্রমণের মাঝেও ভরসায় বুক বেঁধেছেন মানুষজন। তবে মারণ ভাইরাসের নতুন মিউটেশন নিয়ে একটি চিন্তা থেকে গিয়েছে। এই সময়ে ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সংক্রমণও দানা বাঁধছে। এই সমস্ত কিছুর মাঝে অধিক সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের। শুধু করোনার ভ্যাকসিন নয়, ঠিক সময়ে ঠিক ভ্যাকসিনেশনের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। এতে মায়ের পাশাপাশি ভাল থাকবে সন্তানও--

করোনা সংক্রমণ ও অন্তঃসত্ত্বা

ভ্যাকসিন এসে গিয়েছে। তাই অর্ধেক যুদ্ধ জিতে জেতা হয়ে গিয়েছে। তবে এই সময়ে সব চেয়ে বেশি সচেতন থাকতে হবে অন্তঃসত্ত্বাদের। কারণ, করোনা আক্রমণে মা ও সন্তান, দু'জনেরই সমস্যা হতে পারে। ভ্রূণের বৃদ্ধিতে সমস্যা হতে পারে। সদ্যোজাতর ক্ষেত্রেও একই বিপদ। যাঁরা বাচ্চাকে দুধ খাওয়াচ্ছন, তাঁদের সব চেয়ে বেশি সতর্ক থাকতে হবে। সব চেয়ে বড় বিষয়টি হল, এই সময়ে মহিলাদের শরীরে রোগপ্রতিরোধ কমে যায়। তাই বিশেষ ভাবে যত্ন নিতে হবে। না হলে যে কোনও সময়ে থাবা বসাতে পারে মারণ ভাইরাস।

সব ক্ষেত্রেই আগাম পদক্ষেপ নিতে হবে

সংক্রমণ এখনও রয়েছে। তাই সমস্ত প্রাথমিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মাস্ক পরার পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এড়িয়ে যেতে হবে ভিড় । বিশেষ করে গর্ভবতীদের ঘন ঘন হাত, মুখ ধুতে হবে। অকারণে চোখে, নাকে বা মুখে আঙুল দেওয়া যাবে না। রেগুলার চেক-আপ অনলাইনে সেরে ফেললেই ভাল। তবে যদি কোনও বড় সমস্যা দেখা যায়, তা হলে সমস্ত নিয়ম মেনে ডাক্তারের চেম্বারে যেতে হবে। একটা কথা মাথায় রাখতে হবে, সমস্ত ক্ষেত্রেই মেটারনাল ম্যানেজমেন্ট খুব জরুরি। যদি অন্তঃসত্ত্বার শরীরে কোনও রকম উপসর্গ দেখা যায়, তা হলে তড়িঘড়ি চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। প্রয়োজনে রক্তপরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে। কারণ একটু অবহেলায় দু'টি জীবন নষ্ট করে দিতে পারে।

ভ্যাকসিনেশন

করোনার মাঝে অন্যান্য বিষয়গুলি নিয়েও সচেতন থাকতে হবে। ঋতু পরিবর্তনের জেরে নানা ভাইরাল ফিভার দেখা দেয়। এক্ষেত্রে মায়ের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতার উপরে গুরুত্ব দেওয়া জরুরি। তাই সবার আগে কয়েকটি ভ্যাকসিনেশনের উপর নজর দিতে হবে।

রুবেলা (Rubella)

কনজেনিটাল রুবেলা সিনড্রোম (CRS) একটি মারাত্মক সমস্যা। এক্ষেত্রে অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন মা রুবেলা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ভ্রূণে CRS দেখা যায়। এর জেরে গর্ভপাতের প্রবল সম্ভাবনা থাকে। এই রোগ প্রতিরোধে MMR ভ্যাকসিন দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

হেপাটাইটিস B (Hepatitis B)

বাচ্চা জন্ম নেওয়ার ক্ষেত্রে বড়সড় সমস্যা এটি। একবার কোনও সদ্যোজাতর হেপাটাইটিস B দেখা দিলে, সারা জীবন ধরে লিভার ড্যামেজ, ক্রনিক ইনফেকশন-সহ একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। এক্ষেত্রে ভ্যাকসিন নেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি।

চিকেন পক্স (Chicken Pox)

কনজেনিটাল ভ্যারিসেলা সিনড্রোম বাচ্চাকে মানসিক বিকারগ্রস্ত করে দিতে পারে। শিশু জন্মানোর ক্ষেত্রেও সমস্যা হতে পারে। এক্ষেত্রে ভ্যাকসিনই সঠিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দিতে পারে।

HPV

অল্প বয়স থেকেই মেয়েদের বা শিশু কন্যাদের জন্য হিউম্যান পাপিলোমাভাইরাস (HPV) ভ্যাকসিন অত্যন্ত জরুরি।

এই ভ্যাকসিনগুলি ছাড়াও টিটেনাস টক্সয়েড (Tetanus Toxoid) ও ইনফ্লুয়েঞ্জার জন্য ভ্যাকসিন নেওয়া একান্ত প্রয়োজনীয়।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Pregnancy

পরবর্তী খবর