• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • বাচ্চা থেকে বড়, প্রায় সকলেই ভোগেন ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনে, জেনে নিন মোকাবিলার উপায়

বাচ্চা থেকে বড়, প্রায় সকলেই ভোগেন ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনে, জেনে নিন মোকাবিলার উপায়

ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (Urinary Tract Infection) বা UTI খুবই সাধারণ একটি ইনফেকশন, যা বাচ্চা থেকে বড় সকলেরই হয়ে থাকে

ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (Urinary Tract Infection) বা UTI খুবই সাধারণ একটি ইনফেকশন, যা বাচ্চা থেকে বড় সকলেরই হয়ে থাকে

ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (Urinary Tract Infection) বা UTI খুবই সাধারণ একটি ইনফেকশন, যা বাচ্চা থেকে বড় সকলেরই হয়ে থাকে

  • Share this:

#কলকাতা: ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (Urinary Tract Infection) বা UTI খুবই সাধারণ একটি ইনফেকশন, যা বাচ্চা থেকে বড় সকলেরই হয়ে থাকে। তবে, এই ইনফেকশন মহিলাদের হওয়ার সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি। বেশ কিছু সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ৫ জন মহিলার মধ্যে অন্তত এক জন এই ইনফেকশনে আক্রান্ত হন। এবং সারা জীবনে প্রত্যেক মহিলাই অন্তত একবার UTI-এ আক্রান্ত হয়েছেন।

ত্বক থেকে বা রেক্টাম থেকে ব্যাকটেরিয়া যখন ইরেথ্রায় প্রবেশ করে এবং সেখানকার অর্গ্যানে সংক্রমণ ঘটায়, তখন ইউরিনারি ট্র্যাক্টে ইনফেকশন হয়। এ ক্ষেত্রে ব্লাডার এমনকি কিডনিতেও এই ইনফেকশন ছড়িয়ে পড়তে পারে। UTI থেকে কিডনিতে যে ইনফেকশন হয়, তাকে পাইলোনেফ্রাইটিস (Pyelonephritis) বলা হয়।

ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনের উপসর্গ-

UTI-এর একাধিক উপসর্গ রয়েছে। কোন অর্গ্যানে সংক্রমণ হয়েছে, কতটা সংক্রমণ হয়েছে, তার উপরে নির্ভর করে উপসর্গগুলি দেখা দিতে পারে।

ব্লাডার ইনফেকশনের ক্ষেত্রে-

১. বার বার ইউরিন আসতে পারে ২. জল না খেলেও বা ব্লাডার খালি থাকলেও বার বার টয়লেট পেতে পারে ৩. ইউরিন রিলিজ করতে গেলে জ্বালা করতে পারে বা ব্যথা করতে পারে ৪. লোয়ার অ্যাবডোমেনে ক্র্যাম্প আসতে পারে, অনেক সময় ব্যথাও করে ৫. ইউরিনে ব্লাড আসতে পারে

যদি UTI ইনফেকশন কিডনিতে হয় তা হলে-

১. জ্বর আসতে পারে ২. ঠাণ্ডা লাগতে পারে বা মাথা ঘুরতে পারে ৩. পিঠের একদম নিচের দিকে এবং তার পাশে ব্যথা করতে পারে ৪. বমি বমি ভাব থাকতে পারে বা বমি হতে পারে

আর ইউরেথ্রাল ইনফেকশন হলে-

১. ইউরিন রিলিজের সময়ে জ্বালাভাব বা ব্যথা হতে পারে ২. ইউরিনের সঙ্গে ডিসচার্জ হতে পারে

কাদের সব চেয়ে বেশি এই UTI-এ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে?

মহিলাদের UTI-এ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি থাকে। চিকিৎসরা জানাচ্ছেন, তার কারণ, যে টিউবে ইউরিন থাকে অর্থাৎ ইউরেথ্রা, মহিলাদের ক্ষেত্রে সেটি ছোট হয় এবং অ্যানাসের কাছাকাছি থাকে। যেহেতু এই অ্যানাস E.coli ব্যাকটেরিয়ার ধারক হয়, তাই সেখান থেকে ব্যাকটেরিয়া ইউরেথ্রা, ব্লাডার ও কিডনিতে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি থাকে।

এ ক্ষেত্রে বয়স্ক মানুষদেরও এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আরও অনেকটা বেশি থাকে।

এ সব ছাড়াও অন্যান্য শারীরিক সমস্যার জন্যও UTI-এর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

কারও যদি কিডনিতে স্টোন থাকে, তা হলে তা ইউরিনারি ট্র্যাক্টকে ব্লক করে দেয়।

প্রস্টেট বড় হয়ে গেলে, পুরুষদের ক্ষেত্রে ব্লাডার খালি করতে সমস্যা হয়।

কোনও বাচ্চা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগলে UTI-এর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এ ছাড়াও ডায়াবেটিস থাকলে, রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকলে বা HIV, ক্যানসার থাকলেও UTI-এর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

কী ভাবে UTI প্রতিরোধ করা যেতে পারে?

১. UTI প্রতিরোধ করতে প্রথমেই খুব বেশি করে জল পান করতে হবে। ২ লিটার করে প্রতি দিন জল পান করলে ভালো হয়।

২. ইউরিনের প্রেসার আসলে তা চেপে না রাখলে ভালো। চেপে রাখলেই UTI হতে পারে।

৩. ইউরিন খুব তাড়াতাড়ি না করাই ভালো। তাতে ব্লাডার পুরোপুরি খালি না-ও হতে পারে। এতে UTI হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

৪. যৌনাঙ্গ বা তার আশেপাশে কোনওরকম স্প্রে বা পাউডার ব্যবহার না করাই ভালো।

৫. হাইজিন মেইনটেইন করা যেতে পারে।

৬. পাবলিক টয়লেট এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

৭. ক্র্যানবেরি জুস বা ট্যাবলেট সঙ্গে রাখা যেতে পারে, এই ফল ইউরিনারি হেলথ ঠিক রাখে।

৮. প্রো-বায়োটিক খাওয়া যেতে পারে।

Published by:Rukmini Mazumder
First published: